৭ কোম্পানির এজিএম অনুষ্ঠিত

সময়: বৃহস্পতিবার, ডিসেম্বর ১৯, ২০১৯ ৮:৪৬:৪৩ অপরাহ্ণ


নিজস্ব প্রতিবেদক : পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত ৭ কোম্পানির বার্ষিক সাধারণ সভা (এজিএম) আজ অনুষ্ঠিত হয়েছে। কোম্পানিগুলো হলো-দেশ গার্মেন্টস কোম্পানি লিমিটেড, গ্লোবাল হেভি কেমিক্যালস লিমিটেড, মুন্নু সিরামিক ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড, দুলামিয়া কটন স্পিনিং মিলস লিমিটেড, কাট্টালী টেক্সটাইল লিমিটেড, এমআই সিমেন্ট মিলস লিমিটেড ও শাশা ডেনিমস লিমিটেড ।

দেশ গার্মেন্টস : বস্ত্র খাতের দেশ গার্মেন্টস লিমিটেড কোম্পানির পরিধি বাড়াতে রাইট শেয়ার ইস্যু করবে। আগামী দুই থেকে তিন বছরের মধ্যে এ কার্যক্রম সম্পন্ন করা হবে বলে জানিয়েছেন কোম্পানির চেয়ারম্যান রোকেয়া কাদের। গতকাল বৃহস্পতিবার ইনস্টিটিউট অব ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্সে এর ৪২তম বার্ষিক সাধারণ সভায় তিনি এসব কথা বলেন।
তিনি বলেন, ব্যাংক ঋণ নিতে গেলে কখনই ৯ ও ১০ শতাংশ সুদে ঋণ পাওয়া যায় না। কোম্পানির টাওয়ার বাড়াতে মূলধনের অভাবে দ্বারে দ্বারে ঘুরছি। কিন্তু কোথাও টাকা পাচ্ছিনা। তবে আগামী ২ থেকে ৩ বছরের মধ্যে ব্যাংক ঋণ এবং রাইট শেয়ার ইস্যু করে ২৫ থেকে ৩০ কোটি টাকা উত্তোলন করা হবে।

গ্লোবাল হেভি কেমিক্যাল: গতকাল রাজধানীর ইনস্টিটিউট অব ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্সে এ কোম্পানির ১৮তম বার্ষিক সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত হয়ছে। কোম্পানির ঘোষিত ৫ শতাংশ লভ্যাংশ অনুমোদন করেছেন শেয়ারহোল্ডাররা। সভায় উপস্থিত ছিলেন চেয়ারম্যান অবসরপ্রাপ্ত ক্যাপ্টেন আবদুস সবুর খান, পরিচালক জাকির সুলতান খান, ব্যবস্থাপনা পরিচালক আব্দুর রাকিব খান, স্বতন্ত্র পরিচালক এনএজি মহিউদ্দিন এবং কোম্পানি সচিব খোন্দকার আহাদুজ্জামান।

মুন্নু সিরামিক : মুন্নু সিরামিক ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক রাশেদ মাইমুনুল ইসলাম বলেন, ২০০৪ সাল থেকে চায়না মার্কেট ওপেন হওয়ায় আমরা অনেকটা পিছিয়ে পড়েছিলাম। সে সংকট কেটে গেছে আমরা বর্তমানে এগিয়ে যাচ্ছি। আমাদের বিক্রির পরিমাণ ১ বিলিয়ন অতিক্রম করেছে আগামী পাঁচ বছরের মধ্যে আমরা এটাকে ২ বিলিয়নে নিয়ে যেতে চাই। গতকাল বৃহস্পতিবার ধামরাইয়ে মুন্নু সিরামিক ইন্ডাস্ট্রিজের নিজস্ব কারখানায় কোম্পানির বার্ষিক সাধারণ সভায় ব্যবস্থাপনা পরিচালক রাশেদ মাইমুনুল ইসলাম এ কথা বলেন।
তিনি বলেন, নিজের দেশের মেটারিয়ালস হওয়ায় চায়না দ্রুত প্রোডাক্ট তৈরি করতে পারে। আমাদের প্রোডাক্ট তৈরি করতে মেটারিয়ালস আমদানি করতে হয়। আমাদের প্রোডাক্ট তৈরি করার জন্য মেটারিয়ালস রিজার্ভ রাখতে হয়।
আমরা পণ্যের গুণগত মান ঠিক রেখে পণ্য তৈরি করছি। আমাদেরকে আমাদের ঐতিহ্য ধরে রাখতে হবে। আমরা আমাদের সেলস বাড়ানোর জন্য ফেসবুকে ক্যাম্পেইন বাড়িয়েছি। দেশের সাধারণ মানুষ যাতে আমাদের শোরুমে এসে দেখেশুনে যাচাই করে পণ্য কিনতে পারে তার জন্য আমরা সিলেট বগুড়া খুলনাসহ ৪ জেলায় নতুন শোরুম খুলছি।
কোম্পানির চেয়ারম্যান আফরোজা খানের সভাপতিত্বে বার্ষিক সাধারণ সভায় উপস্থিত ছিলেন কোম্পানির পরিচালক রাশেদ সামিউল ইসলাম, স্বাধীন পরিচালক আনোয়ার হোসাইন ও মিনারা হাই।

