১৬ কোম্পানির আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ

সময়: বুধবার, অক্টোবর ৩০, ২০১৯ ৭:৫৭:৫১ অপরাহ্ণ


নিজস্ব প্রতিবেদক: তৃতীয় প্রান্তিক (জুলাই-সেপ্টেম্বও ২০১৯) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত ১৬ কোম্পানি। ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) ও সংশ্লিষ্ট সূত্রে এ তথা জানা গেছে।
এশিয়া প্যাসিফিক জেনারেল ইন্স্যুরেন্স: তৃতীয় প্রান্তিকের (জুলাই-সেপ্টেম্বও ২০১৯) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন অনুযায়ী কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৬৫ পয়সা। একই সময়ে আগের বছর শেয়ারপ্রতি আয় ছিল ৫৮ পয়সা।
এদিকে নয় মাসে (জানুয়ারি-সেপ্টেম্বর ২০১৯) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১ টাকা ৯৩ পয়সা। গত অর্থবছরের একই সময়ে শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছিল ১ টাকা ৫৯ পয়সা। এছাড়া শেয়ারপ্রতি সম্পদ (এনএভিপিএস) হয়েছে ২০ টাকা ৪৫ পয়সা।

লংকাবাংলা ফাইন্যান্স: তৃতীয় প্রান্তিকের (জুলাই-সেপ্টেম্বও ২০১৯) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন অনুযায়ী কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি সমন্বিত আয় (ইপিএস) হয়েছে ৫২ পয়সা। একই সময়ে আগের বছর শেয়ারপ্রতি আয় ছিল ২৬ পয়সা। এ সময় কোম্পানিটির এককভাবে শেয়ার প্রতি আয় হয়েছে (ইপিএস) ৯০ পয়সা, গত বছর একই সময় ছিল ৬৩ পয়সা। আলোচিত সময়ে শেয়ার প্রতি একক ভাবে সম্পদ হয়েছে ১৭ টাকা ৩ পয়সা সমন্বিতভাবে হয়েছে ১৮ টাকা ৬ পয়সা।

ইন্টারন্যাশনাল লিজিং: তৃতীয় প্রান্তিকের (জুলাই-সেপ্টেম্বর ২০১৯) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন অনুযায়ী কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ২ পয়সা। একই সময়ে আগের বছর শেয়ারপ্রতি আয় ছিল ৭ পয়সা।
এদিকে নয় মাসে (জানুয়ারি-সেপ্টেম্বর ২০১৯) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১১ পয়সা। গত অর্থবছরের একই সময়ে শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছিল ৫৭ পয়সা। এছাড়া শেয়ারপ্রতি সম্পদ (এনএভিপিএস) হয়েছে ১২ টাকা ৮৩ পয়সা।

ফারইস্ট লাইফ ইন্স্যুরেন্স: তৃতীয় প্রান্তিকে (জুলাই-সেপ্টেম্বর ২০১৯) ৪২ কোটি ৭২ লাখ টাকার প্রিমিয়াম আয় হয়েছে। আগের বছর একই সময়ে আয় ৩৮ কোটি ৪৭ লাখ টাকা। এদিকে ৯ মাসে (জানুয়ারি- সেপ্টেম্বর ২০১৯) কোম্পানিটির প্রিমিয়াম আয় হয়েছে ২৪১ কোটি ২৬ লাখ টাকা। আগের বছর কোম্পানিটির প্রিমিয়াম আয় হয়েছিল ২৩৩ কোটি ৯২ লাখ টাকা।

শাহজালাল ইসলামী ব্যাংক: তৃতীয় প্রান্তিকের (জুলাই-সেপ্টেম্বও ২০১৯) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন অনুযায়ী কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি সমন্বিতআয় (ইপিএস) হয়েছে ২৯ পয়সা। একই সময়ে আগের বছর শেয়ারপ্রতি আয় ছিল ৩৬ পয়সা। এদিকে নয় মাসে (জানুয়ারি-সেপ্টেম্বর ২০১৯) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতিসমন্বিত আয় (ইপিএস) হয়েছে ১ টাকা ৪২ পয়সা। গত অর্থবছরের একই সময়ে শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছিল ১ টাকা ২০ পয়সা। এছাড়া শেয়ারপ্রতি সমন্বিত সম্পদ (এনএভিপিএস) হয়েছে ১৭ টাকা ৩৪ পয়সা।

