কারেকশন সূচক লেনদেন dse-cse

আড়াই বছরের মধ্যে সর্বনিম্ন অবস্থানে সূচক

সময়: সোমবার, জুলাই ২২, ২০১৯ ৪:২১:৩৮ পূর্বাহ্ণ


নিজস্ব প্রতিবেদক : ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) সপ্তাহের প্রথম কার্যদিবসে সর্বনিম্ন অবস্থানে সূচক। এদিন ডিএসইর প্রধান সূচক ৯৬ পয়েন্ট কমেছে। এর আগে ২০১৬ সালের ২৮ ডিসেম্বর ডিএসই’র সূচক ছিল ৫ হাজার ২৭ পয়েন্ট।
গতকাল লেনদেনের শুরু থেকেই সেল প্রেসারে টানা নামতে সূচক। এদিন লেনদেন শেষে সূচকের পাশাপাশি কমেছে বেশিরভাগ কোম্পানির শেয়ার দর। আর টাকার অঙ্কেও লেনদেন আগের দিনের তুলনায় কিছুটা কমেছে। গতকাল ডিএসইতে লেনদেন হয়েছে ৩৬৮ কোটি ৬৪ লাখ ১৮ হাজার টাকা।
বাজার পর্যালোচনায় দেখা যায়, গতকাল ডিএসইর ব্রড ইনডেক্স আগের দিনের চেয়ে ৯৬ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ৫০৩৩ পয়েন্টে। আর ডিএসই শরিয়াহ সূচক ১৮ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ১১৫৭ পয়েন্টে এবং ডিএসই ৩০ সূচক ৩০ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ১৭৯৯ পয়েন্টে। দিনভর লেনদেন হওয়া ৩৫২টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের মধ্যে দর বেড়েছে ৬১টির, কমেছে ২৭৩টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ১৮টির। আর দিনশেষে লেনদেন হয়েছে ৩৬৮ কোটি ৬৪ লাখ ১৮ হাজার টাকা।
এর আগের কার্যদিবস দিন শেষে ডিএসইর ব্রড ইনডেক্স ২ পয়েন্ট কমে অবস্থান করে ৫১৩০ পয়েন্টে। আর ডিএসই শরিয়াহ সূচক ০.৭৪ পয়েন্ট কমে অবস্থান করে ১১৭৬ পয়েন্টে এবং ডিএসই ৩০ সূচক ০.৪৫ পয়েন্ট কমে অবস্থান করে ১৮২৯ পয়েন্টে। আর ওইদিন লেনদেন হয়েছিল ৩৯৫ কোটি ২৯ লাখ ৬৭ হাজার টাকা। সে হিসেবে গতকাল ডিএসইতে লেনদেন কমেছে ২৬ কোটি ৬৫ লাখ ৪৯ হাজার টাকা।
অন্যদিকে, চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) গতকালও সূচক পতন হয়েছে। দিনের শুরু থেকে সূচক নিচের দিক নামতে থাকে। ফলে দিন শেষে সূচক অস্বাভাবিকভাবে পতন হয়েছে। একই সঙ্গে কমেছে লেনদেন হওয়া বিভিন্ন কোম্পানির শেয়ারদর। তবে টাকার অঙ্কে মোট লেনদেন আগের কার্যদিবস অর্থাৎ গত বৃহস্পতিবারের তুলনায় সামান্য বেড়েছে।

দিন শেষে সিএসই সার্বিক সূচক গতকাল ৩০৯ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ১৫ হাজার ৪১৫ পয়েন্টে। অন্যদিকে সিএসইএক্স সূচক ১৮৫ পয়েন্ট কমে ৯ হাজার ৩৭৩ পয়েন্টে নেমে আসে।

সিএসইতে মোট ২৮৪টি কোম্পানির লেনদেন হয়েছে। এর মধ্যে দর বেড়েছে ৪২টির কমেছে ২৩১টির আর অপরিবর্তিত ছিল ১১ কোম্পানির শেয়ার দর। আর দিন শেষে ৭৯ লাখ ২৯ হাজার ৯৫৬টি শেয়ার ৯ হাজার ৩২৬ বার হাতবদল হয়। টাকার অঙ্কে মোট মূল্য ছিল ১৭ কোটি ১০ লাখ ১৩ হাজার ৩২৫ টাকা। যা আগের কার্যদিবসের তুলনায় ২৯ লাখ ৫৩ হাজার ৫৮২ টাকা বেশি। আগের দিন মোট লেনদেন হয়েছিল ১৬ কোটি ৮০ লাখ ৫৯ হাজার ৭৪৩ টাকা। সিএসইতে টপটেন গেইনারের ১০ কোম্পানির মধ্যে শীর্ষে ছিল কন্টিনেন্টাল ইন্স্যুরেন্স। এর দর বেড়েছে ৯.৯০ শতাংশ। ৯.৬১ শতাংশ দর বেড়ে দ্বিতীয় অবস্থানে ছিল এসইএমএল আইবিবিএল শরীয়া ফান্ড। অন্যদিকে দর হারানোর দিক থেকে শীর্ষে ছিল তুংহাই নিটিং অ্যান্ড ডায়িং লিমিটেড। এ কোম্পানির দর কমেছে ১০ শতাংশ।
এদিকে দিন শেষে চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) সাধারণ মূল্য সূচক সিএসইএক্স ১৮৫ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ৯ হাজার ৩৭৩ পয়েন্টে। দিনভর লেনদেন হওয়া ২৮৪টি কোম্পানির ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের মধ্যে দর বেড়েছে ৪২টির, কমেছে ২৩১টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ১১টির। আর দিন শেষে লেনদেন হয়েছে ১৭ কোটি ১০ লাখ ১৩ হাজার টাকা।

দৈনিক শেয়ারবাজার প্রতিদিন/এসএ/খান

Share
নিউজটি ৩২৬ বার পড়া হয়েছে ।
Tagged