সূচক কমলেও বেড়েছে লেনদেন

সূচকের পতন দিয়ে সপ্তাহ শুরু

সময়: রবিবার, জানুয়ারি ৫, ২০২০ ৫:২৩:৩৩ অপরাহ্ণ


মো. সাজিদ খান : ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) সুচকের পতন দিয়ে সপ্তাহের প্রথম দিনের লেনদেন শেষ হয়েছে। এদিন সূচকের পাশাপাশি কমেছে লেনদেন এবং বাজার মূলধন। এছাড়া অধিকাংশ কোম্পানির শেয়ার দর কমেছে। গতকার ডিএসইতে অধিকাংশ কোম্পানির শেয়ার দর বেড়েছে। দিনশেষে আজ ডিএসই’তে লেনদেন কমেছে ৯৪ কোটি ৩৫ লাখ ৮০ হাজার ৬৫২ টাকা ৩০ পয়সা। আর বাজার মূলধন কমেছে এক হাজার ১৮২ কোটি ২৪ লাখ ৫১ হাজার ৩০১ টাকা ৮৯ পয়সা। অন্যদিকে, চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) লেনদেন কমেছে ৩ কোটি ৭০ লাখ ২৭ হাজার ৫২৩ টাকা ৮০ পয়সা। এদিন সিএসইতে বাজারমূলধন কমেছে ২ হাজার ৮০২ কোটি ১৮ লাখ ২০ হাজার ১৪১ টাকা ২০ পয়সা। দেশের স্টক এক্সচেঞ্জ সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।
বাজার পর্যালোচনায় দেখা যায়, আজ ডিএসই’র ব্রড ইনডেক্স আগের দিনের চেয়ে ৫৯.১৫ পয়েন্ট কমে দাঁড়ায় ৪৪০০.১৪ পয়েন্টে। আর ডিএসই শরিয়াহ্্ সূচক ১৩.৯৭ পয়েন্ট কমে ৯৯৫.৪৩ পয়েন্ট এবং ডিএসই৩০ সূচক ২৫.৮১ পয়েন্ট কমে ১৪৮০.৩১ পয়েন্টে দাঁড়ায়। দিনভর লেনদেন হওয়া ৩৫৪টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের মধ্যে দর বেড়েছে ৫২টির, কমেছে ২৬৯টির এবং অপরিবর্তিত ছিল ৩৩টি শেয়ারের দর। এদিন ডিএসই’তে মোট ১০ কোটি ৭৮ লাখ ৩ হাজার ১৯০টি শেয়ার এক লাখ ৩ হাজার ১১৯ বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ২৯২ কোটি ৪৬ লাখ ৮২ হাজার ৭৪৮ টাকা ৫০ পয়সা। আজ বাজার মূলধন ছিল ৩ লাখ ৩৭ হাজার ৬২৮ কোটি ৭৯ লাখ ৮৩ হাজার ৬৬১ টাকা ৮৮ পয়সা।
এর আগের কার্যদিবসে ডিএসই’র ব্রড ইনডেক্স ৬.০০ পয়েন্ট বেড়ে দাঁড়ায় ৪৪৫৯.২৯ পয়েন্টে। আর ডিএসই শরিয়াহ্্ সূচক ৫.৭৫ পয়েন্ট বেড়ে ১০০৯.৪১ পয়েন্ট এবং ডিএসই৩০ সূচক ৪.৩৩ পয়েন্ট বেড়ে ১৫০৬.১২ পয়েন্টে দাঁড়ায়। দিনভর লেনদেন হওয়া ৩৫৩টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের মধ্যে দর বেড়েছে ১৬৭টির, কমেছে ১৩৭টির এবং অপরিবর্তিত ছিল ৪৯টি শেয়ারের দর। এদিন ডিএসই’তে মোট ১৪ কোটি ৭৩ লাখ ৮৬ হাজার ৬৭৫টি শেয়ার এক লাখ ২২ হাজার ৪৭০ বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ৩৮৬ কোটি ৮২ লাখ ৬৩ হাজার ৪০০ টাকা ৮০ পয়সা। ওইদিন বাজার মূলধন ছিল ৩ লাখ ৪০ হাজার ৮১১ কোটি ৪ লাখ ৩৪ হাজার ৯৬৩ টাকা ৭৭ পয়সা।
