সূচক কমলেও বেড়েছে লেনদেন

ব্যাপক দরপতনের কবলে শেয়ারবাজার

সময়: মঙ্গলবার, ডিসেম্বর ১৭, ২০১৯ ৬:৫৯:৩৭ অপরাহ্ণ


মো. সাজিদ খান : ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) পতনের ধারা অব্যহত রয়েছে। সপ্তাহের প্রথম কার্যদিবসে পতন দিয়ে শেষ হয়েছিল লেনদেন। বিজয় দিবসের একদিন বন্ধ থাকার পর আজ লেনদেন শেষ হয় পতন দিয়ে। আজ লেনদেনের শুরু থেকে বেলা ১১টা ২০ মিনিট পর্যন্ত সূচকের স্বাভাবিক ওঠানামায় লেনদেন হতে দেখা গেছে। এরপর একটানা সূচক কমেছে, যা শেষ পর্যন্ত অব্যহত ছিল। এদিন সূচকের পাশাপাশি কমেছে লেনদেন ও বাজারমূলধন। এছাড়া কমেছে অধিকাংশ কোম্পানির শেয়ার লেনদেন। আজ ডিএসইতে টাকার অংকে লেনদেন কমেছে ২৪ কোটি ৯৭ লাখ ৮২ হাজার টাকা। ডিএসই সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।
বাজার পর্যালোচনায় দেখা যায়, আজ ডিএসই’র ব্রড ইনডেক্স আগের দিনের চেয়ে ৭৮.৬৬ পয়েন্ট কমে দাঁড়ায় ৪৪১৯.৮২ পয়েন্টে। আর ডিএসই শরিয়াহ্্ সূচক ২০.২৭ পয়েন্ট কমে ৯৯৪.৭৮ পয়েন্ট এবং ডিএসই৩০ সূচক ৩০.৩৩ পয়েন্ট কমে দাঁড়ায় ১৫০৮.২৮ পয়েন্টে। দিনভর লেনদেন হওয়া ৩৫৩টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের মধ্যে দর বেড়েছে ৩৫টির, কমেছে ২৭৮টির এবং অপরিবর্তিত ছিল ৪০টি কোম্পানির শেয়ার দর। এদিন ডিএসই’তে মোট ১০ কোটি ৮৩ লাখ ৫৬ হাজার ১২৪টি শেয়ার এক লাখ ১১ হাজার ৬১৮ বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ২৮১ কোটি ৫৬ লাখ ২১ হাজার ৯৪৯ টাকা ৫০ পয়সা। আজ বাজার মূলধন ছিল ৩ লাখ ৩৮ হাজার ২১ কোটি ৩৯ লাখ ৯২ হাজার ৪৯৮ টাকা ৩ পয়সা।
এর আগের কার্যদিবসে ডিএসই’র ব্রড ইনডেক্স ১৫.৯৫ পয়েন্ট কমে দাঁড়ায় ৪৪৯৮.৪৯ পয়েন্টে। আর ডিএসই শরিয়াহ্্ সূচক ১.৫৪ পয়েন্ট কমে ১০১৫.০৫ পয়েন্ট এবং ডিএসই৩০ সূচক ৯.৫০ পয়েন্ট কমে দাঁড়ায় ১৫৩৮.৬২ পয়েন্টে। দিনভর লেনদেন হওয়া ৩৫২টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের মধ্যে দর বেড়েছে ১০০টির, কমেছে ২০১টির এবং অপরিবর্তিত ছিল ৫১টি কোম্পানির শেয়ার দর। এদিন ডিএসই’তে মোট ১২ কোটি ১৬ লাখ ২৫ হাজার ৫৯০টি শেয়ার এক লাখ ২২ হাজার ৯২৬ বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ৩০৬ কোটি ৫৪ লাখ ৩ হাজার ৯৯৫ টাকা ৪০ পয়সা।
ক্যাটাগরিভিত্তিক লেনদেনের ক্ষেত্রে ডিএসই’তে আজ ‘এ’ ক্যাটাগরির ২৫৯টি কোম্পানির মধ্যে দর বেড়েছে ১৯টি, কমেছে ২১৫টি এবং অপরিবর্তিত ছিল ২৫টির দর। ‘বি’ ক্যাটাগরির ৩৪টি কোম্পানির মধ্যে দর বেড়েছে ৫টি, কমে ২৭টি এবং অপরিবর্তিত ছিল ২টির। ‘এন’ ক্যাটাগরির ১০টি কোম্পানির মধ্যে দর বেড়েছে টি এবং কমেছে ৯টির। ‘জেড’ ক্যাটাগরির ৫০টি কোম্পানির মধ্যে দর বেড়েছে ১০টি, কমেছে ২৭টি এবং অপরিবর্তিত ছিল ১৩টির। এছাড়া, ৩৭টি মিউচ্যুয়াল ফান্ডের দর বেড়েছে ৩টির, কমেছে ১৭টির এবং অপরিবর্তিত ছিল ১৭টির দর।
