সূচক কমলেও বেড়েছে লেনদেন

করোনার প্রভাবে শেয়ারবাজারে ধস

সূচক কমলেও বেড়েছে লেনদেন

সময়: সোমবার, মার্চ ৯, ২০২০ ৬:০৪:১৯ অপরাহ্ণ


মো. সাজিদ খান : করোনার প্রভাবে শেয়ারবাজারে ধসের কবলে পরেছে। আজ দেশের উভয় স্টক এক্সচেঞ্জেই উল্লেখযোগ্য হারে সূচক কমেছে। অনেকেই আতঙ্কিত হয়ে হাতে থাকা শেয়ার বিক্রির করেছে। বিক্রির চাপে সূচক উল্লেখযোগ্য হারে কমলেও বেড়েছে লেনদেন। এছাড়া উভয় স্টক এক্সচেঞ্জেই অধিকাংশ কোম্পানির শেয়ার দর এবং বাজার মূলধন কমেছে। ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) আজ লেনদেন বেড়েছে ৭০ কোটি ৪২ লাখ ২২ হাজার ৭৫২ টাকা ৩০ পয়সা। বাজার মূলধন বেড়েছে ১৭ হাজার ২৯১ কোটি ৩৮ লাখ ৮২ হাজার ১২৪ টাকা ৩৩ পয়সা।
চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) লেনদেন বেড়েছে ৫০ কোটি ২২ লাখ ২২ হাজার ১৮৯ টাকা ৪০ পয়সা। এদিন সিএসই’তে বাজার মূলধন কমেছে ১৪ হাজার ৮২৬ কোটি ৮৮ লাখ ৫১ হাজার ৪২৫ টাকা ৪০ পয়সা। সংশ্লিষ্ট স্টক এক্সচেঞ্জ সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।
বাজার পর্যালোচনায় দেখা যায়, আজ ডিএসই’র ব্রড ইনডেক্স আগের দিনের চেয়ে ২৭৯.৩২ পয়েন্ট কমে দাঁড়ায় ৪০০৮.০৫ পয়েন্টে। আর ডিএসই শরিয়াহ্্ সূচক ৬৯.৭৯ পয়েন্ট কমে ৯২৯.২৭ পয়েন্ট এবং ডিএসই৩০ সূচক ৮৮.৮৯ পয়েন্ট কমে ১৩৪৬.১১ পয়েন্টে দাঁড়ায়। সারাদিন লেনদেনকৃত ৩৫৫টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের মধ্যে বেড়েছে ২টি, কমেছে ৩৫২টি এবং অপরিবর্তিত ছিল ১টি দর। এদিন ডিএসই’তে মোট ২০ কোটি ৯৯ লাখ ২৭ হাজার ১৪৫টি শেয়ার এক লাখ ৫৪ হাজার ৩৯২বার হাতবদল হয়, যাদের মোট মূল্য ৪৯৯ কোটি ৩৫ লাখ ২ হাজার ৭১৯ টাকা ৭০ পয়সা। আজ বাজার মূলধন ছিল ৩ লাখ ১৪ হাজার ২১৯ কোটি ২৫ লাখ ৮৯ হাজার ২০১ টাকা ৭০ পয়সা।
