ইপিএস কমেছে ১৮ টির, বেড়েছে ১৩টি, ৬টি লোকসানে

৩৮ কোম্পানির আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ

সময়: বুধবার, নভেম্বর ১৩, ২০১৯ ৮:৩৫:১৮ অপরাহ্ণ


নিজস্ব প্রতিবেদক : প্রথম প্রান্তিক (জুলাই-সেপ্টেম্বর ২০১৯) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত ৩৮ কোম্পানি। এর মধ্যে ইপিএস কমেছে ১৮ টির, বেড়েছে ১৩টি, ৬টি লোকসানে রয়েছে।
সংশ্লিষ্ট সূত্রে এ তথা জানা গেছে।

এমজেএল বিডি: প্রথম প্রান্তিকের (জুলাই-সেপ্টেম্বর ২০১৯) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন অনুযায়ী কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১ টাকা ৫৫ পয়সা। একই সময়ে আগের বছর ছিল ১ টাকা ৪৩ পয়সা। এ সময়ে নেট অপারেটিং ক্যাশ ফ্লো (এনওসিএফপিএস) হয়েছে ৪ টাকা ৩৫ পয়সা। এছাড়া শেয়ারপ্রতি সম্পদ মূল্য (এনএভি) দাঁড়িয়েছে ৩৭ টাকা ১৯ পয়সা।

রহিম টেক্সটাইল: প্রথম প্রান্তিকের (জুলাই-সেপ্টেম্বর ২০১৯) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন অনুযায়ী কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১ টাকা ৮৭ পয়সা। একই সময়ে আগের বছর শেয়ারপ্রতি ছিল ২ টাকা ৪ পয়সা। এ সময়ে নেট অপারেটিং ক্যাশ ফ্লো (এনওসিএফপিএস) হয়েছে ৮ টাকা ৬৫ পয়সা। এ সময়ে শেয়ারপ্রতি সম্পদ মূল্য (এনএভি) দাঁড়িয়েছে ৪১ টাকা ৭১ পয়সা।

দুলামিয়া কটন: প্রথম প্রান্তিকের (জুলাই-সেপ্টেম্বর ২০১৯) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন অনুযায়ী কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি লোকসান (ইপিএস) হয়েছে ৬০ পয়সা। একই সময়ে আগের বছর ছিল ১ টাকা ১৭ পয়সা। এ সময়ে নেট অপারেটিং ক্যাশ ফ্লো (এনওসিএফপিএস) হয়েছে ৫৯ পয়সা (নেগেটিভ)। ৩০ সেপ্টেম্বর ২০১৯ পর্যন্ত শেয়ারপ্রতি দায় দাঁড়িয়েছে ৩৬ টাকা

এমএমসিএল (প্রাণ) : প্রথম প্রান্তিকের (জুলাই-সেপ্টেম্বর ২০১৯) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন অনুযায়ী কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ২ টাকা ১১ পয়সা। একই সময়ে আগের বছর ছিল ১ টাকা ৪৩ পয়সা। এ সময়ে নেট অপারেটিং ক্যাশ ফ্লো (এনওসিএফপিএস) হয়েছে ৭ টাকা ৬৫ পয়সা। ৩০ সেপ্টেম্বর ২০১৯ পর্যন্ত শেয়ার প্রতিসম্পদ মূল্য (এনএভি) দাঁড়িয়েছে ৮১ টাকা ৬০ পয়সা।

এমআই সিমেন্ট: প্রথম প্রান্তিকের (জুলাই-সেপ্টেম্বর ২০১৯) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন অনুযায়ী কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৫৭ পয়সা। একই সময়ে আগের বছর ছিল ৪৭ পয়সা। এ সময়ে নেট অপারেটিং ক্যাশ ফ্লো (এনওসিএফপিএস) হয়েছে ৫৭ পয়সা। ৩০ সেপ্টেম্বর ২০১৯ পর্যন্ত শেয়ার প্রতিসম্পদ মূল্য (এনএভি) দাঁড়িয়েছে ৪৮ টাকা ৮০ পয়সা।

কাশেম ইন্ডাস্ট্রিজ : প্রথম প্রান্তিকের (জুলাই-সেপ্টেম্বর ২০১৯) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন অনুযায়ী কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৪২ পয়সা। একই সময়ে আগের বছর ইপিএস ছিল ৩৮ পয়সা। এ সময়ে নেট অপারেটিং ক্যাশ ফ্লো (এনওসিএফপিএস) হয়েছে ৩১ পয়সা। ৩০ সেপ্টেম্বর ২০১৯ পর্যন্ত শেয়ার প্রতিসম্পদ মূল্য (এনএভি) দাঁড়িয়েছে ৩৩ টাকা ৫৫ পয়সা।

