সূচক কমলেও বেড়েছে লেনদেন

ধারাবাহিক দরপতনে দিশেহারা বিনিয়োগকারীরা

নিম্নমুখী প্রবণতায় সপ্তাহ শুরু

সময়: রবিবার, ফেব্রুয়ারি ৯, ২০২০ ৫:৫৫:০৫ অপরাহ্ণ


মো. সাজিদ খান : আবারও ধারাবাহিক দরপতনের কবলে শেয়ারবাজার। আজ সপ্তাহের প্রথম কার্যদিবসে সূচকের পাশাপাশি কমেছে লেনদেন। এ নিয়ে ৪ কার্যদিবস ধরেই বাজার নিম্নমুখী প্রবণতায় লেনদেন হয়েছে। এতে সাধারণ বিনিয়োগকারীরা দিশেহারা হয়ে পরেছেন। যার ফলে আবারও শেয়ারবাজারের প্রতি আস্থা হারাবে নিয়োগকারীরা। তাই সংশ্লিষ্ট নিয়ন্ত্রক সংস্থার উচিত বাজারকে স্বাভাবিক পর্যায়ে আনতে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করা এমনটাই মনে করছেন বাজার সংশ্লিষ্টরা।
এদিকে, দেশের উভয় স্টক এক্সচেঞ্জে আজ সূচকের পাশাপাশি কমেছে লেনদেন। একই সঙ্গে কমেছে বাজার মূলধন এবং অধিকাংশ কোম্পানির শেয়ার দর। ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) আজ লেনদেন কমেছে ১৪ কোটি ৫৭ লাখ ৮৪ হাজার ৬৮৮ টাকা ৫০ পয়সা। বাজার মূলধন কমেছে ৪১১ কোটি ৩২ লাখ ৬৮ হাজার ৯০১ টাকা ৮১ পয়সা।
চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) লেনদেন কমেছে ৩৭ লাখ ১৩ হাজার ৯৯৪ টাকা ৪০ পয়সা। সিএসই’তে বাজার মূলধন কমেছে ২ হাজার ৩৯০ কোটি ৮৬ লাখ ৯৭ হাজার ২৯ টাকা ৩০ পয়সা। সংশ্লিষ্ট স্টক এক্সচেঞ্জ সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।
বাজার পর্যালোচনায় দেখা যায়, আজ ডিএসই’র ব্রড ইনডেক্স আগের দিনের চেয়ে ৬৪.২০ পয়েন্ট কমে দাঁড়ায় ৪৩৮৮.৭৫ পয়েন্টে। আর ডিএসই শরিয়াহ্্ সূচক ১৪.৯৯ পয়েন্ট কমে ১০১২.৪১ পয়েন্ট এবং ডিএসই৩০ সূচক ২১.৪০ পয়েন্ট কমে ১৪৯২.৪৫ পয়েন্টে দাঁড়ায়। সারা দিন লেনদেনকৃত ৩৫৬টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের মধ্যে বেড়েছে ৪৩টি, কমেছে ২৭১টি এবং অপরিবর্তিত ছিল ৪২টি দর। এদিন ডিএসই’তে মোট ১৩ কোটি ৩০ লাখ ৪ হাজার ২৭টি শেয়ার এক লাখ ২১ হাজার ৪৭৫বার হাতবদল হয়, যাদের মোট মূল্য ৩৬১ কোটি ৯৭ লাখ ৬৬ হাজার ৩৮৪ টাকা ৪০ পয়সা। আজ বাজার মূলধন ছিল ৩ লাখ ৩৬ হাজার ৩৩৩ কোটি ৮৬ লাখ ৮৮ হাজার ৯৯৭ টাকা ৩৭ পয়সা।
