সূচক কমলেও বেড়েছে লেনদেন

সপ্তাহের শুরুতেই সূচক বেড়েছে

সময়: রবিবার, ডিসেম্বর ২৯, ২০১৯ ৭:৪৩:১১ অপরাহ্ণ


মো. সাজিদ খান : ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) আজ সপ্তাহের প্রথম কার্যদিবসে সূচক বেড়েছে। তবে লেনদেনের পরিমাণ কমেছে। এদিন অধিকাংশ কোম্পানির শেয়ার দর এবং বাজার মূলধন বেড়েছে। আজ সূচকের উত্থানে লেনদেন শুরু হয়েছিল। অন্যদিনের তুলনায় আজ অনেকটা স্বাভাবিক ওঠানামায় লেনদেন হয়। দিনশেষে আজ ডিএসই’তে লেনদেন কমেছে ৪ কোটি ২৯ লাখ ১৫ হাজার ১২২ টাকা ৮ পয়সা। তবে বাজার মূলধন বেড়েছে ৩৯৬ কোটি ৮১ লাখ ৩৭ হাজার ৭ টাকা ৯৬ পয়সা। ডিএসই সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।
বাজার পর্যালোচনায় দেখা যায়, আজ ডিএসই’র ব্রড ইনডেক্স আগের দিনের চেয়ে ১৫.১০ পয়েন্ট বেড়ে দাঁড়ায় ৪৪৩৩.৯৪ পয়েন্টে। আর ডিএসই শরিয়াহ্্ সূচক ২.১৮ পয়েন্ট বেড়ে ৯৯৭.০৮ পয়েন্ট এবং ডিএসই৩০ সূচক ৩.৩৭ পয়েন্ট বেড়ে দাঁড়ায় ১৫১২.৩৩ পয়েন্টে দাঁড়ায়। দিনভর লেনদেন হওয়া ৩৫৩টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের মধ্যে দর বেড়েছে ১৬৩টির, কমেছে ১২৫টির এবং অপরিবর্তিত ছিল ৬৫টির দর। এদিন ডিএসই’তে মোট ১১ কোটি ২৬ লাখ ৭১ হাজার ২৩৩টি শেয়ার ৯৪ হাজার ৩৮৭ বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ৩০০ কোটি ৭৭ লাখ ১৬ হাজার ৮৪৯ টাকা ২০ পয়সা। আজ বাজার মূলধন ছিল ৩ লাখ ৩৮ হাজার ৮৯০ কোটি ২২ লাখ ৫১ হাজার ৮৬৭ টাকা ৮ পয়সা।
এর আগের কার্যদিবসে ডিএসই’র ব্রড ইনডেক্স ২৮.১৬ পয়েন্ট বেড়ে দাঁড়ায় ৪৪১৮.৮৩ পয়েন্টে। আর ডিএসই শরিয়াহ্্ সূচক ৯.৪৫ পয়েন্ট বেড়ে ৯৯৪.৯০ পয়েন্ট এবং ডিএসই৩০ সূচক ১২.৫৫ পয়েন্ট বেড়ে দাঁড়ায় ১৫০৮.৯৫ পয়েন্টে দাঁড়ায়। দিনভর লেনদেন হওয়া ৩৫২টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের মধ্যে দর বেড়েছে ২০৪টির, কমেছে ৯২টির এবং অপরিবর্তিত ছিল ৫৬টির দর। এদিন ডিএসই’তে মোট ৯ কোটি ৯৮ লাখ ৪৬ হাজার ৪৫টি শেয়ার ৯৩ হাজার ৪৫৪ বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ৩০৫ কোটি ৬ লাখ ৩১ হাজার ৯৭২ টাকা। ওইদিন বাজার মূলধন ছিল ৩ লাখ ৩৮ হাজার ৪৯৩ কোটি ৪১ লাখ ১৪ হাজার ৮৫৯ টাকা ১২ পয়সা।