ম্যাকসন স্পিনিং: প্রথম প্রান্তিকের (জুলাই-সেপ্টেম্বর ২০১৯) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন অনুযায়ী কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি লোকসান হয়েছে ২ পয়সা। একই সময়ে আগের বছর শেয়ার প্রতি আয় ছিল ৯ পয়সা। এ সময়ে নেট অপারেটিং ক্যাশ ফ্লো (এনওসিএফপিএস) হয়েছে ১ টাকা ৩৬৮ পয়সা। ৩০ সেপ্টেম্বর ২০১৯ পর্যন্ত শেয়ার প্রতিসম্পদ মূল্য (এনএভি) দাঁড়িয়েছে ১৮ টাকা ৭০ পয়সা।

একমি ল্যাবরেটরিজ: প্রথম প্রান্তিকের (জুলাই-সেপ্টেম্বর ২০১৯) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন অনুযায়ী কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১ টাকা ৮৯ পয়সা। একই সময়ে আগের বছর শেয়ার প্রতি আয় ছিল ১ টাকা ৮৪ পয়সা। এ সময়ে নেট অপারেটিং ক্যাশ ফ্লো (এনওসিএফপিএস) হয়েছে ১ টাকা ২৭ পয়সা। ৩০ সেপ্টেম্বর ২০১৯ পর্যন্ত শেয়ার প্রতিসম্পদ মূল্য (এনএভি) দাঁড়িয়েছে ৮৮ টাকা ৫৭ পয়সা।

বিকন ফার্মা: প্রথম প্রান্তিকের (জুলাই-সেপ্টেম্বর ২০১৯) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন অনুযায়ী কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস)হয়েছে ১৮ পয়সা। একই সময়ে আগের বছর শেয়ার প্রতি আয় ছিল ১৬ পয়সা। এ সময়ে নেট অপারেটিং ক্যাশ ফ্লো (এনওসিএফপিএস) হয়েছে ১৮ পয়সা। ৩০ সেপ্টেম্বর ২০১৯ পর্যন্ত শেয়ার প্রতিসম্পদ মূল্য (এনএভি) দাঁড়িয়েছে ১৩ টাকা ৭ পয়সা।

জাহিন টেক্সটাইল: প্রথম প্রান্তিকের (জুলাই-সেপ্টেম্বর ২০১৯) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন অনুযায়ী কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১০ পয়সা। একই সময়ে আগের বছর শেয়ার প্রতি আয় ছিল ২৮ পয়সা। এ সময়ে নেট অপারেটিং ক্যাশ ফ্লো (এনওসিএফপিএস) হয়েছে ১৭ পয়সা। ৩০ সেপ্টেম্বর ২০১৯ পর্যন্ত শেয়ার প্রতিসম্পদ মূল্য (এনএভি) দাঁড়িয়েছে ১২ টাকা ৯১ পয়সা।

খুলনা প্রিন্টিং: প্রথম প্রান্তিকের (জুলাই-সেপ্টেম্বর ২০১৯) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন অনুযায়ী কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি লোকসান হয়েছে ৩৮ পয়সা। একই সময়ে আগের বছর শেয়ার প্রতি লোকসান ছিল ৩১ পয়সা। এ সময়ে নেট অপারেটিং ক্যাশ ফ্লো (এনওসিএফপিএস) হয়েছে ২৪ পয়সা। ৩০ সেপ্টেম্বর ২০১৯ পর্যন্ত শেয়ার প্রতিসম্পদ মূল্য (এনএভি) দাঁড়িয়েছে ১১ টাকা ৯৫ পয়সা।

এসআল কোল্ড রোল্ড স্টিল: প্রথম প্রান্তিকের (জুলাই-সেপ্টেম্বর ২০১৯) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন অনুযায়ী কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি সমন্বিত আয় (ইপিএস) হয়েছে ৩১ পয়সা। একই সময়ে আগের বছর শেয়ার প্রতি আয় ছিল ৪১ পয়সা। এ সময়ে সমন্বিত নেট অপারেটিং ক্যাশ ফ্লো (এনওসিএফপিএস) হয়েছে ৮ টাকা ৯৪ পয়সা। ৩০ সেপ্টেম্বর ২০১৯ পর্যন্ত শেয়ার প্রতিসম্পদ সমন্বিত মূল্য (এনএভি) দাঁড়িয়েছে ১৯ টাকা ৭৭ পয়সা।