এর আগের কার্যদিবসে ডিএসই’র ব্রড ইনডেক্স ১২.৯৩ পয়েন্ট কমে দাঁড়ায় ৪৪৫২.৯৬ পয়েন্টে। আর ডিএসই শরিয়াহ্্ সূচক ১.৯০ পয়েন্ট কমে ১০২৭.৪১ পয়েন্ট এবং ডিএসই৩০ সূচক ৫.৩৬ পয়েন্ট কমে ১৫১৩.৮৬ পয়েন্টে দাঁড়ায়। সারা দিন লেনদেনকৃত ৩৫৫টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের মধ্যে বেড়েছে ১৪৩টি, কমেছে ১৫১টি এবং অপরিবর্তিত ছিল ৬১টি দর। এদিন ডিএসই’তে মোট ১৩ কোটি ৪০ লাখ ৬৫ হাজার ৬১৮টি শেয়ার এক লাখ ২১ হাজার ৫৪১বার হাতবদল হয়, যাদের মোট মূল্য ৩৭৬ কোটি ৫৫ লাখ ৫১ হাজার ৭২ টাকা ৯০ পয়সা। আগের কার্যদিবসে বাজার মূলধন ছিল ৩ লাখ ৪০ হাজার ৪৪৭ কোটি ৯ লাখ ৫৭ হাজার ৮৯৯ টাকা ১৮ পয়সা।
ক্যাটাগরিভিত্তিক লেনদেনের ক্ষেত্রে ডিএসই’তে আজ ‘এ’ ক্যাটাগরির ২৫৮টি কোম্পানির মধ্যে বেড়েছে ৩৪টি, কমেছে ১৯৮টি এবং অপরিবর্তিত ছিল ২৬টির শেয়ার দর। ‘বি’ ক্যাটাগরির ৪৭টি কোম্পানির মধ্যে বেড়েছে ৫টি, কমেছে ৩৮টির এবং অপরিবর্তিত ছিল ৪টি শেয়ার দর। ‘এন’ ক্যাটাগরির ৩টি কোম্পানির মধ্যে সবগুলোর দর কমেছে। ‘জেড’ ক্যাটাগরির ৪৮টি কোম্পানির মধ্যে বেড়েছে ৪টি, কমেছে ৩২টি এবং অপরিবর্তিত ছিল ১২টির শেয়ার দর। এছাড়া, ৩৭টি মিউচ্যুয়াল ফান্ডের মধ্যে বেড়েছে ৮টি, কমেছে ১২টি এবং অপরিবর্তিত ছিল ১৭টির দর।
এর আগের কার্যদিবসে ক্যাটাগরিভিত্তিক লেনদেনের ক্ষেত্রে ডিএসই’তে ‘এ’ ক্যাটাগরির ২৫৬টি কোম্পানির মধ্যে বেড়েছে ১০০টি, কমেছে ১১৩টি এবং অপরিবর্তিত ছিল ৪৩টির শেয়ার দর। ‘বি’ ক্যাটাগরির ৪৭টি কোম্পানির মধ্যে বেড়েছে ২১টি, কমেছে ১৯টির এবং অপরিবর্তিত ছিল ৭টি শেয়ার দর। ‘এন’ ক্যাটাগরির ৪টি কোম্পানির মধ্যে দর বেড়েছে ৩টিএবং অপরিবর্তিত রয়েছে ১টির। ‘জেড’ ক্যাটাগরির ৪৮টি কোম্পানির মধ্যে বেড়েছে ১৯টি, কমেছে ১৯টি এবং অপরিবর্তিত ছিল ১০টির শেয়ার দর। এছাড়া, ৩৬টি মিউচ্যুয়াল ফান্ডের মধ্যে বেড়েছে ১৪টি, কমেছে ৪টি এবং অপরিবর্তিত ছিল ১৮টির দর।
আজ ‘এ’ ক্যাটাগরির ২৫৬ কোম্পানির মোট ৯ কোটি ৯২ লাখ ৪১ হাজার ৭১২টি শেয়ার ৯৫ হাজার ১৭৪বার হাতবদল হয়, যাদের মোট মূল্য ২৭৮ কোটি ৫৪ লাখ ১৮ হাজার টাকা। ‘বি’ ক্যাটাগরির ৪৭ কোম্পানির এক কোটি ৯৪ লাখ ৩০ হাজার ৮৫১টি শেয়ার ১৮ হাজার ৪৬৮বার হাতবদল হয়, যাদের মোট মূল্য ৪২ কোটি ৩৫ লাখ ৬৭ হাজার টাকা। ‘এন’ ক্যাটাগরির ৩ কোম্পানির ৪৮ লাখ ৯৮ হাজার ৮৬৫টি শেয়ার ৪ হাজার ৭৯১ বার হাতবদল হয়, যাদের মোট মূল্য ১৭ কোটি ৭৫ লাখ ৭০ হাজার টাকা। ‘জেড’ ক্যাটাগরির ৪৮ কোম্পানির ৫০ লাখ ১৪ হাজার ৪৬টি শেয়ার ৩ হাজার ২০ বার হাতবদল হয়, যাদের মোট মূল্য ৩ কোটি ১২ লাখ ৪৬ হাজার টাকা।
