৫ কোম্পানির এজিএম অনুষ্ঠিত

সময়: বৃহস্পতিবার, ডিসেম্বর ১২, ২০১৯ ৮:২২:০৮ অপরাহ্ণ


নিজস্ব প্রতিবেদক : পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত ৫ কোম্পানির বার্ষিক সাধারণ সভা গতকাল অনুষ্ঠিত হয়েছে। কোম্পানিগুলো হলো- বেঙ্গল উইন্ডসোর থার্মোপ্লাস্টিক লিমিটেড, ডোরিন পাওয়ার জেনারেশন অ্যান্ড সিস্টেমস লিমিটেড, কাসেম ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড, স্কয়ার টেক্সটাইল মিলস্্ লিমিটেড ও স্কয়ার ফার্মাসিটিউক্যালস্্ লিমিটেড।
বেঙ্গল উইন্ডসোর থার্মোপ্লাস্টিক : এ কোম্পানির বার্ষিক সাধারণ সভা (এজিএম) গতকাল রাজধানীর বেঙ্গল মাল্টিমিডিয়া স্টুডিওতে অনুষ্ঠিত হয়েছে। সভায় ৩০ জুন ২০১৯ সমাপ্ত হিসাববছরে বিনিয়োগকারীদের জন্য ঘোষিত ৫ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ অনুমোদন করা হয়।
এতে সভাপতিত্ব করেন কোম্পানির চেয়ারম্যান মোরশেদ আলম। এছাড়া উপস্থিত ছিলেন ব্যবস্থাপনা পরিচালক হুমায়ুন কবির বাবলু, ফিরোজ আলম, সামসুল আলম, সাইফুল আলম, ইন্ডিপেন্ডেন্ট পরিচালক মো. সাহেদুল ইসলাম, মো. আবু জাফর, মো. কিবরিয়াসহ শেয়ারহোল্ডারবৃন্দ।
ডোরিন পাওয়ার : গতকাল রাজধানীর ট্রাস্ট মিলনায়তনে ডোরিন পাওয়ারের এজিএম অনুষ্ঠিত হয়েছে। এ সময় উপস্থিত শেয়ারহোল্ডারা ২০১৮-২০১৯ হিসাব বছরের জন্য সুপারিশকৃত ৩০ শতাংশ লভ্যাংশসহ অন্যান্য আলোচ্য সূচি অনুমোদন করেন। এজিএমে উপস্থিত ছিলেন কোম্পানরি চেয়ারম্যান আনজাবীন আলম সিদ্দিকী, পরিচালক আবুল হাসনাত, পরিচালক আলী আকবর, স্বতন্ত্র পরিচালক মাহতাব বিন-আহমেদ এবং কোম্পানি সচিব মাসুদুর রহমান ভূঁইয়া।
কাসেম ইন্ডাস্ট্রিজ : মহাখালীর রাওয়া কনভেনশন সেন্টারে গতকাল কাসেম ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেডের ৩৮তম বার্ষিক সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। সভায় শেয়ারহোল্ডারদের জন্য ঘোষিত ১২ শতাংশ লভ্যাংশ অনুমোদন করা হয়।
এতে সভাপতিত্ব করেন কোম্পানির নতুন চেয়ারম্যান ডা. রেয়ান আনিস ইসলাম। এর আগে প্রায় এক যুগ কোম্পানিটির চেয়ারম্যান ছিলেন আনোয়ারুল ইসলাম। তিনি আজ উপস্থিত ছিলেন। এছাড়া আরো উপস্থিত ছিলেন কোম্পানির ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি)তানভির উল ইসলাম, পরিচালক নাফিসা কাশেম, সামিদ কাশেম ও ইন্ডিপেন্ডেন্ট পরিচালক মীর মোহাম্মদ শহিদুল্লাহ।
কোম্পানির ব্যবস্থাপনা পরিচালক তাসভিরুল ইসলাম বলেন, আমাদের পারফমেন্স খারাপ ছিল না। আমাদের প্রোডাক্ট আরো বেশি সেল হতো কিন্তু আমরা প্রোডাক্ট প্রোডাকশন সঠিকভাবে করতে পারিনি। তিনি আরো বলেন, বিশ্ব বাজারে ডলারের দাম বাড়ায় আমাদের ইমপোর্ট প্রাইস বেড়ে যাচ্ছে। আমরা সেলস প্রাইস বাড়াতে পারছি না।
স্কয়ার টেক্সটাইল : বস্ত্র খাতের কোম্পানি স্কয়ার টেক্সটাইলের ২৪তম এজিএমে ৩০ জুন ২০১৯ সমাপ্ত হিসাববছরের জন্য ঘোষিত লভ্যাংশ অনুমোদন করা হয়েছে।
ব্যবস্থাপনা পরিচালক সামিউল এস চৌধুরীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এজিএমে আরও উপস্থিত ছিলেন পরিচালক আনজান চৌধুরী, স্বতন্ত্র পরিচালক নাহিদ চৌধুরী ও এস. এম. রেজাউর রহমান এবং কোম্পানি সেক্রেটারি সাঞ্জিত বরণ রায়সহ কর্মকর্তা ও শেয়ারহোল্ডারা।
স্কয়ার ফার্মা : ওষুধ ও রসায়ন খাতের কোম্পানি স্কয়ার ফার্মার মত স্কয়ার হাসপাতালকেও প্রথম হতে হবে, দ্বিতীয় হওয়া যাবে না বলে মন্তব্য করেছেন অধ্যাপক আবু আহমেদ। গতকাল কোম্পানির ৫৩তম বার্ষিক সাধারণ সভায় (এজিএম) তিনি একথা বলেন।
অধ্যাপক আবু আহমেদ বলেন, স্কয়ার গ্রুপের সঙ্গে আমার দীর্ঘদিনের সম্পর্ক। এ কোম্পানিতে বিনিয়োগ থাকার পরও আমি এজিএমে কখনো আসিনি। কারণ তাদের পরিবারের সঙ্গে আমার দীর্ঘদিনের সম্পর্ক থাকায় তাদের প্রতি আমার আস্থা আছে। তবে আজ ইচ্ছে হওয়ার কারণে এসেছি।
এজিএমে কোম্পানির বিভিন্ন এজেন্ডাসহ লভ্যাংশ অনুমোদন করেন শেয়ারহোল্ডাররা।
কোম্পানির চেয়ারম্যান সামিউল এস. চৌধুরী সভাপতির বক্তব্যে বলেন, স্কয়ার ফার্মা বিনিয়োগকারীদের সঙ্গে ছিল এবং আছে। স্কয়ারের উপর আপনাদের যে আস্থা আছে সেটা আপনারা রাখবেন। আমরা সবসময় ভালো করার চেষ্টা করি। অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন ভাইস চেয়ারম্যান রত্না পাতরা, ব্যবস্থাপনা পরিচালক তপন চৌধুরী, পরিচালক আনজান চৌধুরী ও কাজী ইকবাল হারুন, স্বতন্ত্র পরিচালক এস. এম. রেজাউর রহমান এবং কোম্পানি সেক্রেটারি খন্দকার হাবিবুজ্জামানসহ কর্মকর্তা ও শেয়ারহোল্ডারবৃন্দ।

দৈনিক শেয়ারবাজার প্রতিদিন/রী

Share
নিউজটি ২৯৯ বার পড়া হয়েছে ।
Tagged