অর্ধ-বার্ষিকে আয় বেড়েছে ১২ সাধারণ বীমা কোম্পানির

সময়: সোমবার, জুলাই ২৯, ২০১৯ ৫:৩৮:৩৪ পূর্বাহ্ণ


নিজস্ব প্রতিবেদক : চলতি পঞ্জিকা বছরের প্রথম অর্ধ-বার্ষিকে (জানুয়ারি-জুন) পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত সাধারণ বীমা কোম্পানিগুলোর অধিকাংশের আয় বেড়েছে। পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত সাধারণ বীমা কোম্পানির সংখ্যা হচ্ছে ১৭টি। এর মধ্যে ১২টি কোম্পানির আয় বেড়েছে এবং কমেছে ৫টির। অতি সম্প্রতি কোম্পানিগুলোর অর্ধ-বার্ষিক অ-নিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন পর্যালোচনায় এ চিত্র পাওয়া গেছে।

চলতি পঞ্জিকা বছরের প্রথম অর্ধ-বার্ষিকে আয় বেড়েছে এমন কোম্পানিগুলো হলোÑ কন্টিনেন্টাল ইন্স্যুরেন্স, ইস্টল্যান্ড ইন্স্যুরেন্স, ফেডারেল ইন্স্যুরেন্স, ইসলামী ইন্স্যুরেন্স, নিটল ইন্স্যুরেন্স, প্যারামাউন্ট ইন্স্যুরেন্স, প্রগতি ইন্স্যুরেন্স, প্রাইম ইন্স্যুরেন্স, পূরবী জেনারেল ইন্স্যুরেন্স, রূপালী ইন্স্যুরেন্স, সোনারবাংলা ইন্স্যুরেন্স ও ইউনাইটেড ইন্স্যুরেন্স। আর আয় কমেছে যেসব কোম্পানির তার মধ্যে রয়েছে সেন্ট্রাল ইন্স্যুরেন্স, গ্রীনডেল্টা ইন্স্যুরেন্স, মার্কেন্টাইল ইন্স্যুরেন্স, পিপলস ইন্স্যুরেন্স ও ইউনাইটেড ইন্স্যুরেন্স।

অধর্-বার্ষিকে কন্টিনেন্টাল ইন্স্যুরেন্সের শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) দাঁড়িয়েছে ১ টাকা ৯২ পয়সা। যা এর আগের বছর একই সময়ে ছিল ১ টাকা ৫৬ পয়সা। ৩০ জুন ২০১৯ পর্যন্ত কোম্পানিটির এনএভিপিএস দাঁড়িয়েছে ১৯ টাকা ৯৩ পয়সা।

ইস্টল্যান্ড ইন্স্যুরেন্সের অধর্-বার্ষিক ইপিএস দাঁড়িয়েছে ৯৪ পয়সা। যা এর আগের বছর একই সময়ে ছিল ৯২ পয়সা। ৩০ জুন পর্যন্ত এর এনএভিপিএস দাঁড়িয়েছে ২১ টাকা ১৩ পয়সা।

অর্ধ-বার্ষিকে ফেডারেল ইন্স্যুরেন্সের ইপিএস দাঁড়িয়েছে ৩৭ পয়সা। যা এর আগের বছর একই সময়ে ছিল ২৯ পয়সা। ৩০ জুন ২০১৯ এ কোম্পানির এনএভিপিএস দাঁড়িয়েছে ১১ টাকা ৩০ পয়সা।

ইসলামী ইন্স্যুরেন্সের ইপিএস দাঁড়িয়েছে ৮০ পয়সা। যা এর আগের বছর একই সময়ে ছিল ৭৫ পয়সা। ৩০ জুন ২০১৯ এ কোম্পানির এনএভিপিএস দাঁড়িয়েছে ১৪ টাকা ৯৭ পয়সায়।
নিটল ইন্স্যুরেন্সের ইপিএস দাঁড়িয়েছে ১ টাকা ৫১ পয়সা। যা এর আগের বছর একই সময়ে ছিল ১ টাকা ৪২ পয়সা। ৩০ জুন পর্যন্ত এ কোম্পানির এনএভিপিএস দাঁড়িয়েছে ২৪ টাকা ১৮ পয়সা।

প্যারামাউন্ট ইন্স্যুরেন্সের ইপিএস দাঁড়িয়েছে ৮৭ পয়সা। যা এর আগের বছর একই সময়ে ছিল ৩৫ পয়সা। ৩০ জুন ২০১৯ এ কোম্পানির এনএভিপিএস দাঁড়িয়েছে ১৩ টাকা ৬৯ পয়সা।