গতকাল ডিএসই’র ব্রড ইনডেক্স ৯৭.১০ পয়েন্ট কমে দাঁড়ায় ৪২৮৭.৩৮ পয়েন্টে। আর ডিএসই শরিয়াহ্্ সূচক ১৬.৮৬ পয়েন্ট কমে ৯৯৯.০৬ পয়েন্ট এবং ডিএসই৩০ সূচক ২৭.২৪ পয়েন্ট কমে ১৪৩৫.০০ পয়েন্টে দাঁড়ায়। সারাদিন লেনদেনকৃত ৩৫৫টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের মধ্যে বেড়েছে ৩৭টি, কমেছে ৩০৫টি এবং অপরিবর্তিত ছিল ১৪টি দর। এদিন ডিএসই’তে মোট ১৬ কোটি ৩ লাখ ২ হাজার ১৬৬টি শেয়ার এক লাখ ৪৩ হাজার ৪০৪বার হাতবদল হয়, যাদের মোট মূল্য ৪২৮ কোটি ৯২ লাখ ৭৯ হাজার ৯৬৭ টাকা ৪০ পয়সা। গতকাল বাজার মূলধন ছিল ৩ লাখ ৩১ হাজার ৫১০ কোটি ৬৪ লাখ ৭১ হাজার ৩২৬ টাকা ৩ পয়সা।
ক্যাটাগরিভিত্তিক লেনদেনের ক্ষেত্রে ডিএসই’তে আজ ‘এ’ ক্যাটাগরির ২৫৮ কোম্পানির মধ্যে বেড়েছে একটি, কমেছে এবং ২৫৭টির শেয়ার দর। ‘বি’ ক্যাটাগরির ৪৮টি কোম্পানির মধ্যে কমেছে ৭টি এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ১টির শেয়ার দর। ‘এন’ ক্যাটাগরির একটিরই দর কমেছে। ‘জেড’ ক্যাটাগরির ৪৮টি কোম্পানির মধ্যে বেড়েছে ১টি এবং কমেছে ৩৪টির শেয়ার দর। এছাড়া, ৩৭টি মিউচ্যুয়াল ফান্ডের মধ্যে সবগুলোর দর কমেছে।
গতকাল ক্যাটাগরিভিত্তিক লেনদেনের ক্ষেত্রে ডিএসই’তে ‘এ’ ক্যাটাগরির ২৫৮ কোম্পানির মধ্যে বেড়েছে ২৪টি, কমেছে ২২৮টি এবং অপরিবর্তিত ছিল ৬টির শেয়ার দর। ‘বি’ ক্যাটাগরির ৪৮টি কোম্পানির মধ্যে বেড়েছে ৭টি এবং কমেছে ৪১টি এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ২টির শেয়ার দর। ‘এন’ ক্যাটাগরির একটিরই দর কমেছে। ‘জেড’ ক্যাটাগরির ৪৮টি কোম্পানির মধ্যে বেড়েছে ৬টি, কমেছে ৩৪টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৮টির শেয়ার দর। এছাড়া, ৩৭টি মিউচ্যুয়াল ফান্ডের মধ্যে বেড়েছে ১টি, কমেছে ৩০টির এবং অপরিবর্তিত ছিল ৬টির দর।
আজ ‘এ’ ক্যাটাগরির ২৫৮ কোম্পানির মোট ১৪ কোটি ৫৮ লাখ ৯৪ হাজার ১১৯টি শেয়ার এক লাখ ১৯ হাজার ৬৫৭বার হাতবদল হয়, যাদের মোট মূল্য ৩৮৫ কোটি ৪৮ লাখ ১১ হাজার টাকা। ‘বি’ ক্যাটাগরির ৪৮ কোম্পানির ৪ কোটি ৩৮ লাখ ১১ হাজার ১১৬টি শেয়ার ২৭ হাজার ৪১৮বার হাতবদল হয়, যাদের মোট মূল্য ৭৯ কোটি ২০ লাখ ৬২ হাজার টাকা। ‘এন’ ক্যাটাগরির এক কোম্পানির ১০ লাখ ২৫ হাজার ৭৩৩টি শেয়ার এক হাজার ৩৭৬ বার হাতবদল হয়, যাদের মোট মূল্য ৩ কোটি ৬২ লাখ ৫৯ হাজার টাকা। ‘জেড’ ক্যাটাগরির ৪৮ কোম্পানির এক কোটি ৪৬ লাখ ১৯ হাজার ৯৮৮টি শেয়ার ৫ হাজার ৭৫৯ বার হাতবদল হয়, যাদের মোট মূল্য ৬ কোটি ৬৯ লাখ ৬৬ হাজার টাকা।
