কারেকশন সূচক লেনদেন dse-cse

আড়াই বছরের মধ্যে সর্বনিম্ন অবস্থানে সূচক

সময়: সোমবার, জুলাই ১৫, ২০১৯ ১২:৩৬:০২ অপরাহ্ণ


নিজস্ব প্রতিনিধি : পতন যেন পিছু ছাড়ছেনা পুঁজিবাজারে। ধারাবাহিক দরপতনের কারণে বিনিয়োগকারীদের মধ্যেও আস্থা সঙ্কট বেড়েছে। সপ্তাহের দ্বিতীয় কার্যদিবসে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) সূচকের বড় পতনে শেষ হয়েছে লেনদেন। এরই ধারাবাহিকতায় টানা ৭ কার্যদিবসে ২৮৯ পয়েন্ট হারিয়েছে পুঁজিবাজার। যে কারণে গত আড়াই বছরের সর্বনিম্ন স্থানে নিচে অবস্থান করছে ডিএসই‘র প্রধান সূচক। এর আগে গত ১ জানুয়ারি, ২০১৭ ডিএসইর ব্রড ইনডেক্স অবস্থান করে ৫০৮৩.৮৯ পয়েন্টে এবং আজ ২০১৯ সূচক ৮৮ পয়েন্ট কমে অবস্থান করে ৫০৯১.০৪ পয়েন্টে। এছাড়াও, গত ৪ জুরাই ডিএসইর ব্রড ইনডেক্স অবস্থান করে ৫৩৮০.৭৯ পয়েন্টে এবং আজ ১৫ জুলাই, সূচক অবস্থান করে ৫০৯১.০৪ পয়েন্টে। আলোচিত সময়ে ডিএসই সূচক হারিয়েছে ২৮৯.৩০ পয়েন্ট। আজ লেনদেন শেষে সূচকের পাশাপাশি কমেছে বেশিরভাগ কোম্পানির শেয়ার দর। আর টাকার অংকেও লেনদেন আগের দিনের তুলনায় কিছুটা কমেছে। আজ ডিএসইতে লেনদেন হয়েছে ৩০৬ কোটি ৬ লাখ ৫৩ হাজার টাকা।
বাজার পর্যালোচনায় দেখা যায়, আজ ডিএসইর ব্রড ইনডেক্স আগের দিনের চেয়ে ৮৮ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ৫০৯১ পয়েন্টে। আর ডিএসই শরিয়াহ সূচক ২৪ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ১১৬৬ পয়েন্টে এবং ডিএসই ৩০ সূচক ৩৪ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ১৮১৮ পয়েন্টে। দিনভর লেনদেন হওয়া ৩৫২টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের মধ্যে দর বেড়েছে ৩৭টির, কমেছে ৩০৩টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ১২টির। আর দিনশেষে লেনদেন হয়েছে ৩০৬ কোটি ৬ লাখ ৫৩ হাজার টাকা।
এর আগের কার্যদিবস দিন শেষে ডিএসইর ব্রড ইনডেক্স ৪২ পয়েন্ট কমে অবস্থান করে ৫১৭৯ পয়েন্টে। আর ডিএসই শরিয়াহ সূচক ৩ পয়েন্ট কমে অবস্থান করে ১১৯০ পয়েন্টে এবং ডিএসই ৩০ সূচক ৪ পয়েন্ট কমে অবস্থান করে ১৮৫৩ পয়েন্টে। আর ওইদিন লেনদেন হয়েছিল ৩৫৪ কোটি ৪ লাখ ৭৫ হাজার টাকা। সে হিসেবে আজ ডিএসইতে লেনদেন কমেছে ৪৭ কোটি ৯৮ লাখ ২২ হাজার টাকা।
অন্যদিকে, চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) আজ সোমবারও সূচকের নিম্নমুখী প্রবণতায় লেনদেন শেষ হয়েছে। লেনদেনের শুরু থেকেই সূচক নিচে নামতে থাকে। শেষ দিকে সূচক কিছুটা ওঠানামার মধ্যে থাকলেও পতনের ধারা থেকে বের হতে পারেনি সিএসই।
আজ সূচেকর সঙ্গে কমেছে বিভিন্ন কোম্পানির শেয়ারদর। তবে মোট লেনদেনের পরিমাণ রোববারের তুলনায় কিছুটা বেড়েছে। সিএসই সার্বিক মূল্য সূচক আজ ২৬১ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ১৫ হাজার ৬১৯ পয়েন্টে। এছাড়া সিএসইএক্স সূচক ১৫৭ পয়েন্ট কমে ৯ হাজার ৪৮৭ পয়েন্টে নেমে আসে।
এদিকে সিএসইতে মোট ২৭৮টি কোম্পানির লেনদেন হয়েছিল। যার মধ্যে দর বেড়েছিল ৪০টির কমেছিল ২২০ টির আর অপরিবর্তিত ছিল ১৮ কোম্পানির শেয়ার দর। আর দিন শেষে ৬২ লাখ ২৭ হাজার ১৭৫টি শেয়ার ৬ হাজার ৫৯১ বার হাত বদল হয়েছে। যার মোট মূল্য ছিল ১৪ কোটি ৪০ লাখ ৫১ হাজার ৮৩৫ টাকা। যা আগের কার্যদিবসের তুলনায় ২ কোটি ৭২ লাখ ৪৭ হাজার ৭৫১ টাকা বেশি। আগের দিন মোট লেনদেন হয়েছিল ১১ কোটি ৬৮ লাখ ৪ হাজার ৮৪ টাকা। সিএসইতে টপটেন গেইনারের ১০ কোম্পানির মধ্যে শীর্ষে ছিল গোল্ডেন সন। এ কোম্পানির দর বেড়েছে ৯.২১ শতাংশ। ৯.০৯ শতাংশ দর বেড়ে দ্বিতীয় অবস্থানে ছিল গ্রীন ডেলটা ইন্স্যুরেন্স। অন্যদিকে দর হারানোর দিক থেকে শীর্ষে ছিল সায়হাম টেক্সটাইল। এ কোম্পানির দর কমেছে ১০ শতাংশ।

দৈনিক শেয়ারবাজার প্রতিদিন/এসএ/খান

Share
নিউজটি ৩৩৮ বার পড়া হয়েছে ।
Tagged