সূচক কমলেও বেড়েছে লেনদেন

পতনের ধারায় সপ্তাহ শেষ

সময়: বৃহস্পতিবার, জানুয়ারি ৯, ২০২০ ৬:১৩:৪৬ অপরাহ্ণ


মো. সাজিদ খান : শেয়ারবাজারে ধারাবাহিক দরপতনের ধারায় সপ্তাহ শেষ হয়েছে। এদিন দেশের উভয় স্টক এক্সচেঞ্জে সূচকের পাশাপাশি কমেছে বাজার মূলধন। তবে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) আজ লেনদেনের পরিমাণ বাড়লেও কমেছে চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই)। এছাড়া উভয় স্টক এক্সচেঞ্জেই অধিকাংশ কোম্পানির শেয়ার দর কমেছে। দিনশেষে আজ ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) লেনদেন বেড়েছে ২১ কোটি ৪৫ লাখ ৭০ হাজার ৯০ টাকা ১০ পয়সা। এদিন বাজার মূলধন কমেছে ২ হাজার ৭৭৬ কোটি ৫৮ লাখ ৮৩ হাজার ৬৯৫ টাকা ৯৬ পয়সা।
অন্যদিকে, চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) লেনদেন কমেছে ৩ কোটি ৮১ লাখ ১ হাজার ৯৩৬ টাকা ১০ পয়সা। এদিন সিএসই’তে বাজার মূলধন কমেছে ৩ হাজার ৭০ কোটি ৩৫ লাখ ৬৮ হাজার ৫০৪ টাকা ৭০ পয়সা। সংশ্লিষ্ট স্টক এক্সচেঞ্জ সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।
বাজার পর্যালোচনায় দেখা যায়, আজ ডিএসই’র ব্রড ইনডেক্স আগের দিনের চেয়ে ৩০.৯৭ পয়েন্ট কমে দাঁড়ায় ৪১৯৭.৩৯ পয়েন্টে। আর ডিএসই শরিয়াহ্্ সূচক ৭.৯৭ পয়েন্ট কমে ৯৪৫.৯১ পয়েন্ট এবং ডিএসই৩০ সূচক ১৫.০০ পয়েন্ট কমে ১৪০৬.৩৭ পয়েন্টে দাঁড়ায়। দিনভর লেনদেন হওয়া ৩৫২টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের মধ্যে বেড়েছে ১২৬টির, কমেছে ১৭৩টির এবং অপরিবর্তিত ছিল ৫৩টি কোম্পানির শেয়ারের দর। এদিন ডিএসই’তে মোট ৯ কোটি ৮৫ লাখ ৭৫ হাজার ৩৯৮টি শেয়ার ৯৯ হাজার ৭০৮ বার হাতবদল হয়, যাদের মোট মূল্য ৩০১ কোটি ৪১ লাখ ৯৮ হাজার ৯৩২ টাকা ৩০ পয়সা। আজ বাজার মূলধন ছিল ৩ লাখ ২৩ হাজার ৬৫০ কোটি ২ লাখ ৮১ হাজার ২১৫ টাকা ৮৫ পয়সা।
