editorial

হঠাৎ সূচকের উল্লম্ফন, ‘মন্দের ভালো’ !

সময়: সোমবার, সেপ্টেম্বর ২৩, ২০১৯ ১২:০৩:৩০ অপরাহ্ণ


মন্দা বাজারে হঠাৎ সূচকের উল্লম্ফন দেখা গেছে গতকাল রোববার। এদিন দেশের উভয় স্টক এক্সচেঞ্জে সূচক ও অধিকাংশ কোম্পানির শেয়ার দর বেড়েছে। তবে অধিকাংশ কোম্পানির শেয়ার দর বাড়লেও দর-কমা কোম্পানির সংখ্যা নেহায়েত কম নয়। অন্যদিকে টাকার অঙ্কে মোট লেনদেনের পরিমাণও তেমন আশাব্যঞ্জক নয়। সবকিছু মিলিয়ে গতকালের বাজার পরিস্থিতি ‘মন্দের ভালো’ বলে মনে করছেন সাধারণ বিনিয়োগকারীরা।
বাজার চিত্রে দেখা যায়, গতকাল ‘ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ’ (ডিএসই)-এর সাধারণ সূচক প্রায় ৬৫ পয়েন্ট বেড়েছে, অন্যদিকে ‘চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জ’ (সিএসই)-এর সাধারণ সূচক বেড়েছে ১ দশমিক ২৯ শতাংশ। ডিএসই-তে লেনদেনকারী কোম্পানিগুলোর মধ্যে ১৮৫টির দর বাড়লেও দর কমেছে ১০৬টির। অন্যদিকে সিএসই-তে লেনদেনকারী কোম্পানিগুলোর মধ্যে ১২২টির দর বেড়েছে এবং দর কমেছে ৭৪টির। টাকার অঙ্কে লেনদেন হয়েছে ডিএসই-তে ৩০৪ কোটি ৭২ লাখ টাকা এবং সিএসই-তে ১৯ কোটি ৩৭ লাখ টাকা।
এদিকে পুঁজিবাজারে সূচক ও অধিকাংশ শেয়ার দর বাড়লেই যে, পতনের ধারা কেটে গেছে Ñএমনটি বলা যাচ্ছে না। কারণ টানা মন্দা বাজারে হঠাৎ হঠাৎ সূচক ও শেয়ার দর বাড়তেই পারে।
প্রসঙ্গত: পুঁজিবাজারের বর্তমান মন্দাবস্থার কারণ ব্যাখ্যা করতে গিয়ে সম্প্রতি চারটি কারণের কথা জানিয়েছেন পুঁজিবাজার বিশ্লেষক ও বিএসইসি’র সাবেক চেয়ারম্যান ড. এ বি মির্জ্জা আজিজুল ইসলাম। সেগুলো হচ্ছে- বাজারে ভালো আইপিও না আসা, নিরীক্ষা প্রতিবেদন নির্ভরযোগ্য না হওয়া, নিয়ন্ত্রক সংস্থাগুলোর সমন্বয়হীনতা ও ব্যাংকিং খাতের নাজুক অবস্থা।

এছাড়া বাজার সংশ্লিষ্টদের মতেÑ আস্থার সংকট, কোম্পানির দুর্বল পারফরমেন্স, প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীদের নিষ্ক্রিয়তা, ফরেন সেল বেড়ে যাওয়া ইত্যাদি কারণেও বাজারে নেতিবাচক প্রভাব পড়ছে।

Share
নিউজটি ১০৪০ বার পড়া হয়েছে ।