ইউএমপি রেট পরিশোধের নির্দেশনা স্থগিতের সুপারিশ

পলিসি প্রতি ৫ টাকার পরিবর্তে ৩ টাকা নির্ধারনের প্রস্তাব বিআইএ’র

সময়: সোমবার, জানুয়ারি ১৩, ২০২০ ১২:০০:০১ অপরাহ্ণ


অনুপ সর্বজ্ঞ : ইউনিফাইড মেসেজিং প্লাটফর্মের (ইউএমপি) রেট কমাতে একজোট হয়েছে বীমা কোম্পানিগুলো। ইউএমপি বাবদ ত্রৈমাসিক ভিত্তিতে পলিসি প্রতি ৫ টাকার পরিবর্তে ৩ টাকা পরিশোধের প্রস্তাব করেছে বীমা খাতের মালিক পক্ষের সংগঠন বাংলাদেশ ইন্স্যুরেন্স অ্যাসোসিয়েশন (বিআইএ)।
গত বছরের ৩১ অক্টোবর ইউএমপি রেট পুনঃনির্ধারনের বিষয়ে অনুরোধ জানিয়েছে নিয়ন্ত্রণ কর্তৃপক্ষকে একটি চিঠি দেয় বাংলাদেশ ইন্স্যুরেন্স অ্যাসোসিয়েশন (বিআইএ)। পরবর্তীতে গত ৪ ডিসেম্বর আবারো একটি চিঠি দেয়া হয় বিআইএ’র পক্ষ থেকে। কিন্তু তা আমলে না নিয়ে গত ৫ জানুয়ারি ইউএমপি বাবদ ত্রৈমাসিক ভিত্তিতে পাঁচ টাকা সাত কার্যদিবসের মধ্যে পরিশোধের নির্দেশনা দিয়ে দেশের সব বীমা কোম্পানিকে একটি চিঠি দেয় ইন্স্যুরেন্স ডেভেলপমেন্ট অ্যান্ড রেগুলেটরি অথরিটি (আইডিআরএ)। এরই প্রেক্ষিতে গত বৃহস্পতিবার কোন রকম আলোচনা ছাড়া ইউএমপি সার্ভিসের খরচ প্রদানের নির্দেশনা আপাতত স্থগিত রাখার অনুরোধ জানিয়ে নিয়ন্ত্রণ কর্তৃপক্ষকে একটি চিঠি দিয়েছে বিআইএ। গতকাল একই চিঠি পাঠানো হয়েছে দেশের সব বীমা কোম্পানিকে।
বিআইএ চেয়ারম্যান শেখ কবীর হোসেন দৈনিক শেয়ারবাজার প্রতিদিনকে বলেন, ইউএমপি রেট ৫ টাকার পরিবর্তে ৩ টাকা নির্ধারণ করা হলে কারো কোন সমস্যা হবে না। প্রয়োজনে আমরা নিয়ন্ত্রণ কর্তৃপক্ষের সঙ্গে আলোচনায় বসতে রাজি আছি। কিন্তু এই রেট কমানো না হলে এর ক্ষতিকর প্রভাব পড়বে বীমা খাতের ওপর।
আইডিআরএ’র সদস্য ড. এম মোশাররফ হোসেন বলেন, এটা সবার ভালোর জন্য করা হচ্ছে। বিআইএ আলোচনায় বসতে চায়, তবে আইডিআরএ কোন ধরনের আলোচনায় বসবে কিনা বা তাদের দাবী মেনে নেয়া হবে কিনা সে বিষয়ে এখনো কোন সিদ্ধান্ত নেয়নি। আজকালের মধ্যেই কর্তৃপক্ষ বিষয়টি নিয়ে বসবে।
ফারইস্ট ইসলামী লাইফ ইন্স্যুরেন্সের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) হেমায়েত উল্লাহ দৈনিক শেয়ারবাজার প্রতিদিনকে বলেন, আমাদের প্রতিনিধি হলো বিআইএ। বিআইএ’র বক্তব্য হলো নিয়ন্ত্রণ সংস্থার সঙ্গে আলোচনার আগে ইউএমপি বাবদ পলিসি প্রতি ফি পরিশোধ করা যাবে না। নিয়ন্ত্রক সংস্থার নির্দেশনা মানতে আমরা বাধ্য, কিন্তু আমাদেরো কিছু দাবী দাওয়া থাকতে পারে। তা আইডিআরএ’র বিবেচনায় নেয়া উচিত।
শুরু থেকেই ইউএমপি বাবদ খরচের বিরোধিতা করে আসছিল বীমা কোম্পানিগুলো। নিয়ন্ত্রক সংস্থার এ পদক্ষেপের কারণে ব্যবস্থাপনা ব্যয় বাড়বে বলে মনে করছে বীমা খাতের মালিক পক্ষের সংগঠন বিআইএ।
সংশ্লিষ্টরা বলছেন, জীবন বীমা খাতে মোট পলিসি সংখ্যা এক কোটিরও বেশি। আর এ পলিসি প্রতি ত্রৈমাসিক ভিত্তিতে ৫ টাকা পরিশোধ করা হলে শুধু জীবন বীমা কোম্পানিগুলো থেকেই বছরে ২০ কোটি টাকা পাবে নিয়ন্ত্রক সংস্থাটি। তবে এ টাকার একটি অংশ দিতে হবে ইউএমপি বাস্তবায়নকারী প্রতিষ্ঠান ডিওইআর সার্ভিস লিমিটেডকে।
উন্নত গ্রাহকসেবা, ব্যবস্থাপনায় স্বচ্ছতা আনায়ন, এজেন্ট কর্তৃক প্রিমিয়াম আহরণে স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা নিশ্চিত করার জন্য গত বছর ২৮ জানুয়ারি ইউএমপি বাস্তবায়নে বীমা কোম্পানিগুলোকে নির্দেশনা দেয় কর্তৃপক্ষ। এতে বলা হয়, প্রতিটি বীমা কোম্পানির সকল পলিসি ও পলিসিহোল্ডার সংক্রান্ত যাবতীয় তথ্য ইউএমপি বাস্তবায়নে দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রতিষ্ঠান ডিওইআর সার্ভিস লিমিটেডকে সরবরাহ করতে হবে। একইসঙ্গে কোম্পানিগুলোর প্রিমিয়াম সংগ্রহের সকল তথ্য ইউএমপি পোর্টালে আপলোড করার নির্দেশ দেয় নিয়ন্ত্রক সংস্থা।
এর আগে ইউএমপি প্রশিক্ষণে না আসার কারণে ডেল্টা লাইফ ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি লিমিটেডকে ৫ লাখ টাকা জরিমানা করে আইডিআরএ। গত বছরের মার্চ ও আগস্টে ইউএমপি নিয়ে দু’ দফা প্রশিক্ষণের আয়োজন করে নিয়ন্ত্রক সংস্থাটি। প্রশিক্ষণে ডেল্টা লাইফ ইন্স্যুরেন্স ছাড়া বাকি সব প্রতিষ্ঠানই অংশগ্রহণ করে। সম্প্রতি ইউএমপি সংক্রান্ত তথ্যও কোম্পানিগুলোর কাছে চেয়েছে আইডিআরএ। তবে ডেল্টা লাইফসহ বেশ কিছু কোম্পানি কোন জবাব দেয়নি। এর বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানিয়েছে নিয়ন্ত্রক সংস্থা।

দৈনিক শেয়ারবাজার প্রতিদিন/এসএ/খান

Share
নিউজটি ৩৫৬ বার পড়া হয়েছে ।
Tagged