কারেকশন সূচক লেনদেন dse-cse

সপ্তাহের ব্যবধানে সূচক কমেছে ৯১.৬০ পয়েন্ট

সময়: রবিবার, জুলাই ২১, ২০১৯ ৫:১৭:৪২ পূর্বাহ্ণ


নিজস্ব প্রতিনিধি : সাপ্তাহিক ব্যবধানে দেশের প্রধান পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) সূচক কমেছে ৯১.৬০ পয়েন্ট। সূচকের পাশাপাশি কমেছে বেশিরভাগ কোম্পানির শেয়ার দর। আর টাকার অঙ্কেও গত সপ্তাহে লেনদেনের পরিমাণ কিছুটা কমেছে। আলোচিত সপ্তাহটিতে ডিএসইতে লেনদেন হয়েছে ১ হাজার ৬৩৬ কোটি ৭৭ লাখ ২৮ হাজার ৭৯৬ টাকা। সপ্তাহজুড়ে লেনদেন হওয়া ৫ কার্যদিবসের মধ্যে তিন দিনই কমেছে সূচক। বাকি দুই কার্যদিবস বাড়লেও এর মাত্রা ছিল সামান্য।
সাপ্তাহিক বাজার পর্যালোচনায় দেখা যায়, সপ্তাহ শেষে ডিএসই ব্রড ইনডেক্স বা ডিএসইএক্স সূচক কমেছে ১.৭৫ শতাংশ বা ৯১.৬০ পয়েন্ট। সপ্তাহের ব্যবধানে ডিএসই-৩০ কমেছে ১.৫১ শতাংশ বা ২৮.১৩ পয়েন্ট। অন্যদিকে শরিয়াহ বা ডিএসইএস সূচক কমেছে ১.৫৫ শতাংশ বা ১৮.৪৬ পয়েন্ট। ।
এদিকে, গত সপ্তাহে ডিএসইর বাজার মূলধনের পরিমাণও কমেছে। সপ্তাহ শেষে ডিএসইর বাজার মূলধনের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ৩ লাখ ৮২ হাজার ২৮৭ কোটি ৬ লাখ ২৯ হাজার ৪৪৯ টাকা। আগের সপ্তাহে যার পরিমাণ ছিল ৩ লাখ ৮৬ হাজার ৬১৪ কোটি ৪৯ লাখ ৩৭ হাজার ৯৮০ টাকা। সে হিসেবে সপ্তাহশেষে ডিএসইর বাজার মূলধন কমেছে ৪ হাজার ৩২৭ কোটি ৪৩ লাখ ৮ হাজার ৫৩১ টাকা। সপ্তাহজুড়ে ডিএসইতে তালিকাভুক্ত মোট ৩৫৬টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের শেয়ার লেনদেন হয়েছে। এর মধ্যে দর বেড়েছে ৬৬টির কোম্পানির। আর দর কমেছে ২৭৩টির, অপরিবর্তিত রয়েছে ১৫টির এবং লেনদেন হয়নি ২টির। এগুলোর ওপর ভর করে গত সপ্তাহে লেনদেন মোট ১ হাজার ৬৩৬ কোটি ৭৭ লাখ ২৮ হাজার ৭৯৬ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়। তবে এর আগের সপ্তাহে লেনদেন হয় ২ হাজার ১১২ কোটি ৮৭ লাখ ৫৪ হাজার ৩৮ টাকার। সেই হিসাবে সমাপ্ত সপ্তাহে লেনদেন কমেছে ২২.৫৩ শতাংশ।
আর সমাপ্ত সপ্তাহে ‘এ’ ক্যাটাগরির কোম্পানির শেয়ার লেনদেন হয়েছে ৮০.১১ শতাংশ। ‘বি’ ক্যাটাগরির কোম্পানির লেনদেন হয়েছে ১২.৪৩ শতাংশ। ‘এন’ ক্যাটাগরির কোম্পানির লেনদেন হয়েছে ৬.৫৫ শতাংশ। ‘জেড’ ক্যাটাগরির লেনদেন হয়েছে ১.৯১ শতাংশ।
সপ্তাহ শেষে চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) সার্বিক সূচক সিএসসিএক্স ১৩৯ পয়েন্ট বা ১.৪৪ শতাংশ কমে সপ্তাহ শেষে দাঁড়িয়েছে ৯ হাজার ৫৫৮ পয়েন্টে। আর সপ্তাহজুড়ে সিএসইতে হাতবদল হওয়ার ৩১৪টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের শেয়ার লেনদেন হয়েছে। এর মধ্যে দর বেড়েছে ৬৯টি কোম্পানির। আর দর কমেছে ২৩৪টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ১১টির। এগুলোর ওপর ভর করে বিদায়ী সপ্তাহে ৮৯ কোটি ৪৭ লাখ ১৫ হাজার ৯৫২ টাকার শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে।

দৈনিক শেয়ারবাজার প্রতিদিন/এসএ/খান

Share
নিউজটি ৩৩৬ বার পড়া হয়েছে ।
Tagged