দুলামিয়া কটন : বস্ত্র খাতের কোম্পানি দুলামিয়া কটন স্পিনিং মিলস লিমিটেডের ৩২তম বার্ষিক সাধারণ সভা (এজিএম) গতকাল সকাল সাড়ে ১০ টায় রাজধানীর হোটেল সুন্দরবনে অনুষ্ঠিত হয়েছে। সভায় সভাপতিত্ব করেন কোম্পানীর চেয়ারম্যান মো. এ কে এম রফিকুল ইসলাম (এফসিএ)। এছাড়াও ব্যবস্থাপনা পরিচালক নুরুজ্জামান, আকবর হোসেন, মাহবুব আনান, পরিতোষ সরকার, স্বতন্ত্র পরিচালক ড. আবদুর রাজ্জাক, মো. এ কে ডি দ্বীন মোহাম্মদ খান উপস্থিত ছিলেন।

এমআই সিমেন্ট : গতকাল মুন্সিগঞ্জের পশ্চিম মুক্তারপুরে অনুষ্ঠিত কোম্পানির ২৫তম এজিএমে সংশ্লিষ্ট বিনিয়োগকারীরা ১০ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ অনুমোদন করেছেন।
এজিএমে সভাপতিত্ব করেন চেয়ারম্যান মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর আলম। সভায় আরও উপস্থি ছিলেন ভাইস চেয়ারম্যান মো. আলমগীর কবির, ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোল্লা মোহাম্মদ মজনু, অতিরিক্ত ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. মিজানুর রহমান মোল্লা, পরিচালক আলমাস শিমুল, স্বতন্ত্র পরিচালক জাকির আহমেদ খান ও প্রফেসর ড. এম. আবু ইউসুফ, প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মো. মোক্তার হোসেন তালুকদার, এফসিএ এবং প্রধান উপদেষ্টা মাসুদ খান, এফসিএ, এফসিএমএ।

কাট্টালী টেক্সটাইল : বস্ত্র খাতের কাট্টালী টেক্সটাইল লিমিটেডের শেয়ারহোল্ডাররা কোম্পানির পরিচালনা পর্ষদ ঘোষিত ১০ শতাংশ নগদ ও ২ শতাংশ বোনাস লভ্যাংশ অনুমোদন করেছেন। গতকাল চট্টগ্রামের ভাটিয়ারি গলফ ও কান্ট্রি ক্লাবে অনুষ্ঠিত কোম্পানির এজিএমে তা অনুমোদন করা হয়।
এজিএমে সভাপতিত্ব করেন কাট্টালী টেক্সটাইল লিমিটেডের চেয়ারম্যান নাসরিন হক। এতে আরও উপস্থিত ছিলেন ব্যবস্থাপনা পরিচালক এমদাদুল হক চৌধুরী, পরিচালক মো. আনোয়ারুল হক চৌধুরী, সিফফাত সাবরিনা ও কোম্পানি সচিব সত্যব্রত দাশসহ ঊর্ধতন কর্মকর্তাবৃন্দ ও বিনিয়োগকারী।

শাশা ডেনিমস : আমরা ধারাবাহিকভাবেই ব্যবসা ভালো করে আসছি। তবে অর্থনৈতিক মন্দার কারণে ব্যবসা বাড়ছে না বলে জানান শাশা ডেনিমস লিমিটেডের স্বতন্ত্র পরিচালক এন কে এ মবিন। গতকাল কোম্পানির ২২তম বার্ষিক সাধারণ সভায় (এজিএম) তিনি এ কথা বলেন। কোম্পানির চেয়াম্যানের অনুপস্থিতে তিনি অনুষ্ঠানের সভাপতিত্ব করেন।
তিনি বলেন, কোম্পানি প্রতিবছরই ব্যবসা ভালো করে আসছে। তবে বর্তমানে যে পরিমাণে ব্যবসা হওয়ার কথা সে পরিমাণ হচ্ছে না। কারণ দেশে অর্থনৈতিক মন্দা চলছে। তা না হলে আমরা বিদেশি কোম্পানি ইওএস টেক্সটাইলস মিলসের ৮০ শতাংশ শেয়ার কিনেছি, কিন্তু ব্যবসা সে পরিমাণে বাড়েনি। এরসাথে বর্তমানে ব্যাংকের উচ্চ সুদহার আর একটি বিষয়। ব্যাংকের কাছ থেকে উচ্চ সুদে ঋণ নিয়ে ব্যবসা বাড়ানো সম্ভব যাচ্ছে না।

দৈনিক শেয়ারবাজার প্রতিদিন/রী

Share
নিউজটি ৫০৭ বার পড়া হয়েছে ।
Tagged