স্কয়ার ফার্মা: প্রথম প্রান্তিকের (জুলাই-সেপ্টেম্বর ২০১৯) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন অনুযায়ী কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস)হয়েছে ৪ টাকা ২৫ পয়সা। একই সময়ে আগের বছর শেয়ার প্রতি আয় ছিল ৪ টাকা ২ পয়সা। এ সময়ে নেট অপারেটিং ক্যাশ ফ্লো (এনওসিএফপিএস) হয়েছে ৪ টাকা ১৪ পয়সা। ৩০ সেপ্টেম্বর ২০১৯ পর্যন্ত শেয়ার প্রতিসম্পদ মূল্য (এনএভি) দাঁড়িয়েছে ৯০ টাকা।

আরামিট সিমেন্ট: প্রথম প্রান্তিকের (জুলাই-সেপ্টেম্বর ২০১৯) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন অনুযায়ী কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি লোকসান হয়েছে ৭৪ পয়সা। একই সময়ে আগের বছর শেয়ার প্রতি লোকসান ছিল ২ টাকা ১১ পয়সা। এ সময়ে নেট অপারেটিং ক্যাশ ফ্লো (এনওসিএফপিএস) হয়েছে ৪ টাকা ২৩ পয়সা। ৩০ সেপ্টেম্বর ২০১৯ পর্যন্ত শেয়ার প্রতিসম্পদ মূল্য (এনএভি) দাঁড়িয়েছে ১০ পয়সা।

স্কয়ার টেক্সটাইল: প্রথম প্রান্তিকের (জুলাই-সেপ্টেম্বর ২০১৯) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন অনুযায়ী কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৪১ পয়সা। একই সময়ে আগের বছর শেয়ার প্রতি আয় ছিল ৬৯ পয়সা। এ সময়ে নেট অপারেটিং ক্যাশ ফ্লো (এনওসিএফপিএস) হয়েছে ৩ টাকা ১৫ পয়সা। ৩০ সেপ্টেম্বর ২০১৯ পর্যন্ত শেয়ার প্রতিসম্পদ মূল্য (এনএভি) দাঁড়িয়েছে ৩৮ টাকা ৪১ পয়সা।

সিনোবাংলা ইন্ডাস্ট্রিজ: প্রথম প্রান্তিকের (জুলাই-সেপ্টেম্বর ২০১৯) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন অনুযায়ী কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস)হয়েছে ৩৬ পয়সা। একই সময়ে আগের বছর শেয়ার প্রতি আয় ছিল ৩৫ পয়সা। এ সময়ে নেট অপারেটিং ক্যাশ ফ্লো (এনওসিএফপিএস) হয়েছে ২ টাকা ৩৮ পয়সা। ৩০ সেপ্টেম্বর ২০১৯ পর্যন্ত শেয়ার প্রতিসম্পদ মূল্য (এনএভি) দাঁড়িয়েছে ২৫ টাকা ৭৪ পয়সা।

আলিফ ইন্ডাস্ট্রিজ: প্রথম প্রান্তিকের (জুলাই-সেপ্টেম্বর ২০১৯) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন অনুযায়ী কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস)হয়েছে ৪৬ পয়সা। একই সময়ে আগের বছর শেয়ার প্রতি আয় ছিল ৬৭ পয়সা। এ সময়ে নেট অপারেটিং ক্যাশ ফ্লো (এনওসিএফপিএস) হয়েছে ৩৬ পয়সা। ৩০ সেপ্টেম্বর ২০১৯ পর্যন্ত শেয়ার প্রতিসম্পদ মূল্য (এনএভি) দাঁড়িয়েছে ২১ টাকা ২০ পয়সা।

মেট্রো স্পিনিং: প্রথম প্রান্তিকের (জুলাই-সেপ্টেম্বর ২০১৯) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন অনুযায়ী কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি লোকসান হয়েছে ৪ পয়সা। একই সময়ে আগের বছর শেয়ার প্রতি লোকসান ছিল ৩ পয়সা। ৩০ সেপ্টেম্বর ২০১৯ পর্যন্ত শেয়ার প্রতিসম্পদ মূল্য (এনএভি) দাঁড়িয়েছে ১৪ টাকা ৫ পয়সা।

