সূচক কমলেও বেড়েছে লেনদেন

সপ্তাহশেষে সূচক ও লেনদেন বেড়েছে

সময়: বৃহস্পতিবার, ডিসেম্বর ২৬, ২০১৯ ৮:৪০:০৮ অপরাহ্ণ


মো. সাজিদ খান : ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) আজ সপ্তদাহের শেষ কার্যদিবসে সূচকের পাশাপাশি বেড়েছে লেনদেন। একই সঙ্গে বেড়েছে বাজারমূলধন। এছাড়া এদিন সূচকের পাশাপাশি বেড়েেেছ অধিকাংশ কোম্পানির শেয়ার লেনদেন। দিনশেষে আজ ডিএসই’তে লেনদেন বেড়েছে ৬৫ কোটি ৬০ লাখ ৯৯ হাজার ১৩৭ টাকা ১০ পয়সা। তবে বাজার মূলধন বেড়েছে এক হাজার ৯১৭ কোটি ৮৭ লাখ ৯ হাজার ৯৬৩ টাকা ৬ পয়সা। ডিএসই সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।
বাজার পর্যালোচনায় দেখা যায়, আজ ডিএসই’র ব্রড ইনডেক্স আগের দিনের চেয়ে ২৮.১৬ পয়েন্ট বেড়ে দাঁড়ায় ৪৪১৮.৮৩ পয়েন্টে। আর ডিএসই শরিয়াহ্্ সূচক ৯.৪৫ পয়েন্ট বেড়ে ৯৯৪.৯০ পয়েন্ট এবং ডিএসই৩০ সূচক ১২.৫৫ পয়েন্ট বেড়ে দাঁড়ায় ১৫০৮.৯৫ পয়েন্টে দাঁড়ায়। দিনভর লেনদেন হওয়া ৩৫২টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের মধ্যে দর বেড়েছে ২০৪টির, কমেছে ৯২টির এবং অপরিবর্তিত ছিল ৫৬টির দর। এদিন ডিএসই’তে মোট ৯ কোটি ৯৮ লাখ ৪৬ হাজার ৪৫টি শেয়ার ৯৩ হাজার ৪৫৪ বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ৩০৫ কোটি ৬ লাখ ৩১ হাজার ৯৭২ টাকা। আজ বাজার মূলধন ছিল ৩ লাখ ৩৮ হাজার ৪৯৩ কোটি ৪১ লাখ ১৪ হাজার ৮৫৯ টাকা ১২ পয়সা।
এর আগের কার্যদিবসে ডিএসই’র ব্রড ইনডেক্স ৩.৭৬ পয়েন্ট কমে দাঁড়ায় ৪৩৯০.৬৭ পয়েন্টে। আর ডিএসই শরিয়াহ্্ সূচক ৩.৭৮ পয়েন্ট বেড়ে ৯৮৫.৪৪ পয়েন্ট এবং ডিএসই৩০ সূচক ১.৮৫ পয়েন্ট বেড়ে দাঁড়ায় ১৪৯৬.৪০ পয়েন্টে দাঁড়ায়। দিনভর লেনদেন হওয়া ৩৫৩টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের মধ্যে দর বেড়েছে ১১২টির, কমেছে ১৭৯টির এবং অপরিবর্তিত ছিল ৬২টির দর। এদিন ডিএসই’তে মোট ১০ কোটি ১৩ লাখ ৯০ হাজার ৮১০টি শেয়ার ৯৪ হাজার ৮৩২ বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ২৩৯ কোটি ৪৫ লাখ ৩২ হাজার ৫৩৪ টাকা ৯০ পয়সা। ওইদিন বাজার মূলধন ছিল ৩ লাখ ৩৬ হাজার ৫৭৫ কোটি ৫৪ লাখ ৪ হাজার ৮৯৬ টাকা ৬ পয়সা।
ক্যাটাগরিভিত্তিক লেনদেনের ক্ষেত্রে ডিএসই’তে আজ ‘এ’ ক্যাটাগরির ২৫৫টি কোম্পানির মধ্যে দর বেড়েছে ১৪৭টি, কমেছে ৬৭টি এবং অপরিবর্তিত ছিল ৪১টির দর। ‘বি’ ক্যাটাগরির ৪০টি কোম্পানির মধ্যে দর বেড়েছে ২৬টি, কমেছে ৯টি এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৫টির। ‘এন’ ক্যাটাগরির ১০টি কোম্পানির মধ্যে দর বেড়েছে ৩টি, কমেছে ৬টি এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ১টির। ‘জেড’ ক্যাটাগরির ৪৭টি কোম্পানির মধ্যে দর বেড়েছে ২৮টি, কমেছে ১০টি এবং অপরিবর্তিত ছিল ৯টির। এছাড়া, ৩৬টি মিউচ্যুয়াল ফান্ডের দর বেড়েছে ১৫টির, কমেছে ৭টির এবং অপরিবর্তিত ছিল ১৪টির দর।
এর আগের কার্যদিবসে ক্যাটাগরিভিত্তিক লেনদেনের ক্ষেত্রে ডিএসই’তে ‘এ’ ক্যাটাগরির ২৫৩টি কোম্পানির মধ্যে দর বেড়েছে ৮২টি, কমেছে ১২৭টি এবং অপরিবর্তিত ছিল ৪৪টির দর। ‘বি’ ক্যাটাগরির ৪০টি কোম্পানির মধ্যে দর বেড়েছে ৯টি, কমেছে ২৩টি এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৮টির। ‘এন’ ক্যাটাগরির ১০টি কোম্পানির মধ্যে দর বেড়েছে ৫টি, কমেছে ৩টি এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ২টির। ‘জেড’ ক্যাটাগরির ৫০টি কোম্পানির মধ্যে দর বেড়েছে ১৬টি, কমেছে ২৬টি এবং অপরিবর্তিত ছিল ৮টির। এছাড়া, ৩৭টি মিউচ্যুয়াল ফান্ডের দর বেড়েছে ১০টির, কমেছে ৮টির এবং অপরিবর্তিত ছিল ১৯টির দর।
আজ ‘এ’ ক্যাটাগরির ২৫৫ কোম্পানির মোট ৬ কোটি ৫১ লাখ ২০ হাজার ১৩৮টি শেয়ার ৬৬ হাজার ৫২২ বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ২০৫ কোটি ১ লাখ ৩৪ হাজার টাকা। ‘বি’ ক্যাটাগরির ৪০ কোম্পানির এক কোটি ৬২ লাখ ১৭ হাজার ৫২২টি শেয়ার ১৫ হাজার ৬৭৮বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ৩৯ কোটি ৭১ লাখ ৯১ হাজার টাকা। ‘এন’ ক্যাটাগরির ১০ কোম্পানির ৯১ লাখ ৬৪ হাজার ৬০০টি শেয়ার ৭ হাজার ৩৫ বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ১৮ কোটি ৫২ লাখ ৪৬ হাজার টাকা। ‘জেড’ ক্যাটাগরির ৫০ কোম্পানির ৩০ লাখ ৯৯ হাজার ৪৭২টি শেয়ার ৪ হাজার ১৮০ বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ৫ কোটি ৭৬ লাখ ৭৩ হাজার টাকা। এছাড়া ৩৬টি মিউচ্যুয়াল ফান্ডের ৪২ লাখ ৪৬ হাজার ৭৫৯টি ইউনিট ১ হাজার ৫৭৩ বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ৩ কোটি ২ লাখ ৮০ হাজার টাকা।
এর আগের কার্যদিবসে ‘এ’ ক্যাটাগরির ২৫৩ কোম্পানির মোট ৫ কোটি ৫৯ লাখ ৬২ হাজার ৮২৭টি শেয়ার ৫৮ হাজার ৯৬২ বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ১৬৭ কোটি ৬২ লাখ ১২ হাজার টাকা। ‘বি’ ক্যাটাগরির ৩৮ কোম্পানির এক কোটি ২৪ লাখ ৮৪ হাজার ৯৩টি শেয়ার ১৩ হাজার ৪১৯বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ৩২ কোটি ৯০ লাখ ৪২ হাজার টাকা। ‘এন’ ক্যাটাগরির ১০ কোম্পানির ৯৬ লাখ ৭৩ হাজার ২৪টি শেয়ার ৭ হাজার ৩১১ বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ২০ কোটি ৭২ লাখ ৪৫ হাজার টাকা। ‘জেড’ ক্যাটাগরির ৫০ কোম্পানির ৫৬ লাখ ৯৯ হাজার ৬৫৯টি শেয়ার ৬ হাজার ১০৪ বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ৭ কোটি ৮৫ লাখ ১৭ হাজার টাকা। এছাড়া ৩৭টি মিউচ্যুয়াল ফান্ডের ৮৩ লাখ ২০ হাজার ১৬৩টি ইউনিট ২ হাজার ৯৫ বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ৫ কোটি ৪ লাখ ৮০ হাজার টাকা
প্রধান খাতগুলোর মধ্যে আজ ব্যাংক খাতে এক কোটি ৯৪ লাখ ৫৬ হাজার ৩৫৬টি শেয়ার ৪ হাজার ৮৭৭বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ৩৩ কোটি ২১ লাখ টাকা। বীমা খাতে ১ কোটি ১ লাখ ২ হাজার ৮৬৬টি শেয়ার ১১ হাজার ৯৬৮বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ৩৫ কোটি ৬০ লাখ ৪০ হাজার টাকা। আর্থিক খাতে ৫৭ লাখ ৫৯ হাজার ৭৭৩টি শেয়ার ৩ হাজার ৩৮৫বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ৯ কোটি ৪১ লাখ ২০ হাজার টাকা। প্রকৌশল খাতে ৭০ লাখ ৮৩ হাজার ১২৭টি শেয়ার ১৪ হাজার ৪২৫বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ২৫ কোটি ৬৯ লাখ ৯০ হাজার টাকা। ওষুধ ও রসায়ন খাতে ৫৩ লাখ ৫৯ হাজার ১৮৩টি শেয়ার ৯ হাজার ১৬৮বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ২৪ কোটি ৮৪ লাখ ৫০ হাজার টাকা। বস্ত্র খাতে ২ কোটি ১১ লাখ ৯৭ হাজার ১৮৬টি শেয়ার ১৫ হাজার ৮২৩বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ৩৫ কোটি ২৫ লাখ ২০ হাজার টাকা। বিদ্যুৎ ও জ্বালানি খাতে ৩২ লাখ ৫ হাজার ৩৪৬টি শেয়ার ৫ হাজার ৭৯৪বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ২০ কোটি ৪৭ লাখ ৭০ হাজার টাকা।
