সূচক কমলেও বেড়েছে লেনদেন

সপ্তাহশেষে সূচকের পাশাপাশি বেড়েছে লেনদেন

সময়: বৃহস্পতিবার, জানুয়ারি ২, ২০২০ ৫:১২:৫২ অপরাহ্ণ


মো. সাজিদ খান : ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) আজ সপ্তাহের শেষ কার্যদিবসে সূচকের পাশাপাশি বেড়েছে লেনদেন। এদিন লেনদেনের প্রথম এক ঘন্টা ৩০ মিনিট পর্যন্ত সূচকের অস্বাভাবিক ওঠানামা করতে দেখা গেছে। পরবর্তীতে দুপুর ১২টার পর থেকে সূচকের স্বাভাবিক ওঠানামায় লেনদেন শেষ হয়। গতকার ডিএসইতে অধিকাংশ কোম্পানির শেয়ার দর বেড়েছে। দিনশেষে আজ ডিএসই’তে লেনদেন বেড়েছে ৯০ কোটি ৫২ লাখ ৫৯ হাজার ৬৯৯ টাকা ১০ পয়সা। আর বাজার মূলধন বেড়েছে ৭৬৩ কোটি ৮ লাখ ২৩ হাজার ৮৬৮ টাকা ৮৭ পয়সা। ডিএসই সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।
বাজার পর্যালোচনায় দেখা যায়, আজ ডিএসই’র ব্রড ইনডেক্স আগের দিনের চেয়ে ৬.০০ পয়েন্ট বেড়ে দাঁড়ায় ৪৪৫৯.২৯ পয়েন্টে। আর ডিএসই শরিয়াহ্্ সূচক ৫.৭৫ পয়েন্ট বেড়ে ১০০৯.৪১ পয়েন্ট এবং ডিএসই৩০ সূচক ৪.৩৩ পয়েন্ট বেড়ে ১৫০৬.১২ পয়েন্টে দাঁড়ায়। দিনভর লেনদেন হওয়া ৩৫৩টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের মধ্যে দর বেড়েছে ১৬৭টির, কমেছে ১৩৭টির এবং অপরিবর্তিত ছিল ৪৯টি শেয়ারের দর। এদিন ডিএসই’তে মোট ১৪ কোটি ৭৩ লাখ ৮৬ হাজার ৬৭৫টি শেয়ার এক লাখ ২২ হাজার ৪৭০ বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ৩৮৬ কোটি ৮২ লাখ ৬৩ হাজার ৪০০ টাকা ৮০ পয়সা। আজ বাজার মূলধন ছিল ৩ লাখ ৪০ হাজার ৮১১ কোটি ৪ লাখ ৩৪ হাজার ৯৬৩ টাকা ৭৭ পয়সা।
এর আগের কার্যদিবসে ডিএসই’র ব্রড ইনডেক্স ০.৩৫ পয়েন্ট বেড়ে দাঁড়ায় ৪৪৫৩.২৯ পয়েন্টে। আর ডিএসই শরিয়াহ্্ সূচক ৩.৮২ পয়েন্ট বেড়ে ১০০৩.৬৫ পয়েন্ট এবং ডিএসই৩০ সূচক ১১.৫৫ পয়েন্ট কমে ১৫০১.৭৮ পয়েন্টে দাঁড়ায়। দিনভর লেনদেন হওয়া ৩৫৩টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের মধ্যে দর বেড়েছে ২২১টির, কমেছে ৮৬টির এবং অপরিবর্তিত ছিল ৪৬টি শেয়ারের দর। এদিন ডিএসই’তে মোট ১০ কোটি ৬৯ লাখ ৬৫ হাজার ৫৪৯টি শেয়ার এক লাখ ১হাজার ৬৪০ বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ২৯৬ কোটি ৩০ লাখ ৩ হাজার ৭০১ টাকা ৭০ পয়সা। ওইদিন বাজার মূলধন ছিল ৩ লাখ ৪০ হাজার ৪৭ কোটি ৯৬ লাখ ১১ হাজার ৯৪ টাকা ৯০ পয়সা।