সিলভা ফার্মা: প্রথম প্রান্তিকের (জুলাই-সেপ্টেম্বর ২০১৯) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন অনুযায়ী কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস)হয়েছে ৩১ পয়সা। একই সময়ে আগের বছর শেয়ার প্রতি আয় ছিল ৪৮ পয়সা। এ সময়ে নেট অপারেটিং ক্যাশ ফ্লো (এনওসিএফপিএস) হয়েছে ২৮ পয়সা। ৩০ সেপ্টেম্বর ২০১৯ পর্যন্ত শেয়ার প্রতিসম্পদ মূল্য (এনএভি) দাঁড়িয়েছে ১৬ টাকা ৭২ পয়সা।

হামিদ ফ্রেব্রিকস: প্রথম প্রান্তিকের (জুলাই-সেপ্টেম্বর ২০১৯) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন অনুযায়ী কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস)হয়েছে ৩৩ পয়সা। একই সময়ে আগের বছর শেয়ার প্রতি আয় ছিল ৩৭ পয়সা। ৩০ সেপ্টেম্বর ২০১৯ পর্যন্ত শেয়ার প্রতিসম্পদ মূল্য (এনএভি) দাঁড়িয়েছে ৪০ টাকা ৪৪ পয়সা।
কে অ্যান্ড কিউ : প্রথম প্রান্তিকের (জুলাই-সেপ্টেম্বর ২০১৯) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন অনুযায়ী কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস)হয়েছে ১৬ পয়সা। একই সময়ে আগের বছর শেয়ারপ্রতি আয় ছিল ১৮ পয়সা। ৩০ সেপ্টেম্বর ২০১৯ পর্যন্ত শেয়ার প্রতিসম্পদ মূল্য (এনএভি) দাঁড়িয়েছে ৭৭ টাকা ১৪ পয়সা।
মতিন স্পিনিং: প্রথম প্রান্তিকের (জুলাই-সেপ্টেম্বর ২০১৯) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন অনুযায়ী কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস)হয়েছে ১৮ পয়সা। একই সময়ে আগের বছর শেয়ারপ্রতি আয় ছিল ৫৯ পয়সা।
ইউনাইটেড পাওয়ার: প্রথম প্রান্তিকের (জুলাই-সেপ্টেম্বর ২০১৯) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন অনুযায়ী কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি সমন্বিত আয় (ইপিএস) হয়েছে ৩ টাকা ৩৭ পয়সা। একই সময়ে আগের বছর শেয়ার প্রতি আয় ছিল ৩ টাকা ৭১ পয়সা। এ সময়ে নেট অপারেটিং ক্যাশ ফ্লো (এনওসিএফপিএস) হয়েছে ৩ টাকা ৯৯ পয়সা। ৩০ সেপ্টেম্বর ২০১৯ পর্যন্ত শেয়ার প্রতিসম্পদ মূল্য (এনএভি) দাঁড়িয়েছে ৬৬ টাকা ৬ পয়সা।

ফার্মা এইডস: প্রথম প্রান্তিকের (জুলাই-সেপ্টেম্বর ২০১৯) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন অনুযায়ী কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৪ টাকা ৬৩ পয়সা। একই সময়ে আগের বছর শেয়ার প্রতি আয় ছিল ৪ টাকা ৬৩ পয়সা। এ সময়ে নেট অপারেটিং ক্যাশ ফ্লো (এনওসিএফপিএস) হয়েছে ৬ টাকা ২ পয়সা। ৩০ সেপ্টেম্বর ২০১৯ পর্যন্ত শেয়ার প্রতিসম্পদ মূল্য (এনএভি) দাঁড়িয়েছে ৭৫ টাকা ৬৬ পয়সা।
ফরচুন সুজ: প্রথম প্রান্তিকের (জুলাই-সেপ্টেম্বর ২০১৯) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন অনুযায়ী কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস)হয়েছে ৯৬ পয়সা। একই সময়ে আগের বছর শেয়ারপ্রতি আয় ছিল ৭৯ পয়সা। এ সময়ে নেট অপারেটিং ক্যাশ ফ্লো (এনওসিএফপিএস) হয়েছে ৯১ পয়সা। ৩০ সেপ্টেম্বর ২০১৯ পর্যন্ত শেয়ার প্রতিসম্পদ মূল্য (এনএভি) দাঁড়িয়েছে ১৬ টাকা ২৪ পয়সা।