স্ট্যান্ডার্ড ব্যাংক: তৃতীয় প্রান্তিকের (জুলাই-সেপ্টেম্বও ২০১৯) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন অনুযায়ী কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি সমন্বিতআয় (ইপিএস) হয়েছে ৩৬ পয়সা। একই সময়ে আগের বছর শেয়ারপ্রতি আয় ছিল ০২ পয়সা। এদিকে নয় মাসে (জানুয়ারি-সেপ্টেম্বর ২০১৯) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি সমন্বিত আয় (ইপিএস) হয়েছে ৪৫ পয়সা। গত অর্থবছরের একই সময়ে শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছিল ১১ পয়সা। এছাড়া শেয়ারপ্রতি সমন্বিত সম্পদ (এনএভিপিএস) হয়েছে ১৫ টাকা ৮৭ পয়সা।

মার্কেন্টাইল ইন্স্যুরেন্স: তৃতীয় প্রান্তিকের (জুলাই-সেপ্টেম্বও ২০১৯) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন অনুযায়ী কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১৩ পয়সা। একই সময়ে আগের বছর শেয়ারপ্রতি আয় ছিল ২৩ পয়সা। এদিকে নয় মাসে (জানুয়ারি-সেপ্টেম্বর ২০১৯) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৯৩ পয়সা। গত অর্থবছরের একই সময়ে শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছিল ১ টাকা ২৭ পয়সা। এছাড়া শেয়ারপ্রতি সমন্বিত সম্পদ (এনএভিপিএস) হয়েছে ১৮ টাকা ১৯ পয়সা।

নর্দার্ন জুট: প্রথম প্রান্তিকের (জুলাই-সেপ্টেম্বর ২০১৯) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন অনুযায়ী কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৭ টাকা ১৬ পয়সা। গত অর্থবছরের একই সময়ে শেয়ারপ্রতি আয় হয়েছিল ২ টাকা ৩ পয়সা।
এদিকে ৩০ সেপ্টেম্বর ২০১৯ পর্যন্ত কোম্পানির শেয়ারপ্রতি সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ৮৭ টাকা ৪৯ পয়সা।

ইসলামিক ফাইন্যান্স: তৃতীয় প্রান্তিকের (জুলাই-সেপ্টেম্বও ২০১৯) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন অনুযায়ী কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ২৮ পয়সা। একই সময়ে আগের বছর শেয়ারপ্রতি আয় ছিল ১৭ পয়সা। এদিকে নয় মাসে (জানুয়ারি-সেপ্টেম্বর ২০১৯) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৯৪ পয়সা। গত অর্থবছরের একই সময়ে শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছিল ৭৫ পয়সা। এছাড়া শেয়ারপ্রতি সমন্বিত সম্পদ (এনএভিপিএস) হয়েছে ১৪ টাকা।

অগ্রণী ইন্স্যুরেন্স: তৃতীয় প্রান্তিকের (জুলাই-সেপ্টেম্বর ২০১৯) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন অনুযায়ী কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৫৫ পয়সা। একই সময়ে আগের বছর শেয়ারপ্রতি আয় ছিল ৩৩ পয়সা। এদিকে নয় মাসে (জানুয়ারি-সেপ্টেম্বর ২০১৯) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১ টাকা ২৪ পয়সা। গত অর্থবছরের একই সময়ে শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছিল ১ টাকা ৬ পয়সা। এছাড়া শেয়ারপ্রতি সমন্বিত সম্পদ (এনএভিপিএস) হয়েছে ১৮ টাকা ৫১ পয়সা।

পূবালি ব্যাংক: ইসলামিক ফাইন্যান্স: তৃতীয় প্রান্তিকের (জুলাই-সেপ্টেম্বও ২০১৯) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন অনুযায়ী কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ২ টাকা ৭২ পয়সা। একই সময়ে আগের বছর শেয়ারপ্রতি আয় ছিল ২ টাকা ৬১ পয়সা। এদিকে নয় মাসে (জানুয়ারি-সেপ্টেম্বর ২০১৯) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ২ টাকা ৫০ পয়সা। গত অর্থবছরের একই সময়ে শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছিল ২ টাকা ৩৯ পয়সা। এছাড়া শেয়ারপ্রতি সমন্বিত সম্পদ (এনএভিপিএস) হয়েছে ২৮ টাকা ১৬।