ক্যাটাগরিভিত্তিক লেনদেনের ক্ষেত্রে ডিএসই’তে আজ ‘এ’ ক্যাটাগরির ২৪৯টি কোম্পানির মধ্যে দর বেড়েছে ১১৫টি, কমেছে ৯৯টি এবং অপরিবর্তিত ছিল ৩৫টির শেয়ার দর। ‘বি’ ক্যাটাগরির ৪৩টি কোম্পানির মধ্যে দর বেড়েছে ১৮টি, কমেছে ২০টি এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৫টির শেয়ার দর। ‘এন’ ক্যাটাগরির ৯টি কোম্পানির শেয়ারের মধ্যে দর বেড়েছে ৭টি এবং কমেছে ২টির। ‘জেড’ ক্যাটাগরির ৫২টি কোম্পানির মধ্যে দর বেড়েছে ২৭টি, কমেছে ১৬টি এবং অপরিবর্তিত ছিল ৯টির দর। এছাড়া, ৩৬টি মিউচ্যুয়াল ফান্ডের দর বেড়েছে ৮টির, কমেছে ৮টির এবং অপরিবর্তিত ছিল ২০টির দর।
এর আগের কার্যদিবসে ক্যাটাগরিভিত্তিক লেনদেনের ক্ষেত্রে ডিএসই’তে ‘এ’ ক্যাটাগরির ২৪৮টি কোম্পানির মধ্যে দর বেড়েছে ১৪৭টি, কমেছে ৬৮টি এবং অপরিবর্তিত ছিল ৩৩টির শেয়ার দর। ‘বি’ ক্যাটাগরির ৪৩টি কোম্পানির মধ্যে দর বেড়েছে ৩৩টি, কমেছে ৫টি এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৫টির শেয়ার দর। ‘এন’ ক্যাটাগরির ১০টি কোম্পানির শেয়ারের মধ্যে দর বেড়েছে ৬টি, কমেছে ৩টি এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ১টির। ‘জেড’ ক্যাটাগরির ৫২টি কোম্পানির মধ্যে দর বেড়েছে ৩৫টি, কমেছে ১০টি এবং অপরিবর্তিত ছিল ৭টির দর। এছাড়া, ৩৬টি মিউচ্যুয়াল ফান্ডের দর বেড়েছে ১৫টির, কমেছে ৬টির এবং অপরিবর্তিত ছিল ১৫টির দর।
আজ ‘এ’ ক্যাটাগরির ২৪৯ কোম্পানির মোট ৯ কোটি ৮০ লাখ ২ হাজার ২৭২টি শেয়ার ৮৮ হাজার ৩ বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ২৯২ কোটি ৫১ লাখ ৭ হাজার টাকা। ‘বি’ ক্যাটাগরির ৪৩ কোম্পানির ২ কোটি ৪৩ লাখ ২৪ হাজার ৯৬৬টি শেয়ার ২০ হাজার ৫২বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ৫২ কোটি ৮৭ লাখ ৬৮ হাজার টাকা। ‘এন’ ক্যাটাগরির ৯ কোম্পানির এক কোটি ৪ লাখ ৭ হাজার ৭২৫টি শেয়ার ৭ হাজার ২৯৫ বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ১৯ কোটি ৭৬ লাখ ২৪ হাজার টাকা। ‘জেড’ ক্যাটাগরির ৫২ কোম্পানির ৯৪ লাখ ৩৩ হাজার ৭২১টি শেয়ার ৭ হাজার ৮৭ বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ১১ কোটি ১৩ লাখ ২৭ হাজার টাকা। এছাড়া ৩৬টি মিউচ্যুয়াল ফান্ডের ৫২ লাখ ৭৮ হাজার ৩১টি ইউনিট ২ হাজার ১০৮ বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ৩ কোটি ৭৭ লাখ ১০ হাজার টাকা।