শেফার্ড ইন্ডাস্ট্রিজ: প্রথম প্রান্তিকের (জুলাই-সেপ্টেম্বর ২০১৯) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন অনুযায়ী কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস)হয়েছে ২৪ পয়সা। একই সময়ে আগের বছর শেয়ারপ্রতি আয় ছিল ৪২ পয়সা। এ সময়ে নেট অপারেটিং ক্যাশ ফ্লো (এনওসিএফপিএস) হয়েছে ১ টাকা ৪৪ পয়সা। ৩০ সেপ্টেম্বর ২০১৯ পর্যন্ত শেয়ার প্রতিসম্পদ মূল্য (এনএভি) দাঁড়িয়েছে ১৭ টাকা ৭৮ পয়সা।

যমুনা অয়েল: প্রথম প্রান্তিকের (জুলাই-সেপ্টেম্বর ২০১৯) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন অনুযায়ী কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস)হয়েছে ৪ টাকা ৫৮ পয়সা। একই সময়ে আগের বছর শেয়ার প্রতি আয় ছিল ৬ টাকা ২৯ পয়সা। এ সময়ে নেট অপারেটিং ক্যাশ ফ্লো (এনওসিএফপিএস) হয়েছে ১০ টাকা ১৪ পয়সা। ৩০ সেপ্টেম্বর ২০১৯ পর্যন্ত শেয়ার প্রতিসম্পদ মূল্য (এনএভি) দাঁড়িয়েছে ১৬৮ টাকা ৩৯ পয়সা।
বেক্সিমকো সিনথেটিকস: প্রথম প্রান্তিকের (জুলাই-সেপ্টেম্বর ২০১৯) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন অনুযায়ী কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি লোকসান হয়েছে ৬৮ পয়সা। একই সময়ে আগের বছর শেয়ার প্রতি লোকসান ছিল ৮৭ পয়সা। এ সময়ে নেট অপারেটিং ক্যাশ ফ্লো (এনওসিএফপিএস) হয়েছে ২৮ পয়সা। ৩০ সেপ্টেম্বর ২০১৯ পর্যন্ত শেয়ার প্রতিসম্পদ মূল্য (এনএভি) দাঁড়িয়েছে ১৩ টাকা ৪৫ পয়সা।

সিলকো ফার্মা: প্রথম প্রান্তিকের (জুলাই-সেপ্টেম্বর ২০১৯) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন অনুযায়ী কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৩১ পয়সা। একই সময়ে আগের বছর শেয়ারপ্রতি আয় ছিল ৩৬ পয়সা। এ সময়ে নেট অপারেটিং ক্যাশ ফ্লো (এনওসিএফপিএস) হয়েছে ৪৫ পয়সা। ৩০ সেপ্টেম্বর ২০১৯ পর্যন্ত শেয়ার প্রতিসম্পদ মূল্য (এনএভি) দাঁড়িয়েছে ২৩ টাকা ৪৩ পয়সা।
বেক্সিমকো লিমিটেড: প্রথম প্রান্তিকের (জুলাই-সেপ্টেম্বর ২০১৯) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন অনুযায়ী কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস)হয়েছে ৩১ পয়সা। একই সময়ে আগের বছর শেয়ার প্রতি আয় ছিল ৩৯ পয়সা। এ সময়ে নেট অপারেটিং ক্যাশ ফ্লো (এনওসিএফপিএস) হয়েছে ০.০৮ টাকা। ৩০ সেপ্টেম্বর ২০১৯ পর্যন্ত শেয়ার প্রতিসম্পদ মূল্য (এনএভি) দাঁড়িয়েছে ৭০ টাকা ৭ পয়সা।