এর আগের কার্যদিবসে ‘এ’ ক্যাটাগরির ৯ কোটি ৬৯ লাখ ৩৮ হাজার ২৪৯টি শেয়ার ৯২ হাজার ৬১০বার হাতবদল হয়, যাদের মোট মূল্য ২৮৮ কোটি ৯৬ লাখ ৫৩ হাজার টাকা। ‘বি’ ক্যাটাগরির ৪৭ কোম্পানির ২ কোটি ১ লাখ ৮০ হাজার ৭১৭টি শেয়ার ১৯ হাজার ২৫৮বার হাতবদল হয়, যাদের মোট মূল্য ৪৮ কোটি ৪৮ লাখ ৮৪ হাজার টাকা। ‘এন’ ক্যাটাগরির ৪ কোম্পানির ৭৪ লাখ ৫৪ হাজার ৮৩৬টি শেয়ার ৬ হাজার ৮৪৮ বার হাতবদল হয়, যাদের মোট মূল্য ২৫ কোটি ১০ লাখ ৬৯ হাজার টাকা। ‘জেড’ ক্যাটাগরির ৪৮ কোম্পানির ৬৬ লাখ ১২ হাজার ৫৬৮টি শেয়ার ২ হাজার ৭৯০ বার হাতবদল হয়, যাদের মোট মূল্য ৩ কোটি ২৯ লাখ ২৯ হাজার টাকা।
অন্যদিকে, চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) আজ সিএসই’র সার্বিক সূচক ১৩০.৯৮ পয়েন্ট কমে দাঁড়ায় ১৩৪১১.৬০ পয়েন্টে। সিএসইএক্স সূচক ৮১.৫৯ পয়েন্ট কমে দাঁড়ায় ৮১৩০.৩৭ পয়েন্টে। আজ মোট ২২৬টি কোম্পানির শেয়ার লেনদেন হয়েছে। এর মধ্যে বেড়েছে ৪৭টি, কমেছে ১৫২টি এবং অপরিবর্তিত ছিল ২৭ কোম্পানির শেয়ার দর। আর দিন শেষে ৬৭ লাখ ২০ হাজার ৪০৪টি শেয়ার ও ইউনিট ৬ হাজার ৬৭২বার হাতবদল হয়েছে, যাদের মোট মূল্য ছিল ১৩ কোটি ৬৪ লাখ ১ হাজার ৮২২ টাকা ৫০ পয়সা। আজ সিএসই’র বাজারমূলধন ছিল ২ লাখ ৬৭ হাজার ২৫৬ কোটি ২২ লাখ ১১ হাজার ২২৭ টাকা।
এর আগের কার্যদিবসে চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) সার্বিক সূচক ৬৩.০৬ পয়েন্ট কমে দাঁড়ায় ১৩৫৭৯.৫৪ পয়েন্টে। সিএসইএক্স সূচক ৩৭.৭৫ পয়েন্ট কমে দাঁড়ায় ৮২৩১.৭৮ পয়েন্টে। আজ মোট ২৩৫টি কোম্পানির শেয়ার লেনদেন হয়েছে। এর মধ্যে বেড়েছে ৬৫টি, কমেছে ১৩৫টি এবং অপরিবর্তিত ছিল ৩৫ কোম্পানির শেয়ার দর। আর দিন শেষে ৬৫ লাখ ৩২ হাজার ৯৬৫টি শেয়ার ও ইউনিট ৬ হাজার ৮৮৯বার হাতবদল হয়েছে, যাদের মোট মূল্য ছিল ১৪ কোটি ১৮ লাখ ৭৩ হাজার ১০১ টাকা ৪০ পয়সা। আগের কার্যদিবসে সিএসই’র বাজারমূলধন ছিল ২ লাখ ৭০ হাজার ৩৫ কোটি ৭৫ লাখ ৪৮ হাজার ৩৮৫ টাকা ১০ পয়সা।

দৈনিক শেয়ারবাজার প্রতিদিন/এসএ/খান

Share
নিউজটি ৩৩৩ বার পড়া হয়েছে ।
Tagged