দেশের অর্থনীতি নিয়ে সিপিডি’র বক্তব্য দুঃখজনক : অর্থমন্ত্রী

সময়: মঙ্গলবার, নভেম্বর ৫, ২০১৯ ৯:৩৭:১৩ পূর্বাহ্ণ


বিশেষ প্রতিবেদক : দেশের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি নিয়ে বেসরকারি গবেষণা সংস্থা ‘সেন্টার ফর পলিসি ডায়লগ’ (সিপিডি) গত রোববার যে সংশয় প্রকাশ ও ব্যাখ্যা দিয়েছে তা প্রত্যাখ্যান করেছেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল।
গতকাল সোমবার আগারগাঁও নিজ দপ্তরে জাপানের রাষ্ট্রদূতের সঙ্গে সাক্ষাৎ শেষে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে এ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেন তিনি।
‘দেশের অর্থনীতি নিয়ে সিপিডি যে বক্তব্য দিয়েছে তা দুঃখজনক’ উল্লেখ করে অর্থমন্ত্রী বলেন, ‘সিপিডি সবসময় নিজস্ব লাইনে চলে এবং কথা বলে। তাদের অবস্থান এবং আমার অবস্থান এক নয়। আমি দেশের জনগণের নুন খাই, তাই দেশের জনগণের কথা বলি। সিপিডি কাদের নুন খায় Ñতা আমার জানা নেই।’
তিনি বলেন, তবে সিপিডি যে সবসময় খারাপ বলে, তা নয় বলেও মনে করেন মুস্তফা কামাল। তার বক্তব্য, ‘সিপিডি কিছু গঠনমূলক তথ্যও দেয়। কিন্তু অনেক সময় গঠনমূলক তথ্য দিতে গিয়ে বাড়িয়ে বলে।’
সিপিডি’র ব্যাখ্যা প্রত্যাখান করে অর্থমন্ত্রী বলেন, ‘দেশে প্রবৃদ্ধি হচ্ছে কি না-হচ্ছে, কর্মসংস্থান হচ্ছে কি না-হচ্ছে, এটা আপনারা ভালো জানেন। গত ২০০১ সালে ৫৬ দশমিক ৭ শতাংশ মানুষ দরিদ্র সীমার নিচে ছিল। সেটা কমে এখন ২০ শতাংশের কাছাকাছি। এ যে দরিদ্র দূর হলো, এটা কীসের হাত ধরে হয়েছে। এটা সম্ভব হয়েছে স্থিতিশীল অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধির কারণে এটা সম্ভব হয়েছে। আর কোনো রকম ম্যাজিক আমাদের হাতে নাই।’
তিনি বলেন, ‘অন্যদের কতটা বাড়ছে, সেটা বললে আমার কাছে পরিষ্কার হত। আমরা একা নই, বিশ্বের অংশ। এখন সারাবিশ্বে একটা টানাপড়েন চলছে। আমেরিকার সঙ্গে চায়নার বিশ্ব যুদ্ধ চলছে। আমেরিকার সঙ্গে ইউরোপের বাণিজ্য যুদ্ধ চলছে। ইউরোপে ব্র্যাক্সিট নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে একটা অস্থিরতা যাচ্ছে। এই পরিস্থিতি বিশেষ করে আমাদের রফতানি বাণিজ্য এটা একটু ঝুঁকির মধ্যে থাকবেই। ভালো করে না, এটা সরকারের দায়িত্ব। এই পরিস্থিতি আমরা প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে অবশ্যই মোকাবেলা করতে পারব।’
সিপিডি’র সমালোচনা করে অর্থমন্ত্রী বলেন, ‘সিপিডি গবেষণা প্রতিষ্ঠান, কিন্তু তাদের টাকা কোথা থেকে আসে? সরকারের তো রেভিনিউ পাওয়ার জায়গা আছে। ওরা কোথা থেকে রেভিনিউ পায়? এই প্রশ্নের জবাব আমি চাই। এটা সম্পর্কে আমি তাদের কাছ থেকে পরিষ্কার স্ট্যাটমেন্ট চাই। দেশের জনগণের জন্য তারা কী করেছে? কয়জন লোকের চাকরি দিয়েছেÑ এমন প্রশ্নও তোলেন তিনি।
দৈনিক শেয়ারবাজার প্রতিদিন/এসএ/খান

Share
নিউজটি ৩০০ বার পড়া হয়েছে ।
Tagged