ক্যাটাগরিভিত্তিক লেনদেনের ক্ষেত্রে ডিএসই’তে আজ ‘এ’ ক্যাটাগরির ২৫০টি কোম্পানির মধ্যে দর বেড়েছে ৩০টি, কমেছে ১৯৬টি এবং অপরিবর্তিত ছিল ২৪টির শেয়ার দর। ‘বি’ ক্যাটাগরির ৪৩টি কোম্পানির মধ্যে দর বেড়েছে ৪টি, কমেছে ৩৭টি এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ২টির শেয়ার দর। ‘এন’ ক্যাটাগরির ৯টি কোম্পানির শেয়ারের মধ্যে দর বেড়েছে ২টি, কমেছে ২টি এবং অপরিবর্তিত ১টির। ‘জেড’ ক্যাটাগরির ৫২টি কোম্পানির মধ্যে দর বেড়েছে ১৬টি, কমেছে ৩০টি এবং অপরিবর্তিত ছিল ৬টির দর। এছাড়া, ৩৭টি মিউচ্যুয়াল ফান্ডের দর বেড়েছে ৩টির, কমেছে ১৭টির এবং অপরিবর্তিত ছিল ১৭টির দর।
এর আগের কার্যদিবসে ক্যাটাগরিভিত্তিক লেনদেনের ক্ষেত্রে ডিএসই’তে ‘এ’ ক্যাটাগরির ২৪৯টি কোম্পানির মধ্যে দর বেড়েছে ১১৫টি, কমেছে ৯৯টি এবং অপরিবর্তিত ছিল ৩৫টির শেয়ার দর। ‘বি’ ক্যাটাগরির ৪৩টি কোম্পানির মধ্যে দর বেড়েছে ১৮টি, কমেছে ২০টি এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৫টির শেয়ার দর। ‘এন’ ক্যাটাগরির ৯টি কোম্পানির শেয়ারের মধ্যে দর বেড়েছে ৭টি এবং কমেছে ২টির। ‘জেড’ ক্যাটাগরির ৫২টি কোম্পানির মধ্যে দর বেড়েছে ২৭টি, কমেছে ১৬টি এবং অপরিবর্তিত ছিল ৯টির দর। এছাড়া, ৩৬টি মিউচ্যুয়াল ফান্ডের দর বেড়েছে ৮টির, কমেছে ৮টির এবং অপরিবর্তিত ছিল ২০টির দর।
আজ ‘এ’ ক্যাটাগরির ২৫০ কোম্পানির মোট ৭ কোটি ৬৩ লাখ ৭৫ হাজার ৪৪২টি শেয়ার ৭৪ হাজার ৭১২ বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ২২২ কোটি ৬২ লাখ ১৩ হাজার টাকা। ‘বি’ ক্যাটাগরির ৪৩ কোম্পানির এক কোটি ৬৮ লাখ ১৭ হাজার ৫৭২টি শেয়ার ১৬ হাজার ৩৬৩বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ৩৮ কোটি ৮২ লাখ ৯৮ হাজার টাকা। ‘এন’ ক্যাটাগরির ৯ কোম্পানির ৮০ লাখ ৩৮ হাজার ৮৮৪টি শেয়ার ৬ হাজার ৩৬৫ বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ১৮ কোটি ২৬ লাখ ৭৬ হাজার টাকা। ‘জেড’ ক্যাটাগরির ৫২ কোম্পানির ৪৮ লাখ ৩৮ হাজার ৭৫৪টি শেয়ার ৫ হাজার ৬৬৫ বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ৮ কোটি ২০ লাখ ৩৮ হাজার টাকা। এছাড়া ৩৭টি মিউচ্যুয়াল ফান্ডের ৫৬ লাখ ৫৩ হাজার ৬৬১টি ইউনিট এক হাজার ৭৮৪ বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ৪ কোটি ৯ লাখ ৫০ হাজার টাকা।