গতকাল ডিএসই’র ব্রড ইনডেক্স ৫৩.০৬ পয়েন্ট কমে দাঁড়ায় ৪২২৮.৩৬ পয়েন্টে। আর ডিএসই শরিয়াহ্্ সূচক ১৯.০৯ পয়েন্ট কমে ৯৫৩.৮৮ পয়েন্ট এবং ডিএসই৩০ সূচক ১৪.৮৮ পয়েন্ট কমে ১৪২১.৩৮ পয়েন্টে দাঁড়ায়। দিনভর লেনদেন হওয়া ৩৫১টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের মধ্যে বেড়েছে ৫১টির, কমেছে ২৪৯টির এবং অপরিবর্তিত ছিল ৫১টি কোম্পানির শেয়ারের দর। এদিন ডিএসই’তে মোট ৯ কোটি ৯১ লাখ ৭৯ হাজার ৩৮০টি শেয়ার এক লাখ ৫০৩ বার হাতবদল হয়, যাদের মোট মূল্য ২৭৯ কোটি ৯৬ লাখ ২৮ হাজার ৮৪২ টাকা ২০ পয়সা। ওইদিন বাজার মূলধন ছিল ৩ লাখ ২৬ হাজার ৪২৬ কোটি ৬১ লাখ ৬৪ হাজার ৯১১ টাকা ৮১ পয়সা।
ক্যাটাগরিভিত্তিক লেনদেনের ক্ষেত্রে ডিএসই’তে আজ ‘এ’ ক্যাটাগরির ২৪৮টি কোম্পানির মধ্যে বেড়েছে ৭৫টি, কমেছে ১৩৭টি এবং অপরিবর্তিত ছিল ৩৬টির শেয়ার দর। ‘বি’ ক্যাটাগরির ৪৩টি কোম্পানির মধ্যে বেড়েছে ২৬টি, কমেছে ১৪টি এবং অপরিবর্তিত ছিল ৩টির শেয়ার দর। ‘এন’ ক্যাটাগরির ১০টি কোম্পানির মধ্যে দর বেড়েছে ৪টি, কমেছে ৬টি এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ১টির। ‘জেড’ ক্যাটাগরির ৫১টি কোম্পানির মধ্যে বেড়েছে ১৭টি, কমেছে ২১টি এবং অপরিবর্তিত ছিল ১৩টির শেয়ার দর। এছাড়া, ৩৫টি মিউচ্যুয়াল ফান্ডের মধ্যে বেড়েছে ৩টির, কমেছে ১৭টির এবং অপরিবর্তিত ছিল ১৫টির দর।
গতকাল ক্যাটাগরিভিত্তিক লেনদেনের ক্ষেত্রে ডিএসই’তে ‘এ’ ক্যাটাগরির ২৪৮টি কোম্পানির মধ্যে বেড়েছে ২৯টি, কমেছে ১৮৫টি এবং অপরিবর্তিত ছিল ৩৪টির শেয়ার দর। ‘বি’ ক্যাটাগরির ৪৩টি কোম্পানির মধ্যে বেড়েছে ১০টি, কমেছে ২৬টি এবং অপরিবর্তিত ছিল ৭টির শেয়ার দর। ‘এন’ ক্যাটাগরির ১০টি কোম্পানির মধ্যে দর বেড়েছে ৪টি এবং কমেছে ৬টির। ‘জেড’ ক্যাটাগরির ৫০টি কোম্পানির মধ্যে বেড়েছে ৮টি, কমেছে ৩২টি এবং অপরিবর্তিত ছিল ১০টির শেয়ার দর। এছাড়া, ৩৬টি মিউচ্যুয়াল ফান্ডের মধ্যে বেড়েছে ৬টির, কমেছে ১৪টির এবং অপরিবর্তিত ছিল ১৬টির দর।
আজ ‘এ’ ক্যাটাগরির ২৪৮ কোম্পানির মোট ৬ কোটি ৩৬ লাখ ১৯ হাজার ৮০৫টি শেয়ার ৬৬ হাজার ৯৯৬ বার হাতবদল হয়, যাদের মোট মূল্য ২০৮ কোটি ১৬ লাখ ৪১ হাজার টাকা। ‘বি’ ক্যাটাগরির ৪৩ কোম্পানির এক কোটি ৫৫ লাখ ৯৬ হাজার ৪৫৮টি শেয়ার ১৪ হাজার ৮৬৭বার হাতবদল হয়, যাদের মোট মূল্য ৪১ কোটি ২ লাখ ৮৬ হাজার টাকা। ‘এন’ ক্যাটাগরির ১০ কোম্পানির এক কোটি ২০ লাখ ৯৫ হাজার ১১০টি শেয়ার ১৪ হাজার ২২৩ বার হাতবদল হয়, যাদের মোট মূল্য ৩২ কোটি ৫৯ লাখ ৬৮ হাজার টাকা। ‘জেড’ ক্যাটাগরির ৫১ কোম্পানির ৩২ লাখ ৯৯ হাজার ৪৪১টি শেয়ার ৩ হাজার ৫৮৮ বার হাতবদল হয়, যাদের মোট মূল্য ৫ কোটি ৪৩ লাখ ৫৪ হাজার টাকা।