এর আগের কার্যদিবসে ‘এ’ ক্যাটাগরির ২৪৮ কোম্পানির মোট ৭ কোটি ৭ লাখ ৭৬ হাজার ৩৯১টি শেয়ার ৭৩ হাজার ৫৬২ বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ২১০ কোটি ১১ লাখ ৪১ হাজার টাকা। ‘বি’ ক্যাটাগরির ৪৩ কোম্পানির ২ কোটি ২৫ লাখ ৮ হাজার ৫০৫টি শেয়ার ১৭ হাজার ১০৭বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ৪৯ কোটি ৭০ লাখ ৫৩ হাজার টাকা। ‘এন’ ক্যাটাগরির ১০ কোম্পানির ৬২ লাখ ৭২ হাজার ১৫৭টি শেয়ার ৫ হাজার ৩৭১ বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ১৫ কোটি ৬ লাখ ৬৯ হাজার টাকা। ‘জেড’ ক্যাটাগরির ৫২ কোম্পানির ৫৬ লাখ ৭০ হাজার ৪৭৭টি শেয়ার ৫ হাজার ৫৪৮ বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ৮ কোটি ৩৪ লাখ ৮০ হাজার টাকা। এছাড়া ৩৬টি মিউচ্যুয়াল ফান্ডের ৫৭ লাখ ৩০ হাজার ২৮৯টি ইউনিট এক হাজার ৭০৪ বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ৪ কোটি ১৪ লাখ টাকা।

প্রধান খাতগুলোর মধ্যে আজ ব্যাংক খাতে ৩ কোটি ১২ লাখ ২৭ হাজার ৪৬২টি শেয়ার ৯ হাজার ৫৭৯বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ৫৮ কোটি ৬৬ লাখ ৪০ হাজার টাকা। বীমা খাতে এক কোটি ৪ লাখ ৭১ হাজার ১২৮টি শেয়ার ১২ হাজার ৪৬২বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ৩৪ কোটি ৭৮ লাখ ৭০ হাজার টাকা। আর্থিক খাতে ৭২ লাখ ৬৬ হাজার ২৫৩টি শেয়ার ৩ হাজার ৬৬৭বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ১০ কোটি ১৫ লাখ ৭০ হাজার টাকা। প্রকৌশল খাতে ২ কোটি ১৯ লাখ ৭০ হাজার ৩৯টি শেয়ার ২১ হাজার ৫৮৫বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ৬৩ কোটি ৪৬ লাখ ১০ হাজার টাকা। ওষুধ ও রসায়ন খাতে ৮৮ লাখ ৭২ হাজার ৮৩১টি শেয়ার ১৩ হাজার ২৬৭বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ৪২ কোটি ৮৩১ লাখ ৬০ হাজার টাকা। বস্ত্র খাতে ২ কোটি ৬৯ লাখ ৪৪ হাজার ৬৬৫টি শেয়ার ১৭ হাজার ৬১৩বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ৪১ কোটি ৬৮ লাখ ১০ হাজার টাকা। বিদ্যুৎ ও জ্বালানি খাতে ৬২ লাখ ৮০ হাজার ২৫৯টি শেয়ার ৮ হাজার ২৩৫বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ৩১ কোটি ৬ লাখ ৩০ হাজার টাকা।