এর আগের কার্যদিবসে ‘এ’ ক্যাটাগরির ২৪৯ কোম্পানির মোট ৯ কোটি ৮০ লাখ ২ হাজার ২৭২টি শেয়ার ৮৮ হাজার ৩ বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ২৯২ কোটি ৫১ লাখ ৭ হাজার টাকা। ‘বি’ ক্যাটাগরির ৪৩ কোম্পানির ২ কোটি ৪৩ লাখ ২৪ হাজার ৯৬৬টি শেয়ার ২০ হাজার ৫২বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ৫২ কোটি ৮৭ লাখ ৬৮ হাজার টাকা। ‘এন’ ক্যাটাগরির ৯ কোম্পানির এক কোটি ৪ লাখ ৭ হাজার ৭২৫টি শেয়ার ৭ হাজার ২৯৫ বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ১৯ কোটি ৭৬ লাখ ২৪ হাজার টাকা। ‘জেড’ ক্যাটাগরির ৫২ কোম্পানির ৯৪ লাখ ৩৩ হাজার ৭২১টি শেয়ার ৭ হাজার ৮৭ বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ১১ কোটি ১৩ লাখ ২৭ হাজার টাকা। এছাড়া ৩৬টি মিউচ্যুয়াল ফান্ডের ৫২ লাখ ৭৮ হাজার ৩১টি ইউনিট ২ হাজার ১০৮ বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ৩ কোটি ৭৭ লাখ ১০ হাজার টাকা।
প্রধান খাতগুলোর মধ্যে আজ ব্যাংক খাতে ২ কোটি ৩৫ লাখ ৩৯ হাজার ৩৭১টি শেয়ার ৬ হাজার ৭১৫বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ৪২ কোটি ৯৮ লাখ ৪০ হাজার টাকা। বীমা খাতে ৯৮ লাখ ৮১ হাজার ৫০৯টি শেয়ার ১১ হাজার ২৬১বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ৩২ কোটি ৩৫ লাখ ৭০ হাজার টাকা। আর্থিক খাতে ৪৭ লাখ ১৮ হাজার ৩০৬টি শেয়ার ৩ হাজার ৪১বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ৬ কোটি ৮২ লাখ ৭০ হাজার টাকা। প্রকৌশল খাতে ১ কোটি ৬০ লাখ ৫৭ হাজার ৪৪৮টি শেয়ার ১৯ হাজার ৯৮৬বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ৫২ কোটি ১৯ লাখ টাকা। ওষুধ ও রসায়ন খাতে ৬৫ লাখ ৭৫ হাজার ৮৯৪টি শেয়ার ১১ হাজার ১৭বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ২৬ কোটি ৯৩ লাখ ২০ হাজার টাকা। বস্ত্র খাতে ১ কোটি ৭৪ লাখ ৬২ হাজার ৯৩৬টি শেয়ার ১২ হাজার ৫২১বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ২৭ কোটি ৪১ লাখ ৪০ হাজার টাকা। বিদ্যুৎ ও জ্বালানি খাতে ৫৪লাখ ৯২ হাজার ৯৪৫টি শেয়ার ৭ হাজার ৮২৮বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ২৭ কোটি ২৮ লাখ ৬০ হাজার টাকা।
