অধিকাংশ ব্যাংকে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ বেড়েছে

সময়: মঙ্গলবার, সেপ্টেম্বর ১৭, ২০১৯ ৯:১৭:১৬ পূর্বাহ্ণ


নিজস্ব প্রতিবেদক : দীর্ঘ মন্দার কারণে বিনিয়োগকারীরা পুঁজিবাজারে হাবুডুবু খাচ্ছে। এ অবস্থা থেকে উত্তোরণে স্টেকহোল্ডারদের পাশাপাশি সরকার তৎপর রয়েছে। এ পরিস্থিতিতে জুলাইয়ের চেয়ে আগস্ট মাসে ব্যাংক খাতের শেয়ারে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ সামান্য বেড়েছে। আর প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ বাড়াকে সংশ্লিষ্টরা ইতিবাচকভাবে দেখছেন। তারা বলছেন, ব্যাংকের পাশাপাশি অন্যান্য খাতে একযোগে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ বাড়লে বাজার গতিশীল হবে। ডিএসই সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।
আগস্ট মাসে শেয়ারহোল্ডিং পজিশনের হালনাগাদ তথ্যমতে, তালিকাভুক্ত ৩০টি ব্যাংকের মধ্যে ১৩টি ব্যাংকে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ আগের মাসের চেয়ে বেড়েছে। এছাড়া কমেছে ৭টি ব্যাংকের প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ। অপরিবর্তিত রয়েছে একটি ব্যাংকের বিনিয়োগ। ডিএসই’তে ৯টি ব্যাংকের তথ্য এখনো হালনাগাদ হয়নি।
যেসব ব্যাংকে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ বেড়েছে তার মধ্যে এবি ব্যাংকে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীরা ৩৩ দশমিক ৮৬ শতাংশ শেয়ারধারণ করছে। এছাড়া ঢাকা ব্যাংকে ১২ দশমিক ৭৬ শতাংশ, আইসিবি ইসলামী ব্যাংক ২২ দশমিক ৫৬ শতাংশ, এমটিবি ২২ দশমিক ১৪ শতাংশ, ন্যাশনাল ব্যাংকের ২০ দশমিক ২২ শতাংশ, প্রাইম ব্যাংক ২৬ দশমিক ২৮ শতাংশ, পূবালী ব্যাংক ২৬ দশমিক ৯৩ শতাংশ, রূপালী ব্যাংক ৪ দশমিক ৫৩ শতাংশ, শাহজালাল ব্যাংক ১৪ দশমিক ৩৯ শতাংশ, সাউথইস্ট ব্যাংক ৩১ দশমিক ৩৪ শতাংশ, ট্রাস্ট ব্যাংক ১৭ দশমিক ৫১ শতাংশ, ইউসিবি ১৮ দশমিক ৫৪ শতাংশ, উত্তরা ব্যাংকের ২২ দশমিক ১৮ শতাংশ শেয়ার ধারণ করছে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীরা।
সংশ্লিষ্টরা বলছেন, জুনে হিসাব বছর শেষ হওয়া কোম্পানিগুলোর লভ্যাংশের মৌসুম চলছে। এই মুহূর্তে এসব কোম্পানিতে বিনিয়োগ তুলনামূলক বাড়ার কথা। কিন্তু কিছু প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীরা সবসময় নিরাপদ বিনিয়োগ ও কৌশল অবলম্বন করে থাকে। ফলে এ ধরনের বিনিয়োগকারীরা জুনে হিসাব বছর শেষ হওয়া কোম্পানির বাইরে ব্যাংকি খাতের শেয়ারে বিনিয়োগ বাড়াচ্ছে।
তারা আরো বলেন, দীর্ঘদিন ব্যাংকিং খাতের দর হাতের নাগালে রয়েছে। তাছাড়া একটি আর্থিক খাতের প্রতিষ্ঠান অবসায়নের খবরে ব্যাংক ও নন-ব্যাংকিং আর্থিক প্রতিষ্ঠানের শেয়ার দর অনেকটা নিচে নেমে গেছে। অনেক মৌলভিত্তি সম্পন্ন কোম্পানির শেয়ারও যোগ্য দর পাচ্ছে না। আর এই সময়কে কেউ কেউ হাতছাড়া করতে চাচ্ছে না। ফলে ব্যাংকিং খাতের শেয়ারে তারা বিনিয়োগ বাড়াচ্ছে। তবে ব্যাংকিং ছাড়া অন্যান্য খাতে একযোগে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ বাড়লে বাজার গতি ফিরে পাবে বলে মনে করছেন তারা।
এ সম্পর্কে পুঁজিবাজার বিশ্লেষক অধ্যাপক আবু আহমেদ ‘দৈনিক শেয়ারবাজার প্রতিদিন’কে বলেন, ব্যাংকিং খাতের শেয়ার দর অন্যান্য কোম্পানির মতো এতো বেশি ওঠানামা করে না। কিছুদিন আগে একটি আর্থিক প্রতিষ্ঠানের খবরে এসব কোম্পানির শেয়ার দর অনেকটা কমে গেছে। আর এই অবস্থায় খাতটির মৌলভিত্তি সম্পন্ন কোম্পানিতে বিনিয়োগ বাড়াচ্ছে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীরা। এটা ভালো খবর। প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ বাড়লে শুধু ব্যাংকিং খাত নয়, পুরো বাজারে গতি ফিরে পাবে।
উল্লেখ্য, তালিকাভুক্ত ব্যাংকগুলোর মধ্যে ৬টির দর ফেসভ্যালুর নিচে অবস্থান করছে। আর ৫-৬ কোম্পানির দর ফেসভ্যালুর কাছাকাছি লেনদেন হচ্ছে।

দৈনিক শেয়ারবাজার প্রতিদিন/এসএ/খান

Share
নিউজটি ৩৪৭ বার পড়া হয়েছে ।
Tagged