গতকাল ‘এ’ ক্যাটাগরির ২৫৮ কোম্পানির মোট ১১ কোটি ৬ লাখ ৭৪ হাজার ৪৩৮টি শেয়ার এক লাখ ৮ হাজার ৫০বার হাতবদল হয়, যাদের মোট মূল্য ৩২৯ কোটি ১৯ লাখ ৯৮ হাজার টাকা। ‘বি’ ক্যাটাগরির ৪৮ কোম্পানির ৩ কোটি ৭২ লাখ ১৪ হাজার ৭৬টি শেয়ার ২৯ হাজার ৮৯১বার হাতবদল হয়, যাদের মোট মূল্য ৮০ কোটি ২৭ লাখ ৩ হাজার টাকা। ‘এন’ ক্যাটাগরির এক কোম্পানির ৬ লাখ ৯১ হাজার ২১১টি শেয়ার এক হাজার ২৯০ বার হাতবদল হয়, যাদের মোট মূল্য ২ কোটি ৬৮ লাখ ৭৫ হাজার টাকা। ‘জেড’ ক্যাটাগরির ৪৮ কোম্পানির ৮৫ লাখ ৩৮ হাজার ৩৪৭টি শেয়ার ৪ হাজার ২৯ বার হাতবদল হয়, যাদের মোট মূল্য ৬ কোটি ৩৩ লাখ ৯২ হাজার টাকা।
অন্যদিকে, চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) আজ সিএসই’র সার্বিক সূচক ৭৬৯.৩২ পয়েন্ট কমে দাঁড়ায় ১২৩২৮.৭৯ পয়েন্টে। সিএসইএক্স সূচক ৮০৪.৩৮ পয়েন্ট কমে দাঁড়ায় ৮৭৬.৭৭ পয়েন্টে। এদিন মোট ২৫৬টি কোম্পানির শেয়ার লেনদেন হয়েছে। এর মধ্যে বেড়েছে ৪টি, কমেছে ২৪৮টি এবং অপরিবর্তিত ছিল ৪ কোম্পানির শেয়ার দর। আর দিন শেষে এক কোটি ২৭ লাখ ৩৬ হাজার ৯২৫টি শেয়ার ও ইউনিট ১০ হাজার ৪৪৫বার হাতবদল হয়েছে, যাদের মোট মূল্য ছিল ৭০ কোটি ৩১ লাখ ৮ হাজার ৫২ টাকা ৬০ পয়সা। আজ সিএসই’র বাজারমূলধন ছিল ২ লাখ ৪৭ হাজার ৫৪ কোটি ৮৬ লাখ ৪১ হাজার ৪৮৪ টাকা ৯০ পয়সা।
গতকাল চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) সার্বিক সূচক ৩০৫.৮৮ পয়েন্ট কমে দাঁড়ায় ১৩০৯৮.১১ পয়েন্টে। সিএসইএক্স সূচক ১৮৬.১৮ পয়েন্ট কমে দাঁড়ায় ৭৯৩৭.৫৬ পয়েন্টে। এদিন মোট ২৪৫টি কোম্পানির শেয়ার লেনদেন হয়েছে। এর মধ্যে বেড়েছে ৩১টি, কমেছে ১৯৬টি এবং অপরিবর্তিত ছিল ১৮ কোম্পানির শেয়ার দর। আর দিন শেষে ৮৩ লাখ ৫৭ হাজার ৬৪৩টি শেয়ার ও ইউনিট ৬ হাজার ৯০০বার হাতবদল হয়েছে, যাদের মোট মূল্য ছিল ২০ কোটি ৮ লাখ ৮৫ হাজার ৮৬৩ টাকা ২০ পয়সা। গতকাল সিএসই’র বাজারমূলধন ছিল ২ লাখ ৬১ হাজার ৮৮১ কোটি ৭৪ লাখ ৯২ হাজার ৯১০ টাকা ৩০ পয়সা।

দৈনিক শেয়ারবাজার প্রতিদিন/এসএ/খান

 

Share
নিউজটি ৩৭৮ বার পড়া হয়েছে ।
Tagged