এর আগের কার্যদিবসে ক্যাটাগরিভিত্তিক লেনদেনের ক্ষেত্রে ডিএসই’তে ‘এ’ ক্যাটাগরির ২৫৮টি কোম্পানির মধ্যে দর বেড়েছে ৭০টি, কমেছে ১৫৫টি এবং অপরিবর্তিত ছিল ৩৩টির দর। ‘বি’ ক্যাটাগরির ৩৪টি কোম্পানির মধ্যে দর বেড়েছে ৮টি, কমে ২২টি এবং অপরিবর্তিত ছিল ৪টির। ‘এন’ ক্যাটাগরির ১০টি কোম্পানির মধ্যে দর বেড়েছে ৪টি, কমেছে ৫টি এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ১টির। ‘জেড’ ক্যাটাগরির ৫০টি কোম্পানির মধ্যে দর বেড়েছে ১৮টি, কমেছে ১৯টি এবং অপরিবর্তিত ছিল ১৩টির। এছাড়া, ৩৬টি মিউচ্যুয়াল ফান্ডের দর বেড়েছে ৭টির, কমেছে ১২টির এবং অপরিবর্তিত ছিল ১৭টির দর।
আজ ‘এ’ ক্যাটাগরির ২৫৯ কোম্পানির মোট ৬ কোটি ৮৫ লাখ ৪০ হাজার ৪৩৬টি শেয়ার ৭৩ হাজার ৩৭৫ বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ১৯২ কোটি ৪০ লাখ ৮০ হাজার টাকা। ‘বি’ ক্যাটাগরির ৩৪ কোম্পানির এক কোটি ৪১ লাখ ৫৮৮টি শেয়ার ১৫ হাজার ৫৩বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ৪০ কোটি ৬৭ লাখ ৯৬ হাজার টাকা। ‘এন’ ক্যাটাগরির ১০ কোম্পানির ১ কোটি ৮৮ লাখ ২ হাজার ৮৫৮টি শেয়ার ১৮ হাজার ৫৭২ বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য মূল্য ৩২ কোটি ৬৯ লাখ ৩৪ হাজার টাকা। ‘জেড’ ক্যাটাগরির ৫০ কোম্পানির ৬২ লাখ ৫৪ হাজার ১৭৮টি শেয়ার ৫ হাজার ৫৭৫ বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ৬ কোটি ৭৪ লাখ ৮৬ হাজার টাকা। এছাড়া ৩৭টি মিউচ্যুয়াল ফান্ডের ৯২ লাখ ১৮ হাজার ৮২৬টি ইউনিট ২ হাজার ৩৫২ বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ৬ কোটি ২১ লাখ ৭০ হাজার টাকা।
এর আগের কার্যদিবসে ‘এ’ ক্যাটাগরির ২৫৮ কোম্পানির মোট ৭ কোটি ৪ লাখ ৪৮ হাজার ৬২৯টি শেয়ার ৬৮ হাজার ৪৬৭ বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ১৮৬ কোটি ৯ লাখ ১৮ হাজার টাকা। ‘বি’ ক্যাটাগরির ৩৩ কোম্পানির এক কোটি ৬২ লাখ ৯২ হাজার ৮২টি শেয়ার ১৪ হাজার ৫৩৮বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ৪৩ কোটি ৬৬ লাখ ৬৩ হাজার টাকা। ‘এন’ ক্যাটাগরির ১০ কোম্পানির ২ কোটি ৬৪ লাখ ২৮ হাজার ৯১০টি শেয়ার ৩৫ হাজার ৪১৫ বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য মূল্য ৪৬ কোটি ৯৮ লাখ ১৯ হাজার টাকা। ‘জেড’ ক্যাটাগরির ৪৭ কোম্পানির ৩৯ লাখ ৩২ হাজার ৩৫৯টি শেয়ার ৪ হাজার ৪৬৫ বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ১০ কোটি ১৭ লাখ ২৮ হাজার টাকা। এছাড়া ৩৬টি মিউচ্যুয়াল ফান্ডের ৮৭ লাখ ৫৬ হাজার ৬৩৪টি ইউনিট ২ হাজার ৫৯১ বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ৭ কোটি ১ লাখ টাকা।
প্রধান খাতগুলোর মধ্যে আজ ব্যাংক খাতে এক কোটি ৩৩ লাখ ৮৫ হাজার ৯২০টি শেয়ার ৫ হাজার ১১৫বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ২২ কোটি ৮১ লাখ ৯০ হাজার টাকা। বিমা খাতে ১ কোটি ৪৩ লাখ ৭২ হাজার ২২৫টি শেয়ার ১৩ হাজার ১০১বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ৪০ কোটি ৪১ লাখ ৭০ হাজার টাকা। আর্থিক খাতে ৬৪ লাখ ৪৯ হাজার ২৭৪টি শেয়ার ৪ হাজার ৩৬বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ৯ কোটি ৩৩ লাখ ৫০ হাজার টাকা। প্রকৌশল খাতে ৭৯ লাখ ১৭ হাজার ৯৫১টি শেয়ার ১৪ হাজার ৬১১বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ৩১ কোটি ৩৪ লাখ টাকা। ওষুধ ও রসায়ন খাতে ৭৯ লাখ ৬৯ হাজার ৯০টি শেয়ার ১২ হাজার ৫৩৩বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ৪১ কোটি ৫১ লাখ ৭০ হাজার টাকা। বস্ত্র খাতে ২ কোটি ৯২ লাখ ৯৮ হাজার ১০টি শেয়ার ২৮ হাজার ২০৮বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ৪৩ কোটি ৬৩ লাখ ৬০ হাজার টাকা। বিদ্যুৎ ও জ্বালানি খাতে ৩১ লাখ ৬৩ হাজার ৯২টি শেয়ার ৫ হাজার ৫২৩বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ১৫ কোটি ৬৪ লাখ ১০ হাজার টাকা।