ন্যাশনাল হাউজিং: তৃতীয় প্রান্তিকের অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন অনুযায়ী কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ২১ পয়সা। একই সময়ে আগের বছর শেয়ারপ্রতি আয় ছিল ৪১ পয়সা। এদিকে নয় মাসে (জানুয়ারি-সেপ্টেম্বর ২০১৯) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১ টাকা ৪৫ পয়সা। গত অর্থবছরের একই সময়ে শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছিল ১ টাকা ৪২ পয়সা। এছাড়া শেয়ারপ্রতি সমন্বিত সম্পদ (এনএভিপিএস) হয়েছে ১৫ টাকা ৭১ পয়সা।

সিঙ্গার বিডি: তৃতীয় প্রান্তিকের (জুলাই-সেপ্টেম্বর) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন অনুযায়ী কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি সমন্বিত আয় (ইপিএস) হয়েছে ৪ টাকা ৪১ পয়সা। একই সময়ে আগের বছর শেয়ারপ্রতি আয় ছিল ৪ টাকা ৪২ পয়সা। এদিকে নয় মাসে (জানুয়ারি-সেপ্টেম্বর ২০১৯) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি সমন্বিত আয় (ইপিএস) হয়েছে ৯ টাকা ৫৪ পয়সা। গত অর্থবছরের একই সময়ে শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছিল ৮ টাকা ৩৮ পয়সা। এছাড়া শেয়ারপ্রতি সমন্বিত সম্পদ (এনএভিপিএস) হয়েছে ৩০ টাকা ৪৪ পয়সা।

প্রাইম ব্যাংক: তৃতীয় প্রান্তিকের (জুলাই-সেপ্টেম্বর ২০১৯) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন অনুযায়ী কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৪৪ পয়সা। একই সময়ে আগের বছর শেয়ারপ্রতি আয় ছিল ৪৫ পয়সা। এদিকে নয় মাসে (জানুয়ারি-সেপ্টেম্বর ২০১৯) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১ টাকা ৩৪ পয়সা। গত অর্থবছরের একই সময়ে শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছিল ১ টাকা ১৫ পয়সা।

ইউনিয়ন ক্যাপিটেল: তৃতীয় প্রান্তিকের (জুলাই-সেপ্টেম্বর ২০১৯) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন অনুযায়ী কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১ টাকা ৩৭ পয়সা। একই সময়ে আগের বছর শেয়ারপ্রতি আয় ছিল ৫ পয়সা। এদিকে নয় মাসে (জানুয়ারি-সেপ্টেম্বর ২০১৯) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১ টাকা ৩১ পয়সা। গত অর্থবছরের একই সময়ে শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছিল ১০ পয়সা। এছাড়া শেয়ারপ্রতি সমন্বিত সম্পদ (এনএভিপিএস) হয়েছে ১২ টাকা ২ পয়সা।

পদ্মা ইসলামী লাইফ ইন্স্যুরেন্স: তৃতীয় প্রান্তিক (জুলাই-সেপ্টেম্বর ২০১৯) কোম্পানিটির লাইফ ফান্ডের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ৯ কোটি ২৬ লাখ ৭৯ হাজার ২২৬ টাকা। গত অর্থবছরের একই সময়ে যার পরিমাণ ছিল ১০৬ কোটি ৩১ লাখ ১ হাজার ১৮৯ টাকা। এছাড়া নয় মাসে (জানুয়ারি-সেপ্টেম্বও ২০১৯) কোম্পানির লাইফ ফান্ডের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ৪৫ কোটি ৩৯ লাখ ৬৭ হাজার ৩০১ টাকা। গত অর্থবছরের একই সময়ে যার পরিমাণ ছিল ১২৮ কোটি ৮২ লাখ ৫৭ হাজার ৪৬৬ টাকা।

দৈনিক শেয়ারবাজার প্রতিদিন/রী

Share
নিউজটি ৪০৭ বার পড়া হয়েছে ।
Tagged