editorial

ডিএসই’র ওয়েবসাইটে ভুল তথ্য

দায়ীদের শাস্তি আওতায় আনা উচিত

সময়: সোমবার, অক্টোবর ১৪, ২০১৯ ৬:০২:১৫ অপরাহ্ণ


ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই)-এর ওয়েবসাইটে প্রকাশিত বিভিন্ন তথ্য প্রায়ই ভুল বলে প্রতীয়মান হচ্ছে। আর ভুলে ভরা এসব তথ্য বিনিয়োগকারীদের বিভ্রান্ত করছে। এসব তথ্য সঠিক বিবেচনায় বিনিয়োগ করে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছেন সাধারণ বিনিয়োগকারীরা। নিজেদের স্বার্থ হাসিলে একটি চক্র ইচ্ছাকৃতভাবে ডিএসই’র ওয়েবসাইটে এসব ভুল তথ্য উপস্থাপন করেন বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা। এছাড়া বিভিন্ন সময় ডিএসই’র বিরুদ্ধে নানা তথ্য গোপন করে নিজেদের ফায়দা হাসিল করারও অভিযোগ উঠেছে।
জানা যায়, ডিএসই’র ওয়েবসআইট অনুযায়ী, গত বৃহস্পতিবার টপটেন গেইনারে উঠে আসা কোম্পানিগুলোর তালিকায় সর্বোচ্চ ১০ শতাংশ দর বেড়ে শীর্ষ স্থানে অবস্থানে রয়েছে ‘এমএল ডাইং লিমিটেড’। এ তালিকায় দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে ‘শাহজালাল ইসলামী ব্যাংক’। গেইনার তালিকায় কোম্পানির দর আগের দিনের চেয়ে ৬ দশমিক ৯৩ শতাংশ বেড়েছে বলে তথ্য দেয়া হয়েছে। অথচ শাহজালাল ব্যাংকের প্রোফাইলের তথ্যে দেয়া হয়েছে- কোম্পানির দর আগের দিনের চেয়ে বেড়েছে ৩ দশমিক ৪৭ শতাংশ বেড়েছে। এ হিসেবে কোম্পানিটি গেইনার তালিকায় দ্বিতীয় স্থানে রাখার তথ্যটি ভুল। এ তালিকায় প্রায় সময়ই ভুল তথ্য দিয়ে থাকে ডিএসই।
এদিকে, গেল সপ্তাহে ‘বি’, ‘জেড’, ‘এন’, এবং ‘জেড’ ক্যাটাগরির কোম্পানির জন্য করা টপটেন গেইনার তালিকায় ৬ দশমিক ২৫ শতাংশ দর বেড়ে তৃতীয় স্থানে ‘এন’ ক্যাটাগরির সিলকো ফার্মাসিউটিক্যালস এবং ৬ দশমিক শূন্য ৬ শতাংশ দর বেড়ে সালভো কেমিক্যালস চতুর্থ স্থানে উঠে এসেছে। অথচ ৭ দশমিক ৪৮ শতাংশ দর বাড়ার পরও ‘জেড’ ক্যাটাগরির ‘নর্দার্ন জুট’-এর নাম এ তালিকায় নেই। তথ্য হালনাগাদের এসব ভুলে ভরা তথ্য প্রায় সময়ই ডিএসই-তে লক্ষ্য করা যায়। এসব তথ্য বিনিয়োগকারীদের বিভ্রান্ত করছে। একইসঙ্গে তাদের বিনিয়োগ ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে।
জানা গেছে, বিভিন্ন সময় ডিএসই’র বিরুদ্ধে নানা তথ্য গোপন করে নিজেদের ফায়দা হাসিল করার অভিযোগ উঠেছে। এর আগে ‘রহিমা ফুড’-এর মূল্যসংবেদনশীল তথ্য একদিন পর প্রকাশ করায় বিনিয়োগকারীরা ক্ষতিগ্রস্ত হলেও লাভবান হয়েছে ডিএসই’র অসাধু একটি চক্র। এছাড়া চলতি বছরের শুরুতে ‘গ্লোবাল ইন্স্যুরেন্স’-এর শেয়ার ধারণ সংক্রান্ত ভুল তথ্য দেয়ার ফলে কোম্পানিটির শেয়ার দরে বেশ উল্লম্ফন হয়েছে। পরবর্তীতে সঠিক তথ্য দেয়ায় কোম্পানিটির শেয়ার দরে বড় ধরনের পতন ঘটে। এর ফলে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন বিনিয়োগকারীরা।

Share
নিউজটি ৩৪৭ বার পড়া হয়েছে ।
Tagged