এর আগের কার্যদিবসে ব্যাংক খাতে এক কোটি ১৭ লাখ ৮৫ হাজার ৪০০টি শেয়ার ৪ হাজার ৬৩৯বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ১৬ কোটি ৭৬ লাখ টাকা। বীমা খাতে ১ কোটি ৫ লাখ ৯৪ হাজার ৩৭১টি শেয়ার ১১ হাজার ৯৬৮বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ৩৫ কোটি ৬০ লাখ ৪০ হাজার টাকা। আর্থিক খাতে ৪৭ লাখ ৯ হাজার ১৮৬টি শেয়ার ২ হাজার ৩৯৯বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ৮ কোটি ৪৭ লাখ ৪০ হাজার টাকা। প্রকৌশল খাতে ৮৩ লাখ ৪৩ হাজার ১৭০টি শেয়ার ১৩ হাজার ৩২৭বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ২৮ কোটি ২৯ লাখ টাকা। ওষুধ ও রসায়ন খাতে ৬২ লাখ ৩৯ হাজার ৭৬৫টি শেয়ার ১০ হাজার ৭১৫বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ৩২ কোটি ৩৯ লাখ ৭০ হাজার টাকা। বস্ত্র খাতে ১ কোটি ৭৯ লাখ ১১ হাজার ৭৭৩টি শেয়ার ১২ হাজার ৫১৭বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ২৬ কোটি ৯৯ লাখ টাকা। বিদ্যুৎ ও জ্বালানি খাতে ৩৫ লাখ ৯১ হাজার ৮৫৩টি শেয়ার ৬ হাজার ৪২৯বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ২০ কোটি ৪৩ লাখ ৫০ হাজার টাকা।
অন্যদিকে, চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) আজ সিএসই’র সার্বিক সূচক ৯১ পয়েন্ট বেড়ে দাঁড়ায় ১৩ হাজার ৪৬৪ পয়েন্টে। সিএসইএক্স সূচক ৫৭ পয়েন্ট বেড়ে দাঁড়ায় ৮ হাজার ১৬৩ পয়েন্টে। আজ মোট ২২৪টি কোম্পানির শেয়ার লেনদেন হয়েছে। এর মধ্যে দর বেড়েছে ১২৮টির, কমেছে ৬৩টির এবং অপরিবর্তিত ছিল ৩৩ কোম্পানির শেয়ার দর। আর দিন শেষে ৭৩ লাখ ২৪ হাজার ৭৮৯টি শেয়ার ও ইউনিট ৪ হাজার ৪১৭ বার হাতবদল হয়েছে, এগুলোর মূল্য ছিল ৩৯ কোটি ৭৭ লাখ ৩ হাজার ৬৯৭ টাকা। আগের কার্যদিবসের তুলনায় ৩২ কোটি ১৩ লাখ ৯৬ হাজার ৭৮৩ টাকা বেশি। বাজার মূলধন ছিল ২ লাখ ৬৮ হাজার ৬১৫ কোটি ৫৫ লাখ ৩০ হাজার টাকা। আগের দিনের তুলনায় বাজার মূলধন বেড়েছে ২ হাজার ৩৮ কোটি ৮২ লাখ ৩০ হাজার টাকা।
এর আগের কার্যদিবসে সিএসইতে সার্বিক সূচক ১১ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছিল ১৩ হাজার ৩৭২ পয়েন্টে। সিএসইএক্স সূচক ৭ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছিল ৮ হাজার ১০৫ পয়েন্টে। মোট ২৩০টি কোম্পানির শেয়ার লেনদেন হয়েছিল। এর মধ্যে দর বেড়েছিল ৬৭টির, কমেছিল ১১৭টির এবং অপরিবর্তিত ছিল ৪৬ কোম্পানির শেয়ার দর। মোট ৩৮ লাখ ২৩ হাজার ৩৪২টি শেয়ার ও ইউনিট ৪ হাজার ৮৭ বার হাতবদল হয়েছিল, মোট মূল্য ছিল ৭ কোটি ৬৩ লাখ ৬ হাজার ৯১৪ টাকা। এর আগের কার্যদিবসের তুলনায় ১ কোটি ৬৭ লাখ ২৩ হাজার ৮৬৩ টাকা কম। বাজার মূলধন ছিল ২ লাখ ৬৬ হাজার ৫৭৬ কোটি ৭৩ লাখ টাকা।

দৈনিক শেয়ারবাজার প্রতিদিন/এসএ/খান

Share
নিউজটি ২৯৩ বার পড়া হয়েছে ।
Tagged