ক্যাটাগরিভিত্তিক লেনদেনের ক্ষেত্রে ডিএসই’তে আজ ‘এ’ ক্যাটাগরির ২৫৩টি কোম্পানির মধ্যে দর বেড়েছে ১২২টি, কমেছে ৯১টি এবং অপরিবর্তিত ছিল ৪০টির দর। ‘বি’ ক্যাটাগরির ৪১টি কোম্পানির মধ্যে দর বেড়েছে ২২টি, কমেছে ১১টি এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৮টির। ‘এন’ ক্যাটাগরির ১০টি কোম্পানির মধ্যে দর বেড়েছে ২টি এবং কমেছে ৮টি। ‘জেড’ ক্যাটাগরির ৪৯টি কোম্পানির মধ্যে দর বেড়েছে ১৭টি, কমেছে ১৫টি এবং অপরিবর্তিত ছিল ১৭টির। এছাড়া, ৩৬টি মিউচ্যুয়াল ফান্ডের দর বেড়েছে ৭টির, কমেছে ১১টির এবং অপরিবর্তিত ছিল ১৮টির দর।
এর আগের কার্যদিবসে ক্যাটাগরিভিত্তিক লেনদেনের ক্ষেত্রে ডিএসই’তে ‘এ’ ক্যাটাগরির ২৫৫টি কোম্পানির মধ্যে দর বেড়েছে ১৪৭টি, কমেছে ৬৭টি এবং অপরিবর্তিত ছিল ৪১টির দর। ‘বি’ ক্যাটাগরির ৪০টি কোম্পানির মধ্যে দর বেড়েছে ২৬টি, কমেছে ৯টি এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৫টির। ‘এন’ ক্যাটাগরির ১০টি কোম্পানির মধ্যে দর বেড়েছে ৩টি, কমেছে ৬টি এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ১টির। ‘জেড’ ক্যাটাগরির ৪৭টি কোম্পানির মধ্যে দর বেড়েছে ২৮টি, কমেছে ১০টি এবং অপরিবর্তিত ছিল ৯টির। এছাড়া, ৩৬টি মিউচ্যুয়াল ফান্ডের দর বেড়েছে ১৫টির, কমেছে ৭টির এবং অপরিবর্তিত ছিল ১৪টির দর।
আজ ‘এ’ ক্যাটাগরির ২৫৩ কোম্পানির মোট ৭ কোটি ২৪ লাখ ৬৬ হাজার ৬০০টি শেয়ার ৬৪ হাজার ৯০২ বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ১৯৮ কোটি ৭৯ লাখ ৮৪ হাজার টাকা। ‘বি’ ক্যাটাগরির ৪১ কোম্পানির এক কোটি ৮৮ লাখ ৮৩ হাজার ৫৭৭টি শেয়ার ১৭ হাজার ৯৮বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ৪৫ কোটি ৩২ লাখ ৫২ হাজার টাকা। ‘এন’ ক্যাটাগরির ১০ কোম্পানির এক কোটি ৪ লাখ ৫৮ হাজার ৩৬৭টি শেয়ার ৭ হাজার ৮৮২ বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ১৮ কোটি ৪২ লাখ ৩৭ হাজার টাকা। ‘জেড’ ক্যাটাগরির ৪৯ কোম্পানির ৪০ লাখ ৪৬ হাজার ৪৬৫টি শেয়ার ৪ হাজার ৪৬৪ বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ৫ কোটি ৫০ লাখ ৬ হাজার টাকা। এছাড়া ৩৬টি মিউচ্যুয়াল ফান্ডের ৫৮ লাখ ৫২ হাজার ৫৪০টি ইউনিট ১ হাজার ৯৭৯ বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ৪ কোটি ২৮ লাখ ৬০ হাজার টাকা।