গতকাল ‘এ’ ক্যাটাগরির ২৪৯ কোম্পানির মোট ৬ কোটি ৪৪ লাখ ৪১ হাজার ৪৫৯টি শেয়ার ৬৫ হাজার ৫৫৯ বার হাতবদল হয়, যাদের মোট মূল্য ১৯৫ কোটি ৪১ লাখ ৮৪ হাজার টাকা। ‘বি’ ক্যাটাগরির ৪৩ কোম্পানির এক কোটি ৭২ লাখ ৯১ হাজার ৫৫৪টি শেয়ার ১৫ হাজার ২৫২বার হাতবদল হয়, যাদের মোট মূল্য ৪২ কোটি ৬০ লাখ ৭৪ হাজার টাকা। ‘এন’ ক্যাটাগরির ১০ কোম্পানির এক কোটি ৪ লাখ ৫৭ হাজার ১২৩টি শেয়ার ১৫ হাজার ৬৩৭ বার হাতবদল হয়, যাদের মোট মূল্য ২৫ কোটি ৬৪ লাখ ৮২ হাজার টাকা। ‘জেড’ ক্যাটাগরির ৫০ কোম্পানির ৩৯ লাখ ৮৯ হাজার ২১১টি শেয়ার ৪ হাজার ১৮ বার হাতবদল হয়, যাদের মোট মূল্য ৪ কোটি ১৩ লাখ ৩৬ হাজার টাকা।
অন্যদিকে, চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) আজ সিএসই’র সার্বিক সূচক ১১৮.৭৫ পয়েন্ট কমে দাঁড়ায় ১২৭৬৮.৯৪ পয়েন্টে। সিএসইএক্স সূচক ৭০.৯৩ পয়েন্ট কমে দাঁড়ায় ৭৭৩৫.১২ পয়েন্টে। আজ মোট ২৪০টি কোম্পানির শেয়ার লেনদেন হয়েছে। এর মধ্যে বেড়েছে ৭৭টির, কমেছে ১২৬টির এবং অপরিবর্তিত ছিল ৩৭ কোম্পানির শেয়ার দর। আর দিন শেষে ৫০ লাখ ৭২ হাজার ৪৭টি শেয়ার ও ইউনিট ৭ হাজার ২৭৩ বার হাতবদল হয়েছে, যাদের মোট মূল্য ছিল ১০ কোটি ৭২ লাখ ৫২ হাজার ৫২৯ টাকা ৮০ পয়সা। আজ সিএসই’র বাজারমূলধন ছিল ২ লাখ ৫৪ হাজার ৪৮২ কোটি ৭ লাখ ৫৯ হাজার ৯৮৪ টাকা ২০ পয়সা।
গতকাল চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) সার্বিক সূচক ১২২.৭৭ পয়েন্ট কমে দাঁড়ায় ১২৮৮৭.৬৯ পয়েন্টে। সিএসইএক্স সূচক ৭৫.১৬ পয়েন্ট কমে দাঁড়ায় ৭৮০৬.০৫ পয়েন্টে। ওইদিন মোট ২১৯টি কোম্পানির শেয়ার লেনদেন হয়েছে। এর মধ্যে বেড়েছে ৪৭টির, কমেছে ১৪৬টির এবং অপরিবর্তিত ছিল ২৬ কোম্পানির শেয়ার দর। আর দিন শেষে ৫৪ লাখ ৯০ হাজার ৪৪টি শেয়ার ও ইউনিট ৮ হাজার ৭১৫ বার হাতবদল হয়েছে, যাদের মোট মূল্য ছিল ১৪ কোটি ৫৩ লাখ ৫৪ হাজার ৯৬৫ টাকা ৯০ পয়সা। ওইদিন সিএসই’র বাজারমূলধন ছিল ২ লাখ ৫৭ হাজার ৫৫২ কোটি ৪৩ লাখ ২৮ হাজার ৪৮৮ টাকা ৯০ পয়সা।

দৈনিক শেয়ারবাজার প্রতিদিন/এসএ/খান

Share
নিউজটি ৪৩৬ বার পড়া হয়েছে ।
Tagged