বেক্সিমকো ফার্মা: প্রথম প্রান্তিকের (জুলাই-সেপ্টেম্বর ২০১৯) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন অনুযায়ী কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ২ টাকা ১৩ পয়সা। একই সময়ে আগের বছর শেয়ার প্রতি আয় ছিল ১ টাকা ৮৬ পয়সা। এ সময়ে নেট অপারেটিং ক্যাশ ফ্লো (এনওসিএফপিএস) হয়েছে ৪ টাকা ৫৯ পয়সা। ৩০ সেপ্টেম্বর ২০১৯ পর্যন্ত শেয়ার প্রতিসম্পদ মূল্য (এনএভি) দাঁড়িয়েছে ৬৮ টাকা ৫৯ পয়সা।
সাইনপুকুর সিরামিক: প্রথম প্রান্তিকের (জুলাই-সেপ্টেম্বর ২০১৯) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন অনুযায়ী কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ২ পয়সা। একই সময়ে আগের বছর শেয়ারপ্রতি আয় ছিল ১০ পয়সা। এ সময়ে নেট অপারেটিং ক্যাশ ফ্লো (এনওসিএফপিএস) হয়েছে ৫৯ পয়সা। ৩০ সেপ্টেম্বর ২০১৯ পর্যন্ত শেয়ার প্রতিসম্পদ মূল্য (এনএভি) দাঁড়িয়েছে ২৮ টাকা ৯৯ পয়সা।

রেনিটা: প্রথম প্রান্তিকের (জুলাই-সেপ্টেম্বর ২০১৯) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন অনুযায়ী কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১২ টাকা ৭৮ পয়সা। একই সময়ে আগের বছর শেয়ার প্রতি আয় ছিল ১০ টাকা ৪৬ পয়সা।
এপেক্স ফুটওয়্যার: প্রথম প্রান্তিকের (জুলাই-সেপ্টেম্বর ২০১৯) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন অনুযায়ী কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১ টাকা ৫ পয়সা। একই সময়ে আগের বছর শেয়ার প্রতি আয় ছিল ৩ টাকা ৯২ পয়সা। ৩০ সেপ্টেম্বর ২০১৯ পর্যন্ত শেয়ার প্রতিসম্পদ মূল্য (এনএভি) দাঁড়িয়েছে ২৫০ টাকা ৮৮ পয়সা।

এসকে ট্রিমস: প্রথম প্রান্তিকের (জুলাই-সেপ্টেম্বর ২০১৯) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন অনুযায়ী কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস)হয়েছে ৭২ পয়সা। একই সময়ে আগের বছর শেয়ার প্রতি আয় ছিল ৬৫ পয়সা। এ সময়ে নেট অপারেটিং ক্যাশ ফ্লো (এনওসিএফপিএস) হয়েছে ৩৯ পয়সা। ৩০ সেপ্টেম্বর ২০১৯ পর্যন্ত শেয়ার প্রতিসম্পদ মূল্য (এনএভি) দাঁড়িয়েছে ১৪ টাকা ৬০ পয়সা।

কুইন সাউথ টেক্সটাইল: প্রথম প্রান্তিকের (জুলাই-সেপ্টেম্বর ২০১৯) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন অনুযায়ী কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস)হয়েছে ৩৯ পয়সা। একই সময়ে আগের বছর শেয়ার প্রতি আয় ছিল ৪৮ পয়সা। এ সময়ে নেট অপারেটিং ক্যাশ ফ্লো (এনওসিএফপিএস) হয়েছে ২৯ পয়সা। ৩০ সেপ্টেম্বর ২০১৯ পর্যন্ত শেয়ার প্রতিসম্পদ মূল্য (এনএভি) দাঁড়িয়েছে ১৮ টাকা ১ পয়সা।

আরএসআরএম স্টিল: প্রথম প্রান্তিকের (জুলাই-সেপ্টেম্বর ২০১৯) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন অনুযায়ী কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস)হয়েছে ৫৫ পয়সা। একই সময়ে আগের বছর শেয়ার প্রতি আয় ছিল ১ টাকা ৭৫ পয়সা। ৩০ সেপ্টেম্বর ২০১৯ পর্যন্ত শেয়ার প্রতিসম্পদ মূল্য (এনএভি) দাঁড়িয়েছে ৫০ টাকা ৩ পয়সা।

ভিএস থ্রেড ডায়িং: প্রথম প্রান্তিকের (জুলাই-সেপ্টেম্বর ২০১৯) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন অনুযায়ী কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস)হয়েছে ৪৭ পয়সা। একই সময়ে আগের বছর শেয়ার প্রতি আয় ছিল ৪৬ পয়সা। ৩০ সেপ্টেম্বর ২০১৯ পর্যন্ত শেয়ার প্রতিসম্পদ মূল্য (এনএভি) দাঁড়িয়েছে ১৯ টাকা ১৫ পয়সা।

দৈনিক শেয়ারবাজার প্রতিদিন/রী

Share
নিউজটি ৫৬২ বার পড়া হয়েছে ।
Tagged