প্রগতি ইন্স্যুরেন্সের অর্ধ-বার্ষিক ইপিএস দাঁড়িয়েছে ১ টাকা ৫২ পয়সা। যা এর আগের বছর একই সময়ে ছিল ১ টাকা ৩৯ পয়সা। ৩০ জুন ২০১৯ এর এনএভিপিএস দাঁড়িয়েছে ৬০ টাকা ৭২ পয়সা।

অ-নিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন অনুসারে অর্ধ-বার্ষিকে প্রাইম ইন্স্যুরেন্সের ইপিএস হয়েছে ৬৪ পয়সা। যা এর আগের বছর একই সময়ে ছিল ৬ পয়সা।

পূরবী জেনারেল ইন্স্যুরেন্সের ইপিএস হয়েছে ৫১ পয়সা। যা এর আগের বছর একই সময়ে ছিল ৫০ পয়সা। ৩০ জুন ২০১৯ এর এনএভিপিএস দাঁড়িয়েছে ১৩ টাকা ৫৮ পয়সা।

রূপালী ইন্স্যুরেন্সের ইপিএস হয়েছে ১ টাকা ২৯ পয়সা। যা এর আগের বছর একই সময়ে ছিল ১ টাকা ২৭ পয়সা। ৩০ জুন ২০১৯ এ কোম্পানির এনএভিপিএস দাঁড়িয়েছে ২২ টাকা ৮৭ পয়সা।

সোনারবাংলা ইন্স্যুরেন্সের ইপিএস হয়েছে ৯৬ পয়সা। যা এর আগের বছর একই সময়ে ছিল ৯২ পয়সা। ৩০ জুন ২০১৯ এর এনএভিপিএস দাঁড়িয়েছে ১৮ টাকা ৬৯ পয়সা।

অ-নিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন অনুসারে অর্ধ-বার্ষিকে ইউনাইটেড ইন্স্যুরেন্সের ইপিএস হয়েছে ১ টাকা ৩৩ পয়সা। যা এর আগের বছর একই সময়ে ছিল ৮৪ পয়সা।

এদিকে অ-নিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন অনুসারে অর্ধ-বার্ষিকে (জানুয়ারি-জুন) সেন্ট্রাল ইন্স্যুরেন্সের ইপিএস হয়েছে ১ টাকা ৩ পয়সা। যা এর আগের বছর একই সময়ে ছিল ১ টাকা ২১ পয়সা। ৩০ জুন ২০১৯ এ কোম্পানির শেয়ারপ্রতি নিট সম্পদ মূল্য (এনএভিপিএস) দাঁড়িয়েছে ২৩ টাকা ৫৬ পয়সা।
গ্রীনডেল্টা ইন্স্যুরেন্সের অর্ধ-বার্ষিক ইপিএস দাঁড়িয়েছে ১ টাকা ২৪ পয়সা। যা এর আগের বছর একই সময়ে ছিল ১ টাকা ৫৯ পয়সা। ৩০ জুন ২০১৯ এর এনএভিপিএস দাঁড়িয়েছে ৭৬ টাকা ৩৯ পয়সায়।
মার্কেন্টালইল ইন্স্যুরেন্সের অর্ধবার্ষিক ইপিএস দাঁড়িয়েছে ৮০ পয়সা। যা এর আগের বছর একই সময়ে ছিল ১ টাকা ১ পয়সা। ৩০ জুন ২০১৯ কোম্পানিটির এনএভিপিএস দাঁড়িয়েছে ১৮ টাকা ৬ পয়সা।
পিপলস ইন্স্যুরেন্সের অর্ধ-বার্ষিক ইপিএস হয়েছে ৮৫ পয়সা। যা এর আগের বছর একই সময়ে ছিল ১ টাকা ৪ পয়সা। ৩০ জুন কোম্পানিটির এনএভিপিএস দাঁড়িয়েছে ২৬ টাকা ৭২ পয়সা।
তাকাফুল ইন্স্যুরেন্সের অর্ধ-বার্ষিক ইপিএস হয়েছে ৫৪ পয়সা। যা এর আগের বছর একই সময়ে ছিল ৫৮ পয়সা। ৩০ জুন ২০১৯ এর এনএভিপিএস দাঁড়িয়েছে ১৬ টাকা ১৩ পয়সা।

দৈনিক শেয়ারবাজার প্রতিদিন/এসএ/খান

Share
নিউজটি ৩৭৯ বার পড়া হয়েছে ।
Tagged