রাজস্ব লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে মাঠপর্যায়ের কর্মকর্তাদের কঠোর নির্দেশ

সময়: সোমবার, জুলাই ২৯, ২০১৯ ৫:৫৩:৫৭ পূর্বাহ্ণ


নিজস্ব প্রতিবেদক : সদ্যসমাপ্ত ২০১৮-১৯ অর্থবছরে ৫০ হাজার কোটি টাকার ঘাটতি মাথায় নিয়ে নতুন অর্থবছরের যাত্রা শুরু হয়েছে। ফলে চলতি ২০১৯-২০ অর্থবছরের রাজস্ব লক্ষ্যমাত্রা আদায়ে মাঠপর্যায়ের কর্মকর্তাদের কঠোর নির্দেশ দিয়েছে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর)। এজন্য এনবিআরের পক্ষ থেকে মাঠপর্যায়ের কর্মকর্তাদের আরো তৎপর হওয়ার আহ্বান জানানো হয়েছে।
গতকাল রোববার রাজস্ব ভবনের সম্মেলন কক্ষে এনবিআর চেয়ারম্যান মো. মোশাররফ হোসেন ভূঁইয়ার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত রাজস্ব সভায় সকল কর কমিশনার ও কাস্টমস কমিশনাররা উপস্থিত ছিলেন। এছাড়াও এনবিআরের সংশ্লিষ্ট সদস্য ও কর্মকর্তারাও উপস্থিত ছিলেন।
বৈঠক সূত্রে জানা যায়, এনবিআর চেয়ারম্যান বৈঠকে রাজস্ব লক্ষ্যমাত্রা আদায়ে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের আরো তৎপর হতে নির্দেশ দেন। পাশাপাশি রাজস্ব লক্ষ্যমাত্রা অর্জনের করতে গিয়ে কর কর্মকর্তাদের দ্বারা করদাতারা যেন কোনো ধরনের হয়রানির শিকার না হন, সেদিকে নজর রাখার পরামর্শ দেন। তিনি এ বিষয়ে ব্যবসায়ীদের পাশাপাশি সাধারণ মানুষের মাঝে সচেতনতা বাড়ানোর উপরও গুরুত্বারোপ করেন। একই সঙ্গে কর আহরণ ব্যবস্থায় শৃঙ্খলা আনার বিষয়ে তিনি গুরুত্বারোপ করেন।
এনবিআর সূত্র জানান, রাজস্ব আদায়ে কর অঞ্চল এবং কাস্টম এক্সাইস ও বন্ড কমিশনারেটগুলো মূল ভূমিকা পালন করে। সেজন্যই রাজস্ব সভায় সংশ্লিষ্ট সকল কমিশনাররা উপস্থিত ছিলেন। তবে বিগত বছরগুলোতে রাজস্ব লক্ষ্যমাত্রা পূরণ না হলেও রাজস্ব আদায়ে প্রবৃদ্ধি হয়েছে।
এদিকে চলতি ২০১৯-’২০ অর্থবছরে মূল্য সংযোজন কর (মূসক) থেকে সর্বাধিক পরিমাণ এক লাখ ২৩ হাজার ৬৭ কোটি টাকা আহরণের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে। ফলে মূসক আদায়ের দিকে লক্ষ্য রাখার জন্য সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের নির্দেশ দেয়া হয়েছে। বিশেষ করে সাম্প্রতিক সময়ে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান মূসক ফাঁকি দিচ্ছে বলে গোয়েন্দারা অনেক অভিযোগ পেয়েছে। এসব প্রতিষ্ঠানগুলোকে নজরদারির মধ্যে রাখার নির্দেশ দেয়া হয়েছে।
বিগত ২০১৮-’১৯ অর্থবছরে রাজস্ব আদায়ের পরিমাণ ছিল ২ লাখ ৩০ হাজার কোটি টাকা, যদিও রাজস্ব আহরণের প্রাক্কলন ছিল ২ লাখ ৮০ কোটি টাকা। গত অর্থবছরের রাজস্ব লক্ষ্যমাত্রা ১৬ হাজার কোটি টাকা কমানোর পরও তা অর্জন হয়নি। এতে চাপের মধ্যে রয়েছে এনবিআর।
বিগত অর্থবছরে (২০১৮-’১৯) এনবিআরের জন্য নির্ধারিত ২ লাখ ৯৬ হাজার ৫২১ কোটি টাকার মূল লক্ষ্যমাত্রা থেকে প্রায় ১৬ হাজার কোটি টাকা কমিয়ে নতুন লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছিল। নতুন লক্ষ্যমাত্রা অনুযায়ী এনবিআরকে ২ লাখ ৮০ হাজার ২০১ কোটি টাকার রাজস্ব আহরণের লক্ষ্যমাত্রা করা হয়েছিল।
এদিকে গত ১৩ জুন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল সংসদে ২০১৯-’২০ অর্থবছরের জন্য ৫ লাখ ২৩ হাজার ১৯০ কোটি টাকার বাজেট প্রস্তাব উপস্থাপন করেন। বাজেটে মোট রাজস্ব আয় ধরা হয়েছে ৩ লাখ ৭৭ হাজার ৮১০ কোটি টাকা। এর মধ্যে রাজস্ব আয় ধরা হয়েছে ৩ লাখ ২৫ হাজার ৬০০ কোটি টাকা। এছাড়া এনবিআরবহির্ভূত সূত্র থেকে কর রাজস্ব ধরা হয়েছে ১৪ হাজার ৫০০ কোটি টাকা। আর করবহির্ভূত খাত থেকে রাজস্ব আয় ধরা হয়েছে ৩৭ হাজার ৭১০ কোটি টাকা।

দৈনিক শেয়ারবাজার প্রতিদিন/এসএ/খান

Share
নিউজটি ৩৮৬ বার পড়া হয়েছে ।