এর আগের কার্যদিবসে ব্যাংক খাতে ৮৫ লাখ ৮২ হাজার ৬৪৩টি শেয়ার ৩ হাজার ৮৯৯বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ১২ কোটি ৭৯ লাখ টাকা। বিমা খাতে ২ কোটি ২৫ লাখ ৪২ হাজার ৮২৩টি শেয়ার ১৮ হাজার ৪৩৩বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ৬৮ কোটি ৪০ লাখ টাকা। আর্থিক খাতে ৫৬ লাখ ৯০ হাজার ৪০৯টি শেয়ার ২ হাজার ৭৫১বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ৮ কোটি ৪৯ লাখ টাকা। প্রকৌশল খাতে ৮১ লাখ ৩৭ হাজার ৪৬৯টি শেয়ার ১৪ হাজার ৫৪বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ৩০ কোটি ৮১ লাখ ৯০ হাজার টাকা। ওষুধ ও রসায়ন খাতে ৫৮ লাখ ৬১ হাজার ৪৪টি শেয়ার ৯ হাজার ৭৮১বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ২৬ কোটি ২৪ লাখ ৯০ হাজার টাকা। বস্ত্র খাতে ৪ কোটি ১২ লাখ ২ হাজার ৮৪৭টি শেয়ার ৪৩ হাজার ৫৫৯বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ৬৩ কোটি ৬৩ লাখ ২০ হাজার টাকা। বিদ্যুৎ ও জ্বালানি খাতে ২৯ লাখ ৭১ হাজার ৯৪৪টি শেয়ার ৪ হাজার ৮০৬বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ১৪ কোটি ৪১ লাখ ৯০ হাজার টাকা।
অন্যদিকে, চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) আজ সিএসই’র সার্বিক সূচক ২৩২ পয়েন্ট কমে দাঁড়ায় ১৩ হাজার ৪৪১ পয়েন্টে। সিএসইএক্স সূচক ১৪৪ পয়েন্ট কমে দাঁড়ায় ৮ হাজার ১৫১ পয়েন্টে। আজ মোট ২৩০টি কোম্পানির শেয়ার লেনদেন হয়েছে। এর মধ্যে দর বেড়েছে ৩৫টির, কমেছে ১৭৩টির এবং অপরিবর্তিত ছিল ২২ কোম্পানির শেয়ার দর। আর দিন শেষে ৭৩ লাখ ৯৩ হাজার ২০২টি শেয়ার ও ইউনিট ১০ হাজার ৫৮৯ বার হাতবদল হয়েছে, মোট মূল্য ছিল ১৪ কোটি ৬৩ লাখ ২৬ হাজার ৯৮১ টাকা। আগের কার্যদিবসের তুলনায় ৫ কোটি ৭ লাখ ১ হাজার ১০৩ টাকা কম। বাজার মূলধন ছিল ২ লাখ ৬৬ হাজার ৪৭০ কোটি ৩২ লাখ ৭০ হাজার টাকা।
এর আগের কার্যদিবসে সিএসইতে সার্বিক সূচক ৫৮ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছিল ১৩ হাজার ৬৭৪ পয়েন্টে। সিএসইএক্স সূচক ৩৫ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছিল ৮ হাজার ২৯৫ পয়েন্টে। মোট ২১৯টি কোম্পানির শেয়ার লেনদেন হয়েছিল। এর মধ্যে দর বেড়েছিল ৫৭টির, কমেছিল ১২৯টির এবং অপরিবর্তিত ছিল ৩৩ কোম্পানির শেয়ার দর। আর দিন শেষে ১ কোটি ১ কোটি ১ লাখ ৫৯ হাজার ৫১৫টি শেয়ার ও ইউনিট ১৪ হাজার ৯৫৬ বার হাতবদল হয়েছিল, মোট মূল্য ছিল ১৯ কোটি ৭০ লাখ ২৮ হাজার ৮৪ টাকা। আগের কার্যদিবসের তুলনায় ৬ কোটি ৭৭ লাখ ৮৯ হাজার ৯২ টাকা বেশি। বাজার মূলধন ছিল ২ লাখ ৭২ হাজার ১৮৮ কোটি ২২ লাখ ৬০ হাজার টাকা।

দৈনিক শেয়ারবাজার প্রতিদিন/এসএ/খান

Share
নিউজটি ৩১৫ বার পড়া হয়েছে ।
Tagged