এর আগের কার্যদিবসে ‘এ’ ক্যাটাগরির ২৫৫ কোম্পানির মোট ৬ কোটি ৫১ লাখ ২০ হাজার ১৩৮টি শেয়ার ৬৬ হাজার ৫২২ বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ২০৫ কোটি ১ লাখ ৩৪ হাজার টাকা। ‘বি’ ক্যাটাগরির ৪০ কোম্পানির এক কোটি ৬২ লাখ ১৭ হাজার ৫২২টি শেয়ার ১৫ হাজার ৬৭৮বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ৩৯ কোটি ৭১ লাখ ৯১ হাজার টাকা। ‘এন’ ক্যাটাগরির ১০ কোম্পানির ৯১ লাখ ৬৪ হাজার ৬০০টি শেয়ার ৭ হাজার ৩৫ বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ১৮ কোটি ৫২ লাখ ৪৬ হাজার টাকা। ‘জেড’ ক্যাটাগরির ৫০ কোম্পানির ৩০ লাখ ৯৯ হাজার ৪৭২টি শেয়ার ৪ হাজার ১৮০ বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ৫ কোটি ৭৬ লাখ ৭৩ হাজার টাকা। এছাড়া ৩৬টি মিউচ্যুয়াল ফান্ডের ৪২ লাখ ৪৬ হাজার ৭৫৯টি ইউনিট ১ হাজার ৫৭৩ বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ৩ কোটি ২ লাখ ৮০ হাজার টাকা।
প্রধান খাতগুলোর মধ্যে আজ ব্যাংক খাতে এক কোটি ৮২ লাখ ৬১ হাজার ৪৫০টি শেয়ার ৪ হাজার ৯০২বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ৩০ কোটি ৪২ লাখ টাকা। বীমা খাতে ৮৯ লাখ ২৮ হাজার ২১৮টি শেয়ার ১০ হাজার ৫০২বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ৩৭ কোটি ৮৯ লাখ ২০ হাজার টাকা। আর্থিক খাতে ৬১ লাখ ৩৯ হাজার ১৮১টি শেয়ার ৩ হাজার ১১৬বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ৯ কোটি ৪১ লাখ ২০ হাজার টাকা। প্রকৌশল খাতে এক কোটি ৩৩ লাখ ১১ হাজার ১৮৯টি শেয়ার ১৬ হাজার ২৭বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ৩৬ কোটি ১৭ লাখ ৫০ হাজার টাকা। ওষুধ ও রসায়ন খাতে ৪৮ লাখ ৩৮ হাজার ৮৫৬টি শেয়ার ৮ হাজার ৩২৮বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ১৯ কোটি ২৮ লাখ ৪০ হাজার টাকা। বস্ত্র খাতে ২ কোটি ৭১ লাখ ৭৮ হাজার ৩৪৩টি শেয়ার ১৭ হাজার ৯৭৩বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ৪০ কোটি ৪২ লাখ ৭০ হাজার টাকা। বিদ্যুৎ ও জ্বালানি খাতে ২৯ লাখ ৮০ হাজার ১৪৪টি শেয়ার ৫ হাজার ৬২৮বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ১৫ কোটি ৭৯ লাখ ৮০ হাজার টাকা।
এর আগের কার্যদিবসে ব্যাংক খাতে এক কোটি ৯৪ লাখ ৫৬ হাজার ৩৫৬টি শেয়ার ৪ হাজার ৮৭৭বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ৩৩ কোটি ২১ লাখ টাকা। বীমা খাতে ১ কোটি ১ লাখ ২ হাজার ৮৬৬টি শেয়ার ১১ হাজার ৯৬৮বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ৩৫ কোটি ৬০ লাখ ৪০ হাজার টাকা। আর্থিক খাতে ৫৭ লাখ ৫৯ হাজার ৭৭৩টি শেয়ার ৩ হাজার ৩৮৫বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ৯ কোটি ৪১ লাখ ২০ হাজার টাকা। প্রকৌশল খাতে ৭০ লাখ ৮৩ হাজার ১২৭টি শেয়ার ১৪ হাজার ৪২৫বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ২৫ কোটি ৬৯ লাখ ৯০ হাজার টাকা। ওষুধ ও রসায়ন খাতে ৫৩ লাখ ৫৯ হাজার ১৮৩টি শেয়ার ৯ হাজার ১৬৮বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ২৪ কোটি ৮৪ লাখ ৫০ হাজার টাকা। বস্ত্র খাতে ২ কোটি ১১ লাখ ৯৭ হাজার ১৮৬টি শেয়ার ১৫ হাজার ৮২৩বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ৩৫ কোটি ২৫ লাখ ২০ হাজার টাকা। বিদ্যুৎ ও জ্বালানি খাতে ৩২ লাখ ৫ হাজার ৩৪৬টি শেয়ার ৫ হাজার ৭৯৪বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ২০ কোটি ৪৭ লাখ ৭০ হাজার টাকা।
অন্যদিকে, চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) আজ সিএসই’র সার্বিক সূচক ২২ পয়েন্ট বেড়ে দাঁড়ায় ১৩ হাজার ৪৮৬ পয়েন্টে। সিএসইএক্স সূচক ১২ পয়েন্ট বেড়ে দাঁড়ায় ৮ হাজার ১৭৬ পয়েন্টে। আজ মোট ২৩২টি কোম্পানির শেয়ার লেনদেন হয়েছে। এর মধ্যে দর বেড়েছে ১০৮টির, কমেছে ৮৫টির এবং অপরিবর্তিত ছিল ৩৯ কোম্পানির শেয়ার দর। আর দিন শেষে ৬৮ লাখ ৪৯ হাজার ২৬৮টি শেয়ার ও ইউনিট ৬ হাজার ২৪৮ বার হাতবদল হয়েছে, এগুলোর মূল্য ছিল ২০ কোটি ১০ লাখ ৭১ হাজার ৪৬২ টাকা। আগের কার্যদিবসের তুলনায় ১৯ কোটি ৬৬ লাখ ৩২ হাজার ২৩৫ টাকা কম। বাজার মূলধন ছিল ২ লাখ ৬৮ হাজার ৭৯৮ কোটি ৯৮ লাখ ২০ হাজার টাকা। আগের দিনের তুলনায় বাজার মূলধন বেড়েছে ১৮৩ কোটি ৪২ লাখ ৯০ হাজার টাকা।
এর আগের কার্যদিবসে সিএসইতে সার্বিক সূচক ৯১ পয়েন্ট বেড়ে দাঁড়িয়েছিল ১৩ হাজার ৪৬৪ পয়েন্টে। সিএসইএক্স সূচক ৫৭ পয়েন্ট বেড়ে দাঁড়িয়েছিল ৮ হাজার ১৬৩ পয়েন্টে। মোট ২২৪টি কোম্পানির শেয়ার লেনদেন হয়েছিল। এর মধ্যে দর বেড়েছিল ১২৮টির, কমেছিল ৬৩টির এবং অপরিবর্তিত ছিল ৩৩ কোম্পানির শেয়ার দর। মোট ৭৩ লাখ ২৪ হাজার ৭৮৯টি শেয়ার ও ইউনিট ৪ হাজার ৪১৭ বার হাতবদল হয়েছিল, মোট মূল্য ছিল ৩৯ কোটি ৭৭ লাখ ৩ হাজার ৬৯৭ টাকা। এর আগের কার্যদিবসের তুলনায় ৩২ কোটি ১৩ লাখ ৯৬ হাজার ৭৮৩ টাকা বেশি। বাজার মূলধন ছিল ২ লাখ ৬৮ হাজার ৬১৫ কোটি ৫৫ লাখ ৩০ হাজার টাকা।

দৈনিক শেয়ারবাজার প্রতিদিন/এসএ/খান

Share
নিউজটি ৩২৬ বার পড়া হয়েছে ।
Tagged