এর আগের কার্যদিবসে ব্যাংক খাতে এক কোটি ৫৩ লাখ ৫১ হাজার ৩৭২টি শেয়ার ৬ হাজার ৯০১বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ২৫ কোটি ২১ লাখ ৬০ হাজার টাকা। বীমা খাতে এক কোটি ২৬ লাখ ৮৭ হাজার ৯৭৬টি শেয়ার ১২ হাজার ৯২৬বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ৪০ কোটি ৯৭ লাখ ১০ হাজার টাকা। আর্থিক খাতে ৫৬ লাখ ৯৭ হাজার ৩২২টি শেয়ার ২ হাজার ৮৪২বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ৭ কোটি ১০ লাখ ৬০ হাজার টাকা। প্রকৌশল খাতে এক কোটি ৮০ লাখ ৯৬ হাজার ৫৩০টি শেয়ার ১৬ হাজার ১১১বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ৪৫ কোটি ৪ লাখ ৪০ হাজার টাকা। ওষুধ ও রসায়ন খাতে ৭৬ লাখ ১৮ হাজার ১১টি শেয়ার ১৩ হাজার ৭৯৬বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ৩৭ কোটি ২২ লাখ ৬০ হাজার টাকা। বস্ত্র খাতে ১ কোটি ৭৭ লাখ ৭৮ হাজার ৫৫৬টি শেয়ার ১২ হাজার ৬১৯বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ২৭ কোটি ৮৪ লাখ ৪০ হাজার টাকা। বিদ্যুৎ ও জ্বালানি খাতে ৫২ লাখ ২১ হাজার ১৮৬টি শেয়ার ৮ হাজার ৩৩১বার হাতবদল হয়, যার মোট মূল্য ২৮ কোটি ১ লাখ ২০ হাজার টাকা।
অন্যদিকে, চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) আজ সিএসই’র সার্বিক সূচক ২৫.১৭ পয়েন্ট বেড়ে দাঁড়ায় ১৩৫৪৪.৬৪ পয়েন্টে। সিএসইএক্স সূচক ১৩.২৯ পয়েন্ট বেড়ে দাঁড়ায় ৮২০৮.৪৪ পয়েন্টে। আজ মোট ২৪৬টি কোম্পানির শেয়ার লেনদেন হয়েছে। এর মধ্যে দর বেড়েছে ১৩৮টির, কমেছে ৮৯টির এবং অপরিবর্তিত ছিল ১৯ কোম্পানির শেয়ার দর। আর দিন শেষে ৬৯ লাখ ৫ হাজার ৪১৪টি শেয়ার ও ইউনিট ৬ হাজার ৮৭৬ বার হাতবদল হয়েছে, যার মূল্য ছিল ১২ কোটি ৮৪ লাখ ৬০ হাজার ৯০২ টাকা ৫০ পয়সা। অর্থাৎ আগের দিনের তুলনায় লেনদেন বেড়েছে ৩ কোটি ৩০ লাখ ৪৪ হাজার ২৭ টাকা। আজ সিএসই’র বাজারমূলধন ছিল ২ লাখ ৭০ হাজার ৪৪৯ কোটি ৪৫ লাখ ৮ হাজার ৬৮৪ টাকা ৯০ পয়সা। অর্থাৎ আগের কার্যদিবসের তুলনায় বাজারমূলধন বেড়েছে এক হাজার ৫০ কোটি ২৭ লাখ ৮০ হাজার ৭১৯ টাকা ১০ পয়সা।
এর আগের কার্যদিবসে সিএসই’তে সার্বিক সূচক ১৩.৭৬ পয়েন্ট বেড়ে দাঁড়ায় ১৩৫১৯.৪৬ পয়েন্টে। সিএসইএক্স সূচক ৭.২৩ পয়েন্ট বেড়ে দাঁড়ায় ৮১৯৫.১৪ পয়েন্টে। আজ মোট ২২৮টি কোম্পানির শেয়ার লেনদেন হয়েছে। এর মধ্যে দর বেড়েছে ১৩৯টির, কমেছে ৬৫টির এবং অপরিবর্তিত ছিল ২৪ কোম্পানির শেয়ার দর। আর দিন শেষে ৪৯ লাখ ৪১ হাজার ৭৯৩টি শেয়ার ও ইউনিট ৫ হাজার ২০৫ বার হাতবদল হয়েছে, যার মূল্য ছিল ৯ কোটি ৫৪ লাখ ১৬ হাজার ৮৭৫ টাকা ৫০ পয়সা। ওইদিন সিএসই’র বাজারমূলধন ছিল ২ লাখ ৬৯ হাজার ৩৯৯ কোটি ১৭ লাখ ২৭ হাজার ৯৬৫ টাকা ৮০ পয়সা।

দৈনিক শেয়ারবাজার প্রতিদিন/এসএ/খান

Share
নিউজটি ৪৫৩ বার পড়া হয়েছে ।
Tagged