এর আগের কার্যদিবসে ব্যাংক খাতে ৩ কোটি ১২ লাখ ২৭ হাজার ৪৬২টি শেয়ার ৯ হাজার ৫৭৯বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ৫৮ কোটি ৬৬ লাখ ৪০ হাজার টাকা। বীমা খাতে এক কোটি ৪ লাখ ৭১ হাজার ১২৮টি শেয়ার ১২ হাজার ৪৬২বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ৩৪ কোটি ৭৮ লাখ ৭০ হাজার টাকা। আর্থিক খাতে ৭২ লাখ ৬৬ হাজার ২৫৩টি শেয়ার ৩ হাজার ৬৬৭বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ১০ কোটি ১৫ লাখ ৭০ হাজার টাকা। প্রকৌশল খাতে ২ কোটি ১৯ লাখ ৭০ হাজার ৩৯টি শেয়ার ২১ হাজার ৫৮৫বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ৬৩ কোটি ৪৬ লাখ ১০ হাজার টাকা। ওষুধ ও রসায়ন খাতে ৮৮ লাখ ৭২ হাজার ৮৩১টি শেয়ার ১৩ হাজার ২৬৭বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ৪২ কোটি ৮৩১ লাখ ৬০ হাজার টাকা। বস্ত্র খাতে ২ কোটি ৬৯ লাখ ৪৪ হাজার ৬৬৫টি শেয়ার ১৭ হাজার ৬১৩বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ৪১ কোটি ৬৮ লাখ ১০ হাজার টাকা। বিদ্যুৎ ও জ্বালানি খাতে ৬২ লাখ ৮০ হাজার ২৫৯টি শেয়ার ৮ হাজার ২৩৫বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ৩১ কোটি ৬ লাখ ৩০ হাজার টাকা।
অন্যদিকে, চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) আজ সিএসই’র সার্বিক সূচক ১৬৩.০৩ পয়েন্ট কমে দাঁড়ায় ১৩৩৮১.৬০ পয়েন্টে। সিএসইএক্স সূচক ৯৯.১৬ পয়েন্ট কমে দাঁড়ায় ৮১০৯.২৮ পয়েন্টে। আজ মোট ২২০টি কোম্পানির শেয়ার লেনদেন হয়েছে। এর মধ্যে দর বেড়েছে ৩৭টির, কমেছে ১৬৩টির এবং অপরিবর্তিত ছিল ২০ কোম্পানির শেয়ার দর। আর দিন শেষে ৪৬ লাখ ৭৭ হাজার ৯৪০টি শেয়ার ও ইউনিট ৪ হাজার ৯৮১ বার হাতবদল হয়েছে, যার মূল্য ছিল ৯ কোটি ১৪ লাখ ৩৩ হাজার ৩৭৮ টাকা ৭০ পয়সা। অর্থাৎ আগের দিনের তুলনায় লেনদেন কমেছে ৩ কোটি ৭০ লাখ ২৭ হাজার ৫২৩ টাকা ৮০ পয়সা। আজ সিএসই’র বাজারমূলধন ছিল ২ লাখ ৬৭ হাজার ৬৪৭ কোটি ২৬ লাখ ৮৮ হাজার ৫৪৩ টাকা ৭০ পয়সা। অর্থাৎ আগের কার্যদিবসের তুলনায় বাজারমূলধন কমেছে ২ হাজার ৮০২ কোটি ১৮ লাখ ২০ হাজার ১৪১ টাকা ২০ পয়সা।
এর আগের কার্যদিবসে সিএসই’তে সার্বিক সূচক ২৫.১৭ পয়েন্ট বেড়ে দাঁড়ায় ১৩৫৪৪.৬৪ পয়েন্টে। সিএসইএক্স সূচক ১৩.২৯ পয়েন্ট বেড়ে দাঁড়ায় ৮২০৮.৪৪ পয়েন্টে। আজ মোট ২৪৬টি কোম্পানির শেয়ার লেনদেন হয়েছে। এর মধ্যে দর বেড়েছে ১৩৮টির, কমেছে ৮৯টির এবং অপরিবর্তিত ছিল ১৯ কোম্পানির শেয়ার দর। আর দিন শেষে ৬৯ লাখ ৫ হাজার ৪১৪টি শেয়ার ও ইউনিট ৬ হাজার ৮৭৬ বার হাতবদল হয়েছে, যার মূল্য ছিল ১২ কোটি ৮৪ লাখ ৬০ হাজার ৯০২ টাকা ৫০ পয়সা। আজ সিএসই’র বাজারমূলধন ছিল ২ লাখ ৭০ হাজার ৪৪৯ কোটি ৪৫ লাখ ৮ হাজার ৬৮৪ টাকা ৯০ পয়সা।

দৈনিক শেয়ারবাজার প্রতিদিন/এসএ/খান

Share
নিউজটি ৪৬৫ বার পড়া হয়েছে ।
Tagged